BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কণিকা কাপুরকে সমর্থন, সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার শিকার সোনম

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 22, 2020 1:01 pm|    Updated: March 22, 2020 1:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিদেশ থেকে ফিরে তথ্য গোপন করে লখনউয় পার্টি দেওয়ার অভিযোগে কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে এফআইআর। গায়িকার এমন কাণ্ডকারখানায় স্তম্ভিত বলিউড। এই পরিস্থিতিতে কণিকাকে সমর্থন করে বলছেন অভিনেত্রী সোনম কাপুর। উলটে ঘটনাটি প্রকাশ্যে আনার জন্য সংবাদমাধ্যমকে দোষারোপ করেছেন তিনি।

টুইটারে সোনম লিখেছেন, কণিকা কাপুর লন্ডন থেকে ৯ মার্চ দেশে ফিরেছেন। তখন সবাই হোলি খেলতে ব্যস্ত। কেউ তখন সেল্‌ফ আইসোলেশনে যাওয়ার কথা ভাবেনি। তাই কণিকা কাপুরকে যারা দোষারোপ করেছে, তাঁদের একহাত নিয়েছেন সোনম। আর তারপরই অভিনেত্রী নিজে সমালোচনার শিকার হয়েছেন। নেটিজেনরা বলছেন, একেই বলে ‘kaPoor’ ডিফেন্স। আর একজন বলেছেন, ‘কয়েকদিনের জন্য চুপ থাকুন। তাতে সবার উপহার হবে।’

[ আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্ক: বিদেশ থেকে ফিরে সেল্‌ফ আইসোলেশনে অনুপম খের-শাবানা আজমি ]

বলিউডের বিখ্যাত গায়িকা কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে হাজির থাকার অভিযোগ উঠেছে। ফলে তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ২৬৯, ২৭০ ও ১৮৮ ধারায় মামলা রুজু করেছে উত্তরপ্রদেশের সরোজিনী নগর থানার পুলিশ। পুলিশের কাছে কণিকা কপুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন লখনউয়ের এক স্বাস্থ্য আধিকারিক। জানা যায়, কণিকা কাপুরের এই অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন বিজেপি নেত্রী বসুন্ধরা রাজে ও তাঁর সাংসদ পুত্র দুষ্মন্ত সিং। তবে সচেতনতার স্বার্থে তাঁরা অবশ্য নিজেদের সেল্‌ফ কোয়ারেন্টাইনে রেখেছেন।

এদিকে লন্ডন থেকে ফিরে আইসোলেশনে চলে গিয়েছেন সোনম কাপুর ও আনন্দ আহুজা। তবে সোনম কিন্তু দেশে ফিরেই ভারত সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করে জানিয়েছেন, ব্রিটেনের তুলনায় করোনা নিয়ে ভারত অনেক বেশি সতর্কতা অবলম্বন করছে। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে বিমানে কিংবা ভারতের মাটিতে পা রাখার পর যেরকম সাবধানতা অবলম্বন করতে তিনি দেখেছেন, সেরকমটা কিন্তু ব্রিটেনে দেখেননি। এমনকী, ব্রিটেনে এহেন পরিস্থিতির পরও সেখানকার সরকারের সেরকম কোনও হেলদোল না দেখেও যে তাঁরা বেশ অবাকই হয়েছেন সেকথাও জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত, মিমিও বুধবার ‘বাজি’র শুটিং বাতিল করে দেশে ফিরে আসার পরই কলকাতা বিমানবন্দরে নেমে জানিয়েছেন, ব্রিটেনে এখনও কেউ সেভাবে মাস্ক পরছেন না! কিন্তু লন্ডন হোক কিংবা দুবাই, ফাঁকা এত কোনও দিন দেখেননি।

[ আরও পড়ুন: ‘মাস্ক, স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন’, করোনা সতর্কতায় যাদবপুরবাসীকে অনুরোধ সাংসদ মিমির ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement