BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘আংরেজি মিডিয়াম’ দেখে অভিভূত, নিজে হাতে রাধিকা মদনকে চিঠি লিখে পাঠালেন অমিতাভ

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: March 15, 2020 4:29 pm|    Updated: March 15, 2020 4:30 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘আংরেজি মিডিয়াম’ ছবিতে তাঁর অভিনয় মন কেড়েছে। আর তাই নিজে হাতে প্রশংসাপত্র লিখে রাধিকা মদনকে পাঠালেন স্বয়ং অমিতাভ বচ্চন। সঙ্গে পুষ্পস্তবকও। বলিউড তারকাদের অনেকেই সিনিয়র বচ্চনের পাঠানো এই প্রশংসাপত্র এবং পুষ্পস্তবক পাওয়ার জন্য মুখিয়ে থাকেন। অতীতেও অনেককে পাঠিয়েছেন বিগ বি। আর সেই সৌভাগ্য জুটল এবার রাধিকার কপালে। খোদ অমিতাভ বচ্চনের কাছ থেকে এমন অভিনন্দন বার্তা পেয়ে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত অভিনেত্রী রাধিকা মদন।

কেরিয়ারের দ্বিতীয়তম ছবিতেই বলিউড ‘শাহেনশা’ অমিতাভ বচ্চনের (Amitabh Bachchan) মন জয় করাটা মুখের কথা নয়! বিগত কয়েক দশক ধরে ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে তাঁর অভিনয় এবং অবদানের জন্য তিনি যে বেশ অভিজ্ঞ, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন নেই। একেবারে জহুরীর চোখ। দক্ষ অভিনেতা চিনতে ভুল হয় না তাঁর। আর তাই যখনই নতুন সিনেমা মুক্তি পায়, তাতে কারও অভিনয় ভাল লাগলে নিজে তাঁর বাড়িতে পুষ্পস্তবক পাঠান অমিতাভ। সঙ্গে থাকে বিগ বি’র নিজের হাতে লেখা একটি ছোট্ট নোট। বিশেষ করে ইন্ডাস্ট্রিতে নবাগতদের আরও উৎসাহ দেওয়ার জন্য সিনিয়র বচ্চন এমন অভিনব উদ্যোগ নিয়ে থাকেন। এটি অবশ্য অমিতাভের রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে একপ্রকার। এবার প্রশংসিত হলেন অভিনেত্রী রাধিকা মদন।

[আরও পড়ুন: ‘গুলদস্তা’র পোস্টারে তিন কন্যা, পর্দায় লড়াকু মহিলাদের চরিত্রে স্বস্তিকা-অর্পিতা-দেবযানী ]

শুরুটা করেছিলেন একতা কাপুরের হাত ধরে। ‘মেরি আশিকি তুম সে হি’ ধারাবাহিক দিয়েই অভিনয় জীবনের শিঁকে ছিড়েছিল রাধিকার। হিন্দি টেলিদর্শকদের অন্দরমহলে তখন রাধিকা মদন বেশ পরিচিত নাম। এরপর আরেক রিয়েলিটি শো ‘ঝলক দিখলা যা’তে অংশ নেন। তবে কেরিয়ারের মোড় ঘোরে বিশাল ভরদ্বাজের হাত ধরে। বলিউড ডেবিউয়ের জন্য ডাক পান বিশালের কাছ থেকে। ‘পটাখা’, প্রথম ছবিতেই বাজিমাত। গ্রাম্য সহজ-সরল, মারকুটে মেয়ের চরিত্রে মন জয় করে নিয়েছিলেন প্রযোজক-পরিচালকদের। দ্বিতীয় ছবিতে ডাকসাইটে বলিউড অভিনেতা ইরফান খানের মেয়ের চরিত্রে। আর সেই ছবিতেই বিগ বি’র কাছ থেকে ভূয়সী প্রশংসা পেলেন রাধিকা মদন (Radhika Madan)।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

I dont know what to say or write..I’m speechless and so so so overwhelmed! @amitabhbachchan sir its an honor to receive this . I always used to imagine my door bell ringing after my film’s release and a person standing outside saying “Amitabh Bacchan sir ne aapke liye phool aur ek note bheja hai” and me fainting right after that. Thankfully I didn’t faint when I actually received it..I just stood there for a few seconds soaking it all in, teary eyed,in gratitude. Thank you for making my dream come true Sir . It has motivated me to work even harder and entertain my audience with even more honest performances. #AngreziMedium😇 14.3.2020

A post shared by Radhika Madan (@radhikamadan) on

[আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে ছেদ পড়ল রেওয়াজে, ‘জলসা’র বাইরে ভক্তদের না আসার আরজি বিগ বি’র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement