২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক সময়কার হিট জুটি ঋষি কাপুর এবং জুহি চাওলা। প্রায় এক দশক পর ফের বড়পর্দায় দেখা যাবে এই জুটিকে। ক্যানসার মুক্ত হয়ে অতি শীঘ্রই ফিরছেন দেশে। আর দেশে ফিরেই ছবির কাজ শুরু করবেন ঋষি।

[আরও পড়ুন:ক্যানসার মুক্ত ঋষি, মার্কিন মুলুক থেকে শীঘ্রই দেশে ফিরছেন অভিনেতা ]

গত বছরের মাঝামাঝি থেকেই শারীরিক অসুস্থতার কারণে খবরের শিরোনামে রয়েছেন ঋষি কাপুর। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস। খবর এল, সস্ত্রীক ঋষি মার্কিন মুলুকের উদ্দেশে রওনা হচ্ছেন। কারণ, তাঁর শরীরে বাসা বেঁধেছে মারণ কর্কটরোগ। নিউইয়র্ক সিটির স্লোয়ান কেটারিং ক্যানসার সেন্টারে ভর্তি হলেন অভিনেতা। সূত্রের খবর, গত বছর ঠিক সেই সময়েই ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন অভিনেতা। পরিচালক হিতেশ ভাটিয়ার পরিচালনায় একটি কমেডি ছবির শুটিং শুরু করেছিলেন। কিন্তু অসুস্থ হয়ে পড়ায় চিকিৎসার জন্য নিউ ইয়র্কে চলে যাওয়ায় সেই কাজে ছেদ পড়ে যায়। ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, এবার সেই ছবির কাজই ফের শুরু করতে পারেন তিনি। এই ছবির গল্প এবং চিত্রনাট্য যৌথভাবে লিখেছেন হিতেশ এবং সুপ্রতীক সেন। কিন্তু ঋষির অসুস্থতা এবং আর কে স্টুডিও বিক্রি হয়ে যাওয়ার ফলে ওই ছবির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। গত বছরই ওই টিমের সঙ্গে যোগ দেওয়ার খবর জানিয়ে একটি ছবিও শেয়ার করেন জুহি।

[আরও পড়ুন:  ‘দাদা, আমি তোমাকে ভালবাসি’, সৌরভকে প্রেম নিবেদন রণবীরের!]

প্রসঙ্গত, এর আগে ‘বোল রাধা বোল’ (১৯৯২), ‘ঘর কি ইজ্জত’ (১৯৯৪), ‘সাজন কা ঘর’ (১৯৯৪)-এর মতো বেশ কিছু ছবিতে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন ঋষি এবং জুহি। শেষবার ২০০৯ সালে পরিচালক জোয়া আখতারের ‘লাক বাই চান্স’-এ তাঁদের অভিনয় দেখেছেন দর্শক। ১০ বছর পর ফের সেই জুটিকেই পর্দায় দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন দর্শক। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ঋষি বলেছিলেন, “আমি চেষ্টা করছি আগস্টের শেষেই দেশে ফেরার। আমার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে এবং এখন সুস্থ আছি। আশা করছি, ফেরার সময়ে ১০০ শতাংশ সুস্থ হয়ে যাব। এবার দেখার ডাক্তাররা কী বলেন।” তবে পরে, চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানিয়েছেন দেশে ফেরার খবর। নিউইয়র্কে ঋষি এবং নীতুর সঙ্গে দেখা করেছেন বলিউডের একাধিক তারকা। এমনকী, রণবীরের প্রাক্তন প্রেমিকা দীপিকা পাড়ুকোনও।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং