BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘আমার কর্মফলেই এমন মা-বাবা পেয়েছি’, নেপোটিজম বিতর্কে সুশান্ত-ভক্তদের জবাব সোনমের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 22, 2020 5:58 pm|    Updated: June 22, 2020 9:17 pm

Sonam Kapoor talks about nepotism after Sushant Singh Rajput's death

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যা নিয়ে উত্তাল নেটদুনিয়া। বারবার উঠছে স্বজনপোষণের কথা। নেটিজেনদের একটাই বক্তব্য। বলিউডের স্বজনপোষণ নীতির জন্য অকালে ঝরে গেল একটি তাজা প্রাণ। শুধু মেটিজেনরা নয়, বলিউডের অনেকেও এই অভিযোগ তুলেছেন। অনেক স্টারকিড এমন অভিযোগে চুপ। অনেকে নেপোটিজমের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। কিন্তু সোনম কাপুর উলটো পথে হাঁটলেন। নেটিজেনদের স্পষ্ট বললেন, এ জীবনে যে যার কর্মফল পায়। তিনিও পেয়েছেন।

সুশান্তের আত্মহত্যা নিয়ে তদন্ত যত এগিয়েছে নেপোটিজমের চর্চা তত চলেছে নেটদুনিয়ায়। প্রতিটি স্টারকিডের উপর ধেয়ে এসেছে ব্যঙ্গোক্তি। সলমন খান, করিনা কাপুর, আলিয়া ভাট, শ্রদ্ধা কাপুর, সোনাক্ষী সিনহা.. বাদ যাননি কেউই। সম্প্রতি সইফ আলি খানও স্বীকার করে নিয়েছেন নেপোটিজমের কথা। বলেছেন, স্টারকিড হওয়ায় তিনি সুবিধা পেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি চান অবিলম্বে এই নেপোটিজম বলিউড থেকে বিদায় নিক। সোনাক্ষী সিনহা তো সমালোচনা না নিতে পেরে টুইটার অ্যাকাউন্টই ডিলিট করে দিয়েছেন। কিন্তু সোনম কাপুর এসবের কিছুই করেননি। নেপোটিজমের কথা তিনি স্বীকার করেছেন। কিন্তু এতে দোষের কিছু দেখছেন না অভিনেত্রী। তিনি জানিয়েছেন, সবকিছুই কর্মফলের উপর নির্ভর করে। কে, কোথায় জন্ম নেবে তা কর্মফলই নির্ধারণ করে। তিনি যেখানে জন্মেছেন বা যা সুযোগসুবিধা পাচ্ছেন, তার জন্য তিনি রোজ ভগবানকে ধন্যবাদ দেন। যারা এসব বোঝে না, তাদের যেন ভগবান ক্ষমা করে দেন, এমন কথাও সোনম লিখেছেন টুইটারে।

[ আরও পড়ুন: সলমনের সংস্থার বিরুদ্ধে আর্থিক তছরূপের অভিযোগ অভিনব কাশ্যপের, আইনের দ্বারস্থ আরবাজ ]

অন্য একটি টুইটে লিখেছেন, তাঁর বাবা সারা জীবন প্রচুর খেটেছেন বলেই তিনি আজ এখানে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। এটা তাঁর কাছে মোটেই অপমান নয়। তাঁর কর্মের ফল যে তিনি এমন একটি পরিবারে জন্মেছেন।

সোনমের এই টুইটগুলোর ফলে নেটদুনিয়ায় তাঁকে নিয়ে চর্চা তো কমেইনি, বরং বেড়েছে। তবে এখানেই শেষ নয়। সোনম একসময় ‘কফি উইথ করণ’-এ সুশান্তকে নিয়ে বিদ্রুপ করেছিলেন। সোনমের দাবি ওই ভিডিওটি ৭ বছরের পুরনো। তখন সত্যিই অনেকে সুশান্তকে চিনতেন না। আর তাছাড়া ওই এপিসোডটি এডিটেড। তিনি আরও অনেক কথা বলেছিলেন। যেগুলো রাখা হয়নি। আর তাছাড়া তাঁকেও তো অনেকে অনেক শোয়ে অনেক ভালমন্দ বলেন। তিনিই তার জন্য তো ভেঙে পড়েন না!

[ আরও পড়ুন: চোখের জলে বিদায় সুশান্তের, পাটনার বাড়িতে প্রার্থনা সভার আয়োজন করল অভিনেতার পরিবার ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে