২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা ভোটের মরশুমে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে প্রার্থী হওয়ার সময়ই প্রশ্ন উঠেছিল টলিউডের দুই নায়িকাকে নিয়ে। বিপুল ভোটে জিতলেও সেই প্রশ্নের মুখে বার বার পড়তে হয়েছে মিমি-নুসরতকে। পোশাক বিতর্ক থেকে গ্লাভস বিতর্ক, বারবার জেরবার হতে হয়েছে দুই অভিনেত্রীকে। ভোটের ফল বেরলেও তারকা সাংসদদের পিছু ছাড়েনি সেই বিতর্ক। এবার সংসদের প্রথম দিন অনুপস্থিত থেকে ফের একবার বিতর্কে জড়ালেন বসিরহাট এবং যাদবপুরের নবনির্বাচিত দুই সাংসদ নুসরত জাহান এবং মিমি চক্রবর্তী

[আরও পড়ুন: সংকটকালে পুত্রের জন্ম, চিকিৎসকদের উপর ‘আস্থা’ থেকেই নামকরণ ]

সোমবার অর্থাৎ ১৭ জুন রাজ্যের বাকি সাংসদরা শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকলেও সংসদের প্রথম দিনেই গরহাজির ছিলেন মিমি এবং নুসরত। এদিন সাংসদ হিসেবে বাকিরা শপথ নিলেও এই দুই নবনির্বাচিত তৃণমূল সাংসদের পক্ষে তা সম্ভব হয়নি। পিছিয়ে দিলেন এক সপ্তাহ। কারণ দু’জনেই আপাতত শহর তথা দেশের বাইরে। হবু বর নিখিল জৈন এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধব নিয়ে নুসরত জাহান আপাতত রয়েছেন তুরস্কের বোদরুমে। কারণ, রাত পোহালেই সাত পাকে বাঁধা পড়বেন অভিনেত্রী। অন্যদিকে, মিমিও প্রিয় বান্ধবী তথা সতীর্থের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পাড়ি দিয়েছেন সেই মুলুকে। অতএব, বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ করে আসতে আসতে আরও দিন দুই-তিনেক। তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ২৫ জুন শপথ নেবেন দুই তারকা সাংসদ।

[আরও পড়ুন: স্থানীয় না বহিরাগত? করিমপুর বিধানসভার উপনির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী নিয়ে জল্পনা]

উল্লেখ্য, বিপুল ভোটে দুই তারকা জয়ী হওয়ার পরও প্রশ্ন উঠেছিল, নিয়মিত সংসদের অধিবেশনে হাজিরা দিতে পারবেন তো অভিনেত্রীদ্বয়? এই প্রশ্ন ওঠা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কারণ, অতীতে তারকা সাংসদরা তেমনই নজির তৈরি করেছেন। রুপোলি জগৎ থেকে রাজনীতিতে আসা সাংসদদের সেভাবে সংসদীয় দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায়নি। বাংলার বাইরের রাজ্যগুলির তারকা সাংসদদের ক্ষেত্রেও এর অন্যথা হয়নি। পশ্চিমবঙ্গের অন্যান্য সাংসদদের ক্ষেত্রে তো বটেই, তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে জয়ী অভিনেতা দেব, মুনমুন সেন, সন্ধ্যা রায়রাও তেমনই নজির গড়েছেন। গত পাঁচ বছরে দেব সংসদে এসেছিলেন মাত্র ২৯ দিন। আর ১৭ জুন সংসদের প্রথম দিনের প্রথম অধিবেশনেই অনুপস্থিত থাকলেন নুসরত এবং মিমি। নিয়মানুযায়ী, সব সাংসদকেই শপথ নিতে হয়। রাজ্যের বাকি সাংসদরা সেইমতোই শপথ নিয়েছেন। বিজেপির ১৮ জন সাংসদ তো বটেই তৃণমূল কংগ্রেসের বাকি ২০ জন সাংসদও শপথ নিয়েছেন সংসদে। বাদ গিয়েছেন শুধু মিমি ও নুসরত। একজন ব্যস্ত বিয়ে নিয়ে। আরেকজন ছবির কাজে ব্যস্ত থাকাকে কারণ হিসেবে দর্শিয়েছেন। তবে, কোন ছবির কাজে এবং কোথায় গিয়েছেন, তা জানাননি মিমি চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং