৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অক্ষয়ের পারিবারিক বিষয় নিয়ে প্রশ্ন মোদির! মুখ খুললেন টুইঙ্কল খান্না

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 27, 2019 2:00 pm|    Updated: April 27, 2019 2:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইঙ্কল খান্না বেশ সক্রিয়। যে কোনও গরম ইস্যুতে টুইঙ্কলকে বেশ সরব হতে দেখা যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সরকারের সমালোচনা করতেও পিছপা হন না তিনি। বছর দুয়েক আগে স্যানিটারি ন্যাপকিনের উপর অতিরিক্ত কর চাপানোর জন্য মোদি সরকারের কঠোর সমালোচনা করেছিলেন তিনি। মথুরার বিজেপি প্রার্থী হেমা মালিনীকে পাখাযুক্ত ট্রাক্টর চালানোর ছবি ভাইরাল হতেই নজর এড়ায়নি অভিনেত্রী তথা লেখিকা টুইঙ্কল খান্নার। এবার ফের তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজির তাঁর কড়া কথা নিয়ে। তোপে ‘মোদিজি’!

 [আরও পড়ুন:  অটোয় চড়ে গেলেন কোথায় নবাবনন্দিনী? জুহুতে সারাকে দেখে অবাক অনুরাগীরা]

সম্প্রতি, অক্ষয় কুমার সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। রাজনৈতিক ময়দান থেকে সরে গিয়ে সেই সাক্ষাৎকারে উঠে এসেছিল মোদির জীবনের অনেক অজানা কথা। দিদি-মোদি-মিষ্টি-কুর্তা-পাজামা থেকে ওবামা… তবে, এই লোকসভা ভোটের মাঝেই সেই সাক্ষাৎকারের কথোপকথন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া উত্তালও কম হয়নি। প্রসঙ্গত, সেই সাক্ষাৎকারেই মোদি অক্ষয়-পত্নী টুইঙ্কল সম্পর্কে মন্তব্য করেন। সেদিন মোদি মজা করে অক্ষয়কে বলেছিলেন, “আপনার স্ত্রী কিন্তু আমার উপর বেশ রেগে যান। তা ভাল। এরজন্য আপনার পারিবারিক জীবন নিশ্চয় শান্তিপূর্ণ! কারণ, টুইঙ্কল তো তাঁর সমস্ত রাগ আমার উপরই উগরে দেন টুইটারে!” পাশাপাশি, প্রধানমন্ত্রী এও জানান যে, তিনি নিয়মিত সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখেন, রাজনীতির বাইরেও কী কী হচ্ছে সেদিকটা নজর রাখার জন্য। স্বাভাবিকভাবেই অক্ষয় এবং টুইঙ্কলের টুইটও পড়েন তিনি। মোদির এহেন বক্তব্যেই অভিনেত্রী তথা লেখিকা টুইঙ্কেল একটি ফলোআপ টুইট নিয়ে হাজির হন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায়। তিনি হালকা চালে মোদিকে বিঁধে বলেন, “আমি বরং এই বিষয়টিকে খুব ইতিবাচকভাবেই নিচ্ছি। তার মানে তিনি শুধু আমাকে অনুসরণই করেন না, আমার লেখাও পড়েন।”

 [আরও পড়ুনবিয়েবাড়িতে প্রেমিককে চুম্বনে মগ্ন অঙ্কিতা লোখান্ডে, ভাইরাল ভিডিও]

টুইঙ্কলের এই টুইটের পরই জল্পনা উঠেছিল তিনি নাকি রাজনীতির ময়দানে নামছেন। মূলত, গেরুয়া শিবিরে যোগ দেওয়ার কথা শোনা গিয়েছিল। কিন্তু সব জল্পনা উড়িয়ে দিয়ে শুক্রবার অভিনেত্রী-লেখিকা টুইট করেন, “একটু বেশিও না, একটু কমও না। সবসময়ে সব প্রতিক্রিয়ার অনুমোদনের দরকার হয় না। এই মূহূর্তে আমি প্রচুর পরিমাণে ভডকা শটস্ নিচ্ছি। যাতে, পরের দিন অবধি হ্যাংওভার থাকে।” অতএব কোনও রাজনৈতিক রংই যে তিনি সমর্থন করছেন না, তা পরিষ্কার করে দিয়েছেন মিসেস ফানিবোনস ওরফে টুইঙ্কল খান্না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement