BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

জিতু-নবনীতার হেনস্তা কাণ্ডে ৪ অভিযুক্তর জামিন, ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ অভিনেত্রীর

Published by: Akash Misra |    Posted: December 9, 2022 6:29 pm|    Updated: December 9, 2022 7:01 pm

Jeetu Kamal and Nabanita das assault case, accused get bail | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অভিনেতা জিতু কমল (Jeetu Kamal) এবং তাঁর স্ত্রী নবনীতা দাসকে হেনস্তার অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়া ৪ অভিযুক্তকে শুক্রবার বিকেল নাগাদ জামিন দিল ব্যারাকপুর মহকুমা আদালত।  ৪ অভিযুক্তর জামিনের আগেই ফেসবুকে অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী নবনীতা। ফেসবুকে একটি ভিডিও শেয়ার করে নবনীতা লিখেছেন, খুব বড়ো শিক্ষা পেলাম আজ । “সেলিব্রিটি বা চেনা মুখ” এই সকল তকমাতে আমি বিশ্বাসী নই। সাধারণ মানুষ হিসেবে বিচার চাইতে গিয়েছিলাম,পরশুরাম বাবুর কাছে৷ দারুণ ভয় পাওয়ালেন স্যার।। পরশুরাম বাবু আপনিই শ্রেষ্ঠ, আপনি “পুলিশ।

 

জামিনের ঘটনায় প্রতিক্রিয়া জানতে সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের তরফ থেকে জিতু কমলকে ফোনে যোগাযোগ করা হলে, তিনি জানান, ”আমার তেমন কিছু বলার নেই। আদালত যেটা ঠিক মনে করেছে সেটাই করেছে। এর থেকে বেশি তো আর কিছু বলতে পারি না। দেখি আমার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলব। ”

ঠিক কী ঘটেছিল নবনীতা ও জিতুর সঙ্গে?

দিন দুপুরে নিজস্ব গাড়িতে ব্যক্তিগত কাজে যাচ্ছিলেন তাঁরা। অভিযোগ, নিমতা মাঝেরহাটি মোড়ে তাঁদের গাড়িকে একটি পণ্যবাহী গাড়ি ধাক্কা মারে। সে সময় জিতুদের গাড়ির চালক সেই গাড়িটিকে আটকানোর চেষ্টা করলে, তাঁকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। এই ঘটনার পর জিতু ও নবনীতা থানায় এসে অভিযোগ জানাতে গেলে বেশ কিছুক্ষণ ধরে থানায় তাদের অপেক্ষা করতে হয় এবং সেই সময়ই পুলিশি হেনস্তার মুখে পড়েন বলে অভিযোগ। ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করে ক্ষোভ উগরে দেন বাংলা টেলিভিশনের তারকা দম্পতি। তাঁকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন নবনীতা।

[আরও পড়ুন: ‘এ কেমন দ্বিচারিতা?’, পুজোর আয়োজন করে তুমুল কটাক্ষের মুখে আমির খান ]

জানা গিয়েছে, ঘটনায় যে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তাঁদের মধ্যে রয়েছে গাড়ির চালক, খালাসি, মালিক ও এই তিনজনের একজন সহকর্মী। চারজনকেই আদালতে তোলা হবে বলে খবর। এদিকে, জিতু কমলের চালকের বিরুদ্ধেও অভব্য আচরণ ও গাড়ি ভাঙচুরের পালটা অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এই দুই অভিযোগই খতিয়ে দেখবে পুলিশ। নিমতা থানার যে পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে জিতু ও নবনীতা অভিযোগ করেছেন তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানান বারাকপুরের সিপি অলোক রাজরিয়া। দোষ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: জিতু-নবনীতার হেনস্তা কাণ্ডে গ্রেপ্তার আরও ২, নিমতা থানার সামনে বিক্ষোভ বিজেপির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে