৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বক্স অফিস কাঁপাচ্ছে ‘গোত্র’, সাফল্যের কাহিনি শোনালেন কলাকুশলীরা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: September 17, 2019 7:57 pm|    Updated: September 17, 2019 7:58 pm

An Images

সন্দীপ্তা ভঞ্জ: টানা ২৫ দিন সাফল্যের সঙ্গে বক্স অফিসে রাজত্ব করেছে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ও নন্দিতা রায়ের ছবি ‘গোত্র’। সমালোচক থেকে দর্শক, এতদিনে সবারই প্রশংসা কুড়িয়েছে ছবিটি। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে ‘গোত্র’র গল্প সবদিক থেকে প্রাসঙ্গিক বলে মন্তব্য করেছেন ছবির কলাকুশলীরাও। তাই ছবির সাফল্যের দিন মূলত ছবির সঙ্গে যুক্ত থাকার সৌভাগ্যের কথা জানালেন তাঁরা।

‘গোত্র’ ছবির মুক্তিদেবী অর্থাৎ অনসূয়া মজুমদার জানালেন শিবপ্রসাদ-নন্দিতার ছবিতে একটি সামাজিক বার্তা থাকে সবসময়। মাসখানেক আগেই মুক্তি পেয়েছিল ‘কণ্ঠ’। সেখানেও গল্পের আড়ালে গূঢ় বার্তা দিয়েছিলেন পরিচালকদ্বয়। এই ছবিটিও ব্যতিক্রম নয়। মানবতা ও সমাজের কথা প্রকট হয়ে উঠেছে ‘গোত্র’ ছবিতে। ছবির তারেক আলি বললেন, এতদিন ছবিটিতে সাদরে অভ্যর্থনা জানিয়েছে দর্শককুল। তাঁর স্থির বিশ্বাস, আগামী দিনেও সাফল্যের সঙ্গে পথ হাঁটবে ‘গোত্র’। ছবিটি ৫০ দিন অতিক্রান্ত করে সেঞ্চুরি করার পথে এগোবে বলেও জানান তারেক, থুড়ি, নাইজেল আকারা। একই কথা প্রতিধ্বনিত হল অভিনেতা সাহেব চট্টোপাধ্যায়ের গলাতেও। ছবিতে তিনি মুক্তিদেবীর ছেলে অনির্বাণের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। কথা প্রসঙ্গে তিনি বললেন, ‘গোত্র’র সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরে তিনি গর্বিত।

[ আরও পড়ুন: নাসার মহাকাশচারীকে ফোন করে ল্যান্ডার বিক্রমের খোঁজ নিলেন ব্র্যাড পিট ]

এদিন ছবির ২৫ দিনের সাফল্য উদযাপন করতে উপস্থিত হয়েছিলেন পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়, দেবলীনা কুমার, ওম, জয়া আহসান, কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সুরজিৎ-সহ অনেকে। ইতিমধ্যেই দিল্লি, মুম্বই, পুনে, হায়দরাবাদ, বেঙ্গালুরু-সহ দেশের একাধিক শহরে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। সর্বত্রই বক্স অফিস কাঁপাচ্ছে মুক্তিদেবী আর তারেক আলির গল্প। এদিন উপস্থিত কলাকুশলীদের কণ্ঠেও তা শোনা গেল। তাঁরা এও বললেন, হানাহানি, যুদ্ধ, রক্তারক্তি, সাম্প্রদায়িকতার ঝান্ডাধারীদের তাণ্ডবে গোটা বিশ্বে আজ বিপন্ন মানবজাতি। রক্তমাংসের মানুষের কি সত্যিই আলাদা কোনও ‘গোত্র হয়?  শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং নন্দিতা রায়ের ছবিতে উঠে এল সেই কাহিনি।

[ আরও পড়ুন: সেলুলয়েডে ফের মোদির বায়োপিক, পোস্টার প্রকাশ অক্ষয়ের ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement