BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

কোভিড চিকিৎসায় লাগামছাড়া বিল বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে, সরব অভিনেত্রী ঋতাভরী

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 15, 2020 8:07 pm|    Updated: July 15, 2020 8:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা চিকিৎসার জন্য বেসরকারি হাসপাতালগুলি আকাশ ছোঁয়া বিল ফেঁদে বসছে। যা মেটাতে গিয়ে প্রায় নাজেহাল হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের। উপরন্তু রোগী ‘রেফার’ করার চক্রে পড়ে হয়রানির শিকারও হতে হচ্ছে! দিন কয়েক আগেই সরকারি হাসপাতালের রেফার কাণ্ডের জন্য প্রাণ গিয়েছে দুই রোগীর। যে ঘটনায় রীতিমতো হতবাক রাজ্যবাসী। বুধবার যাবতীয় সেসমস্ত বিষয় নিয়েই মুখ খুললেন অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী (Ritabhari Chakborty)।

ফেসবুকে একটি পোস্ট করে নিজস্ব ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন অভিনেত্রী। তাঁর মন্তব্য, “কোভিড চিকিৎসার জন্য বেসরকারী হাসপাতালগুলো লক্ষ লক্ষ টাকার প্যাকেজ রাখছে। যাকে রীতিমতো ‘ডাকাতি’ই বলা যায়। অথচ, সরকারী ব্যবস্থাপনায় একই চিকিৎসার খরচ অনেক কম। কিন্তু অপরদিকে, সাধারণ মানুষ হয়রান হচ্ছেন সরকারি হাসপাতালের রেফারের গোলকধাঁধায়! এই পরিস্থিতিতেই আমাদের কিছু দাবি রয়েছে।”

[আরও পড়ুন: আচমকা আবিরের ফোন, প্রিয় অভিনেতার শুভেচ্ছা পেয়ে খুশিতে ডগমগ মাধ্যমিকে তৃতীয় দেবস্মিতা]

কী সেসব দাবি? নিজেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। “প্রথমত, সমস্ত হাসপাতালের কোভিড চিকিৎসা সরকারি এক্তিয়ারে নিয়ে আসা হোক। দ্বিতীয়ত, কোভিড হাসপাতালগুলি ইন্টারলিংক রাখুক, যাতে কোন হাসপাতালে ক’টা বেড পাওয়া যাচ্ছে, প্রত্যেকের কাছে খবর থাকে। তৃতীয়ত, কোনও রোগীকেই ফেরানো যাবে না। প্রত্যেক নাগরিকেরই স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার দায় সরকারকে নিতে হবে। এটা আমরা দায়িত্বশীল নাগরিকরা এবং সরকার, উভয়েই ভুলতে বসেছি। চতুর্থত, এই কঠিন সময় আমাদের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে যে, আমাদের আরও অনেক ডাক্তার এবং স্বাস্থ্যকর্মী দরকার। অন্তত রোগী পিছু ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীর অনুপাত বজায় থাকুক। সেদিকে লক্ষ্য রেখেই সরকারি উদ্যোগে আরও মেডিকেল কলেজ ও নার্সিং ট্রেনিং কলেজ গড়ার পরিকল্পনা চাই।”

নিজের পোস্টে এই চতুর্থ দফার দাবি পেশ করার পাশাপাশি জনমত গড়ে তুলতেও অনুরাগীদের আহ্বান জানিয়েছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী।

[আরও পড়ুন: সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার নিচ্ছে CBI! চিঠি গেল অমিত শাহর দপ্তর থেকে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement