BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শনিবারও ম্যারাথন জেরা, কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় CBI দপ্তর থেকে বেরলেন রিয়া

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 29, 2020 10:16 pm|    Updated: August 29, 2020 10:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৭ ঘণ্টা জেরার পর অবশেষে সিবিআইয়ের দপ্তর থেকে বেরলেন রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। শুক্রবার ১০ ঘণ্টা ম্যারাথন জেরার পর শনিবারও কয়েক ঘণ্টা ধরে অভিনেত্রীর ম্যারাথন জেরা চলে। সূত্রের খবর, এদিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকদের কড়া প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে অভিনেত্রীকে। ৮টা ৪৫ মিনিট নাগাদ কড়া পুলিশি নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সান্তাক্রুজের ডিআরডিও গেস্ট হাউজ থেকে ভাই সৌহিক চক্রবর্তীর হাত ধরে বেরতে দেখা যায় রিয়াকে।

শুক্রবারের জেরায় সম্তুষ্ট না হওয়ায় আজ ফের সিবিআই দপ্তরে তলব করা হয়েছিল রিয়া চক্রবর্তীকে। এদিন সকালেই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার অফিসে আসার নির্দেশ দেওয়া হয় সুশান্ত ইস্যুতে মূল অভিযুক্ত রিয়াকে। কিন্তু অভিনেত্রীর বাড়ির সামনে সংবাদমাধ্যমের ভিড় এবং উৎকণ্ঠাপূর্ণ, কৌতূহলী ব্যক্তিদের জমায়েত থাকায় বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারেননি তিনি! অবশেষে সিবিআইয়ের দপ্তরে পৌঁছনোর জন্য তাঁকে মুম্বই পুলিশের দ্বারস্থ হতে হয়। বাড়ি থেকে বেরনোর জন্য পুলিশ প্রশাসনের সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন তিনি। তাঁর আবেদনের ভিত্তিতেই শেষমেশ মুম্বই পুলিশ বাড়ি থেকে রিয়া চক্রবর্তীকে (Rhea Chakraborty) এসকোর্ট করে নিয়ে যায় সান্তাক্রুজের ডিআরডিও গেস্ট হাউজে, যেখানে তদন্তের জন্য আশ্রয় নিয়েছেন সিবিআই গোয়েন্দা আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন: গড়িয়ার আবাসনে ফ্ল্যাট রয়েছে রিয়া চক্রবর্তীর পরিবারের! কারা থাকেন সেখানে?]

সূত্রের খবর, এবার থেকে রিয়া এবং তাঁর পরিবারের নিরাপত্তার দায়িত্ব নেবে মুম্বই পুলিশ প্রশাসন। অন্যদিকে, সিবিআই দপ্তরে জেরা চলার মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ছড়ায় যে, অভিনেত্রীকে নাকি চড় কষানো হয়েছে। তবে ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর, এই তথ্য সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং গুজব ছাড়া আর কিছুই নয়।

অন্যদিকে, শনিবারই সুশান্ত সিং রাজপুতকে নিয়ে আরেক নয়া হিন্দি ফিল্মের খবর প্রকাশ্যে আসে। ‘শশাঙ্ক’ নামে ছবিকে ইতিমধ্যেই বয়কট করার দাবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা কীর্তি সিং।

[আরও পড়ুন: ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’ ছবির দৃশ্য ছাঁটার প্রয়োজন নেই! মামলা খারিজ দিল্লি হাই কোর্টে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement