BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মন্দির-মসজিদ দুটোই বাছলেন নুসরত, মমতার পর সর্বধর্ম সমন্বয়ের বার্তা সাংসদের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 5, 2020 6:45 pm|    Updated: August 5, 2020 6:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাঁচশ বছরের বিতর্ক, দীর্ঘ আইনি টানাপোড়েনের অবসান ঘটিয়ে বুধবার অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গোটা দেশ যখন রামনগরী অযোধ্যার জয় শ্রী রাম মন্ত্রে মুগ্ধ তখন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Bannerjee) মতোই সর্বধর্ম সমন্বয়ের বার্তা দিলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)।

বুধবার সকালে মোদি যখন হনুমানগড়িতে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানের পৌরহিত্য করছেন, তখনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করেছিলেন, “হিন্দু, মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান, একে অপরের ভাই-ভাই! আমার ভারত মহান, মহান আমার হিন্দুস্তান! আমাদের দেশ তার চিরায়ত বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্যের ঐতিহ্যকে বহন করে চলেছে, এবং আমাদের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত ঐক্যবদ্ধভাবে এই ঐতিহ্যকে সংরক্ষিত রাখব।”

তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে টুইটের কোথাও রাম মন্দিরের প্রসঙ্গ উল্লেখ করেননি মুখ্যমন্ত্রী। আর ‘প্রিয় দিদি’র সেই পন্থাই অবলম্বন করলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। খুব বিচক্ষণতার সঙ্গেই এক নেটজনতার টুইট শেয়ার করে তিনি বললেন, “আমি মন্দির এবং মসজিদ দুটোই বাছলাম।” “কেন মন্দির কিংবা মসজিদ এই দুটোর মধ্যে থেকে যে কোনও একটাকে বেছে নিতে হবে? আমি তো দুটোর মধ্যেই সৌন্দর্য দেখি। কেন সবকিছুই রাজনীতির দাড়িপাল্লায় মাপতে হবে? আমরা কি নিজেদের মধ্যেকার মানবতাবোধ বিসর্জন দিয়েছি?” এরকমই এক মন্তব্য করেছিলেন এক নেটজনতা। আর সেই টুইটের প্রেক্ষিতেই সাংসদ অভিনেত্রী স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে তিনি মন্দির-মসজিদ দুটোকেই বেছে নিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: দাদু-দিদার উপর অকথ্য অত্যাচার মামাবাড়িতে, ফেসবুক পোস্টে অভিযোগ অভিনেত্রী মিশমির]

উল্লেখ্য, হিন্দুঘরের বউমা হওয়ার পর কম কটু মন্তব্যের শিকার হতে হয়নি নুসরতকে। শাঁখা-পলা, সিঁদুর পরে সংসদীয় ভবনের অধিবেশনে মন্তব্য রাখার জেরেই হোক কিংবা রথাযাত্রা, দুর্গাপুজোর অনুষ্ঠানে স্বামী নিখিলকে তাঁর উপস্থিতির কারণেই হোক, এযাবৎকাল একাধিকবার ধর্ম ধজ্জাধারীদের কটূক্তির শিকার হতে হয়েছে সাংসদ-অভিনেত্রীকে। মৌলবীদের ফতোয়ার মুখে পড়েও দৃঢ়কণ্ঠে বলেছেন, “আমার ভারত ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। এখানে সব ধর্মের মানুষের বাস। সেই দেশের মেয়ে হয়ে জাত-পাত, শ্রেণীবৈষম্য আমি মানি না! ধর্ম যার যার তবে উৎসব সবার।” আর আজ অযোধ্যায় ভূমিপুজোর আগে আরও একবার সেই ভাবনাই অনুরাগীদের উদ্দেশে ছড়িয়ে দিয়েছেন নুসরত।

যেখানে রাম মন্দির ইস্যুকে সামনে রেখে বঙ্গ বিজেপি রাষ্ট্রবাদের কথা বলছে, তখন কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী কিংবা তৃণমূলের সাংসদ নুসরত বৈচিত্রের মধ্যেও ঐক্যের কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন নিজেদের টুইট বার্তায়।

[আরও পড়ুন: ‘ঐতিহাসিক! অযোধ্যায় ভূমিপুজোর মধ্য দিয়েই দেশে রামরাজ্যের সূচনা হল’, মন্তব্য কঙ্গনার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement