BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঘরবন্দি থেকেই পরিচালনায় হাতেখড়ি, শর্টফিল্ম বানালেন ‘সন্তু’ আরিয়ান

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 9, 2020 5:35 pm|    Updated: April 9, 2020 5:35 pm

An Images

শম্পালী মৌলিক: আরিয়ান ভৌমিক (Aryan Bhowmik) হোম আইসোলেশনে থেকেই বানিয়ে ফেললেন নিজের প্রথম শর্ট ফিল্ম। ছয় মিনিটের এই ছবির নাম ‘লকডাউন’। মার্চের প্রথমদিকে ‘কাকাবাবু’ সিরিজের ছবির শুটিং করতে আরিয়ান গিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকায়। সঙ্গে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়-সহ গোটা টিম। যেখানে আরিয়ান রয়েছেন সন্তুর ভূমিকায়।

‘জঙ্গলের মধ্যে এক হোটেল’ গল্প নিয়ে এবারের ‘কাকাবাবু’ সিরিজ অর্থাৎ ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’-এর শুটিং হল। COVID-19 যখন সারা বিশ্বে থাবা মারছে তখন সাউথ আফ্রিকা থেকে প্রায় বিপদের কান ঘেঁষে ওঁরা বেরিয়ে এসেছিলেন। ফেরার পর সকলের মতো আরিয়ানও স্বেচ্ছায় ছিলেন সেলফ আইসোলেশনে। একেবারে ঘরবন্দি। বাইরে যখন করোনার তাণ্ডব চলছে সেই সময়ে কোয়ারেন্টাইন পিরিয়ডের একেবারে শেষদিনে এসে একাই তৈরি করে ফেললেন ছোট দৈর্ঘ্যের ছবি লকডাউন।

[আরও পড়ুন: মুম্বই পুলিশের কাজে মুগ্ধ অজয়, পালটা ‘সিংঘম’কে ফিল্মি কায়দায় ধন্যবাদ জানাল কর্তৃপক্ষ]

৬ মিনিট কয়েক সেকেন্ডের এই ফিল্মে লকডাউন আসলে একটি রূপকের মতো ব্যবহৃত হয়েছে। আরিয়ানের এই ছবিতে রয়েছে দারুণ একটি বার্তা। কী সেই বার্তা?  জানালেন অভিনেতা নিজেই। আরিয়ান বললেন, “বাড়িতে অন্য কারও যাতে আমার থেকে ক্ষতি না হয়, সেইজন্য ফেরার পর থেকে নিজেকে টানা ১৪ দিন গৃহবন্দি রেখেছিলাম। দরজার বাইরে খাবার আসত। আমি কিছুক্ষণ পরে গিয়ে দরজা খুলে নিতাম। সারাদিন একলা ছিলাম। কিছু করারও ছিল না। তখন আমারই একটা স্পেয়ার ফোন দিয়ে এই শর্ট ফিল্মটা শুট করে ফেলি। আর রুম কোয়ারেন্টাইনের একেবারে শেষদিনে শুট করেছি যেহেতু, তাই ছবিতে ছাদে যাওয়ার দৃশ্যটা রাখতে পেরেছি। অভিনয়টাও নিজেই করেছি। একা শুট করার চ্যালেঞ্জটা এই সময়ে নিয়ে নিলাম।”

ভাবছেন তো কোথায় দেখা যাবে এই শর্টফিল্ম? ইউটিউবে। যা দেখে ইতিমধ্যেই অনেকে আরিয়ানের প্রথম শর্টফিল্মের প্রশংসা করেছেন। প্রসঙ্গত, গত ১৯ মার্চ দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে গোটা কাকাবাবু টিম নিয়ে ফিরেছেন সৃজিত মুখোপাধ্যায় (Srijit Mukherjee)। ফিরে প্রত্যেকেই নিজেদের বাড়িতে আইসোলেশনে ছিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘শর্টকাট নেবেন না!’, ‘মাসাকলি’র রিমেক ভার্সন শুনে বেজায় চটে গেলেন রহমান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement