২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘পাতাল লোক’ ইস্যু এবার কলকাতা হাই কোর্টে, মামলা দায়ের হিন্দুত্ববাদী নেতার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 5, 2020 7:27 pm|    Updated: June 5, 2020 7:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই স্বস্তি নেই। একের পর এক বিতর্কে জড়াচ্ছে ‘পাতাল লোক’। অনুষ্কা শর্মা প্রযোজিত এই ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে এবার মামলা দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে। ওয়েব প্ল্যাটফর্মে ‘পাতাল লোক’কে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন হিন্দু সংগঠনের এক নেতা। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নাম দেবদত্ত মাজি।

প্রসঙ্গত, এর আগে ভারতের গোর্খা সম্প্রদায় এই ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে অনলাইন পিটিশন দায়ের করেছিল। তারপরই ‘পাতাল লোক’ দেখে প্রযোজক-অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয় উত্তরপ্রদেশে। যোগীর রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুরজার অভিযোগ তুলেছিলেন, এই ওয়েব সিরিজে সনাতন ধর্ম ও একাধিক হিন্দু সংগঠনকে নেতিবাচকভাবে দেখানো হয়েছে। যা সম্পূর্ণরূপে দেশবিরোধী, বলেও দাবি করেছিলেন তিনি। যে অভিযোগের ভিত্তিতে ‘পাতাল লোক’ নিষিদ্ধ করার দাবি তুলে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের কাছে আবেদনও জানিয়ে ছিলেন এই বিজেপি নেতা।

উত্তরপ্রদেশের সেই বিজেপি বিধায়কের সুরে সুর মিলিয়েই ‘পাতাল লোক’-এ হিন্দু সংগঠনকে নেতিবাচকভাবে দেখানোর দাবি তুলেছেন দেবদত্ত মাজি। যার জেরে কলকাতা উচ্চ আদালতে বিরাট-ঘরণি অনুষ্কার বিরুদ্ধে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘হাতির খুনিদের শাস্তি দিলেই হবে না, জনসচেতনতা বাড়ান’, কেরলের মুখ্যমন্ত্রীকে খোলা চিঠি মিমির]

প্রসঙ্গত, ১৫ মে অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে ‘পাতাল লোক’। রিলিজের পর থেকেই ক্রমাগত দর্শক ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়োলেও স্বস্তি নেই প্রযোজক অনুষ্কা শর্মার। গত মাসেই অশ্লীলতার দায়ে ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে জমা পড়েছিল পিটিশন। একই অভিযোগ তুলে নন্দকিশোর গুরজার বলেছিলেন, “‘পাতাল লোক’ পাঞ্জাবের জাট, ব্রাহ্মণ ও ত্যাগিদের মধ্যে বৈষম্য তৈরি করার চেষ্টা করেছে। এমনকী এখানে প্রচুর এমন অশালীন শব্দও ব্যবহার করা হয়েছে, যা গোষ্ঠীদন্দ্ব বা হানাহানির সৃষ্টি করতে পারে।” এবার একই অভিযোগের ভিত্তিতে ‘পাতাল লোক’-এর বিরুদ্ধে কলকাতা হাই কোর্টে মামলা দায়ের হল।

[আরও পড়ুন: দেব সহায়, নেপাল থেকে দেশে ফিরলেন দুই অন্তঃসত্ত্বা-সহ ৩৪ জন পরিযায়ী শ্রমিক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement