BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লাভ জেহাদে উসকানি? মন্দিরেই মুসলিম যুবককে চুুম্বন, তীব্র বিতর্কে নেটফ্লিক্সের ওয়েব সিরিজ

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 22, 2020 3:10 pm|    Updated: November 22, 2020 3:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্দিরের মধ্যে গভীর চুম্বনে লিপ্ত হিন্দু তরুণী ও এক মুসলিম যুবক। লাভ জেহাদের আবহে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্সের (Netflix) একটি ওয়েব সিরিজে এমনই দৃশ্য দেখানো হয়েছে। যার জেরে নেটিজেনদের তীব্র রোষের মুখে পড়েছে নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ। এমনকী, এই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বয়কটেরও (Boycott) ডাক দিয়েছে তারা। ইতিমধ্যে মধ্যপ্রদেশের রেওয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন এক বিজেপি নেতা।

মীরা নায়ার পরিচালিত ‘এ সুইটেবল বয়’ (A Suitable Boy) ওয়েব সিরিজটি নেটফ্লিক্সে সম্প্রচারিত হচ্ছে। এই ওয়েব সিরিজটি লাভ জেহাদকে সমর্থন করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি লাভ জেহাদ ছড়ানোর অভিযোগে গয়না বিপণি তানিষ্ককে বয়কটের ডাক দিয়েছিল নেটিজেনদের একাংশ। শেষপর্যন্ত বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে ফেলতে হয়।

[আরও পড়ুন : মাদককাণ্ডে অভিযুক্ত ভারতী সিং ও হর্ষকে ১৪ দিনের বিচার বিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ আদালতের]

বিক্রম শেঠের এক উপন্যাসকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন পরিচালক মীরা নায়ার। গল্পটি সদ্য স্বাধীন হওয়া ভারতের সামাজিক-পারিবারিক-রাজনৈতিক ঘটনাবলি অবলম্বনে তৈরি। গল্পের নায়িকা লতা মেহরা পারিবারিক দায়িত্ব ও প্রেমের সম্পর্কে জাঁতাকলে আটকে পড়েছে। কলেজের মুসলিম বন্ধুর প্রেমে পড়ে সে। তারপরই মন্দির চত্বরে প্রেমিককে চুমুর দৃশ্য। আর ঠিক এই দৃশ্য নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা।

একদল নেটিজেন দাবি করছেন, শিল্পের স্বাধীনতা রয়েছে। তাই তারা এই দৃশ্য দেখাতেই পারে। তাদের উদ্দেশে নেটিজেনদের একাংশের পালটা প্রশ্ন, এই স্বাধীনতা কেন মসজিদে দেখানো হল না? মসজিদে মুসলিম মেয়ে হিন্দু ছেলেকে চুম্বন করছে, কেন এই দৃশ্য দেখানো হল না?

[আরও পড়ুন : কাজের প্রতি নিষ্ঠা, করোনা আবহেও শুটিং ফ্লোরে অন্তঃসত্ত্বা অনুষ্কা শর্মা]

এই প্রশ্ন তুলেছেন মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা গৌরব তিওয়ারিও। টুইটারে তিনি লিখেছেন, “সুইটেবল বয়-এর একটি পর্বে তিনবার ওই মন্দিরে চুম্বনের দৃশ্য দেখানো হয়েছে। কেন এটা হবে?” তিনি নেটফ্লিক্স অ্যাপও আনইনস্টল করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। নেটিজেনদের অভিযোগ, ভারতীয় সংস্কৃতির পরিপন্থী দৃশ্য এই ওয়েব সিরিজে তুলে ধরা হয়েছে। যদিও এ বিষয়ে নেটফ্লিক্স কর্তৃপক্ষ বা পরিচালকের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তবে রবিবার দিনভর টুইটারে ট্রেন্ডিং রইল #BoycottNetflix।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement