২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

হিন্দুবিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের শিব সেনা নেতার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: September 4, 2019 3:57 pm|    Updated: September 4, 2019 4:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ওয়েব সিরিজের এখন রমরমা বাজার। দর্শকের কাছে এখন সিনেমা বা ধারাবাহিকের থেকে বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে ওয়েব সিরিজ। আর এই ওয়েব প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় নেটফ্লিক্স। কিন্তু সেই নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধেই উঠল অভিযোগ। শিব সেনার তথ্য ও প্রযুক্তি শাখার এক সদস্য এনিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মুম্বইয়ের এল টি মার্গ থানায় রমেশ সোলাঙ্কি নামে এক শিব সেনার নেতা এই অভিযোগ জানিয়েছেন। ‘সেক্রেড গেমস’, ‘ল্যায়লা’, ‘ঘাউল’-এর মতো ওয়েব সিরিজগুলি নিয়ে তাঁর আপত্তি। এছাড়া স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান হাসান মিনাজের পারফর্ম্যান্সগুলি নিয়েও আপত্তি রয়েছে তাঁর। সোলাঙ্কির অভিযোগ, ভারত ও হিন্দুত্বকে বিশ্বের কাছে ভুলভাবে তুলে ধরছে নেটফ্লিক্স। অভিযোগ পত্রে তিনি লিখেছেন, “নেটফ্লিক্স ইন্ডিয়ার প্রায় সমস্ত ওয়েব সিরিজের উদ্দেশ্যই যেন বিশ্বের দরবারে এই দেশের নিন্দা করা।” তাঁর আরও অভিযোগ, নেটফ্লিক্স তাঁর সিরিজগুলির মাধ্যমে ‘হিন্দুফোবিয়া’ ঢুকিয়ে দিচ্ছে বিশ্ববাসীর মনে।

[ আরও পড়ুন: ‘ভারত নয়, পাকিস্তানই আমার দেশ’, বিস্ফোরক আদনানপুত্র আজান ]

সোলাঙ্কির আবেদন, প্রশাসন যেন বিষয়টির দিকে নজর দেয়। দরকার পড়লে পুলিশকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ারও আবেদন জানিয়েছেন তিনি। এমনকী নেটফ্লিক্সের লাইসেন্স বাতিল করার কথাও বলেছেন। তাঁর মতে, গুটিকয়েক ঘটনা দিয়ে কখনও কোনও ধর্মীয় সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি সম্প্রদায়ের মানুষকে বিচার করা যায় না। ভারত ছাড়াও বিশ্বের অনেক জায়গায় হিন্দুরা রয়েছেন। নেটফ্লিক্সের এই ওয়েব সিরিজ তাঁদেরও অপমান করে বলে দাবি সোলাঙ্কির। তাঁর অভিযোগ পত্রের একটি কপি তিনি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিসকেও পাঠিয়েছেন সোলাঙ্কি।

নেটফ্লিক্সের যে তিনটি সিরিজ নিয়ে অভিযোগ তুলেছেন সোলাঙ্কি, তার মধ্যে দু’টি গোড়া হিন্দুত্বের বিরুদ্ধাচরণ করেছে। ‘ল্যায়লা’-এ দেখানো হয়েছে এক মহিলা ভিন্ন ধর্মে বিয়ে করেছিলেন। তাই একটি বিশেষ ধর্মের গোড়া মৌলবাদীরা তাঁর শুদ্ধিকরণ করে। গোটা দেশ যদি মৌলবাদে মুড়ে যায়, তাহলে কী হতে পারে, তা তুলে ধরেছে ‘ল্যায়লা’। আর ‘সেক্রেড গেমস’-এ দেখানো হয়েছে ধর্মের নামে অনাচার। ধর্ম আর অপরাধ যে পিঠোপিঠি অবস্থান করে, তা তুলে ধরা হয়েছে এই ওয়েব সিরিজে। অভিযোগকারী রমেশ সোলাঙ্কির মতে, এটাই হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করে। হিন্দুত্ব মানেই যে এসব নয়। কিন্তু নেটফ্লিক্স এই সব সিরিজের মধ্যে দিয়ে মানুষের মনে ‘হিন্দুফোবিয়া’ ঢুকিয়ে দিচ্ছে।

[ আরও পড়ুন: রহমানের কাছ থেকে প্লে-ব্যাকের অফার পেলেন রানু, ডুয়েট গাইতে চাইলেন সোনু নিগমও ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement