BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘ঘরের ছেলের অবসাদের খোঁজ রাখেন?’ ‘সড়ক টু’ বিতর্কে যিশুর সমর্থনে মন্তব্য রাহুলের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 16, 2020 6:07 pm|    Updated: August 16, 2020 6:07 pm

Rahul Banerjee stands beside Jisshu Sengupta in Sadak 2 controversy

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্ল্যামারের পথ অতি পিচ্ছিল। সাফল্য-ব্যর্থতা শিল্পীর জীবনের অঙ্গ। প্রতিনিয়ত কাঁটাছেড়ার মধ্যে তাঁদের চলতে হয়। এই চলার পথে অবসাদের চোরাবালি কখন চারপাশের আলো অন্ধকারে পরিণত করে তা কেউ বলতে পারে না। জানা তখন যায়, যখন সুশান্ত সিং রাজপুতের (Shushant Singh Rajput) মতো কোনও ঘটনা সজোরে স্বপ্নের তাসের ঘরে ধাক্কা মারে। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই কাঠগড়ায় মহেশ ভাট (Mahesh Bhatt), আলিয়া ভাট (Alia Bhatt), পূজা ভাট (Pooja Bhatt)। নেপোটিজম, ফেভারিটিজমের পাশাপাশি রিয়া চক্রবর্তীর (Rhea Chakraborty) সঙ্গে মহেশ ভাটের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। এমত অবস্থাতেই প্রকাশ্যে এসেছে ‘সড়ক টু’-এর ট্রেলার। ২৮ আগস্ট ডিজনি হটস্টার মাল্টিপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি। ট্রেলার প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিকে বয়কটের হিড়িক পড়েছে। এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত ৫ কোটির বেশি মানুষ ট্রেলারটি দেখেছেন। কিন্তু ১ কোটি মানুষ তা অপছন্দের তালিকায় ফেলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বিরূপ প্রতিক্রিয়ার ঝড় বয়ে গিয়েছে। এতেই চূড়ান্ত আশাহত যিশু সেনগুপ্ত (Jisshu Sengupta)। কারণ ছবিতে সঞ্জয়, আলিয়া, আদিত্যদের পাশাপাশি তিনিও অভিনয় করেছেন।

[আরও পড়ুন: মৃত্যুর পর কদর? মরণোত্তর জাতীয় পুরস্কার পেতে পারেন সুশান্ত সিং রাজপুত]

প্রতিকূল পরিস্থিতিতে বন্ধু যিশুর পাশে দাঁড়িয়েছেন রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায় (Rahul Banerjee)। ফেসবুকে যিশুর ছবি পোস্ট করে রাহুল লিখেছেন,

‘‘ব্যর্থতার চোরাগলি থেকে সাফল্যের রাজপথে এক বাঙালির যাত্রা। যিশু সেনগুপ্ত, নামটা জানেন নিশ্চয়ই! জানবেন না কেন? সেই ‘মহাপ্রভু’ থেকে দেখে আসছেন, কম দিন তো নয়। এই নেপোটিজম এর পৃথিবীতে স্বীকার করে রাখা ভাল ভদ্রলোকের বাবা উজ্জ্বল সেনগুপ্ত মঞ্চের কিংবদন্তি হলেও ষ্টুডিও পাড়ায় নক্ষত্র ছিলেন না কোনোমতেই। কাজেই রাস্তাটা এত সহজ ছিল না। আপনাদের সামনে কী আর বলব? আপনারা তো সবটাই দেখেছেন। ‘মহাপ্রভু’র উত্তুঙ্গ সাফল্যও ফিল্মের দরজা খোলেনি। বড় জোর জুটেছে ইটিভিতে ‘শুধু তোমারই জন্য’, টেলিফিল্মের এর পাসপোর্ট। বড় পর্দায় জুটেছে নায়কের ভাই, বন্ধুর চরিত্র। আর দ্বিতীয়, তৃতীয় শ্রেণির কমার্শিয়াল ছবি, যা বাকিরা করতে রাজি হত না। তারপর পারফরম্যান্সের সততা দেখেই হোক বা মুখের সারল্য দেখেই হোক গৌতম ঘোষের ‘আবার অরণ্য’-র পথ বেয়ে এলেন ঋতুদা। শুরু হল এক নতুন পথ চলা। যাই হোক চর্বিতচর্বন কেনই বা করছি? অভিনেতার সাফল্য বলুন বা ব্যর্থতা বলুন সবটাই আপনাদের সামনে খোলা খাতার মতো। আপনারা সবটাই জানেন, তাহলে এত কথা কেন? আসলে কী জানেন তো? আড়াই দশকের লড়াই করে মুম্বইতে যে জায়গাটা করেছেন বা করতে চাইছেন তার একটা গুরুত্বপূর্ণ মোড় হচ্ছে ‘সড়ক ২’। যিশু সেনগুপ্তের আড়াই দশকের স্ট্রাগল আপনাদের বয়কটের নদীতে ভেসে যাচ্ছে না তো? না, যিশুদা কোনও খারাপ স্টেপ নেবে এই ভয় নেই। কারণ যিশুদার পিছনে একটা সলিড ফ্যামিলি সাপোর্ট আছে। কিন্তু আড়াই দশক পর এই ব্যবহার নিজের ভাষার লোকেদের কাছে প্রাপ্য কি? আপনিও তো বাঙালি, আপনিও তো দর্শক। ভেবে দেখুন না!’’

 

উল্লেখ্য, নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে ‘সড়ক টু’-র ট্রেলার শেয়ার করেছিলেন যিশু সেনগুপ্ত। কিন্তু তাঁর ২ লক্ষ ২৮ হাজার ৭৯৫ জন ফলোয়ার্সের মধ্যে চার দিনে ৩৬ হাজার ৯৭৬ জন এখনও পর্যন্ত তা দেখেছেন। রাহুলের পোস্টটি নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে শেয়ার করে তাঁকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন যিশুর স্ত্রী নীলাঞ্জনা।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=3151353074979495&id=100003144995238 Sharing @rahularunodaybanerjee ‘s FB post. Grateful 🙏 ব্যর্থতার চোরাগলি থেকে সাফল্যের রাজপথে এক বাঙালির যাত্রা: যীশু সেনগুপ্ত;নামটা জানেন নিশ্চয়ই!!জানবেন না ক্যানো?সেই মহাপ্রভু থেকে দেখে আসছেন,কম দিন তো নয়….এই নেপোটিজম এর পৃথিবীতে স্বীকার করে রাখা ভালো ভদ্রলোকের বাবা উজ্জ্বল সেনগুপ্ত মঞ্চের কিংবদন্তি হলেও ষ্টুডিও পাড়ায় নক্ষত্র ছিলেন না কোনোমতেই …কাজেই রাস্তাটা এতো সহজ ছিল না…আপনাদের সামনে কি আর বলবো?আপনারা তো সবটাই দেখেছেন…মহাপ্রভুর উত্তুঙ্গ সাফল্য ও ফিল্ম এর দরজা খোলেনি…বড়োজোর জুটেছে ইটিভি তে শুধু তোমারই জন্য,telefilm এর পাসপোর্ট…বড়ো পর্দায় জুটেছে নায়কের ভাই,বন্ধুর চরিত্র …আর দ্বিতীয় ,তৃতীয় শ্রেণীর কমার্শিয়াল ছবি,যা বাকিরা করতে রাজি হতো না,তারপর performance এর সততা দেখেই হোক বা মুখের সারল্য দেখেই হোক গৌতম ঘোষ এর আবার অরণ্যের পথ বেয়ে এলেন ঋতুদা ….শুরু হলো এক নতুন পথ চলা…যাই হোক চর্বিতচর্বন ক্যানোই বা করছি …অভিনেতার সাফল্য বলুন বা ব্যর্থতা বলুন সবটাই আপনাদের সামনে খোলা খাতার মতো…আপনারা সবটাই জানেন,তাহলে এতো কথা ক্যানো?আসলে কি জানেন তো?আড়াই দশকের লড়াই করে মুম্বাই তে যে জায়গাটা করেছেন বা করতে চাইছেন তার একটা গুরুত্বপূর্ণ মোড় হচ্ছে sadak 2…আপনারা mahesh bhatt এবং বাকিদের কারণে ছবিটা যখন ছবিটা বয়কট করবেন ভাবছেন,তখন আপনার ঘরের ছেলেটা কতটা অবসাদে চলে যাচ্ছে তার খবর রাখছেন তো?তার আড়াই দশকের struggle আপনাদের বয়কট এর নদীতে ভেসে যাচ্ছে না তো?না,যিশুদা কোনো খারাপ স্টেপ নেবে এই ভয় নেই…কারণ যিশুদার পিছনে একটা solid family support আছে …কিন্তু আড়াই দশক পর এই ব্যবহার নিজের ভাষার লোকেদের কাছে প্রাপ্য কি?আপনিও তো বাঙালি,আপনিও তো দর্শক …ভেবে দেখুন না

A post shared by Nilanjanaa (@ninichinismamma) on

[আরও পড়ুন: দুষ্কৃতীদের তালিকায় ক্ষুদিরামের ছবি! বিপ্লবীকে অপমানে প্রবল রোষে ‘অভয় ২’ ওয়েব সিরিজ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে