BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মাদক সেবন নিয়ে দীপিকাকে কটাক্ষ ‘সোনু নিগমে’র! পোস্ট ভাইরাল হতেই মুখ খুললেন ক্ষুব্ধ গায়ক

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 27, 2020 3:31 pm|    Updated: September 27, 2020 4:23 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুত কি আত্মঘাতী হয়েছিলেন? নাকি তাঁকে খুন করা হয়েছে। এই প্রশ্নের উত্তরের খোঁজে নেমে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে আসছে। তদন্তের মোড় ঘুরেছে ঘটনায় মাদক যোগের দিকে। যার জেরে অভিনেত্রী রকুলপ্রীত সিং থেকে দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুর, সারা আলি খানকে তলব করেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (NCB)। আর দীপিকার মতো তারকার নাম মাদক সেবনের সঙ্গে জড়ানোয় নাকি বেজায় খুশি হয়েছেন সোনু নিগম! টুইট করে দীপিকাকে নিয়ে মশকরাও করেছেন! সেই টুইট আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন খোদ শ্রমমন্ত্রী! জল এতদূর গড়ানোর পরই মেজাজ হারান সোনু। ক্ষুব্ধ সোনু জানিয়ে দেন, তিনি টুইটারেই নেই। তাঁর নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থেকে এই কাণ্ডকারখানা চলছে।

বি-টাউনের বিতর্ক থেকে নিজেকে দূরে রাখতেই পছন্দ করেন সোনু (Sonu Nigam)। সাতে-পাঁচে থাকেন না। গত তিন বছর ধরে টুইটারেও নেই তিনি। অথচ তাঁর নামে অজস্র অ্যাকাউন্ট খুলে যা ইচ্ছা তাই পোস্ট করা হচ্ছে। ইনস্টাগ্রামে ভিডিও বার্তায় এই নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন বলিউডের অতি জনপ্রিয় গায়ক সোনু নিগম। দেশে সাইবার পুলিশ বলে কিছু নেই বলেও তোপ দাগেন তিনি। সোনুর কথায়, “শ্রমমন্ত্রীই যদি না বোঝেন যে ওটা ভুয়ো অ্যাকাউন্ট, তাহলে সাধারণের থেকে আর কী প্রত্যাশা করা যায়। আর যতবারই ভুয়ো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়, ততবারই নতুন করে খুলে যায়। সাইবার পুলিশ বলে কিছু নেই। পুলিশদের লজ্জা হওয়া উচিত। আমি কারও বদনামে আনন্দ পাই না। তাই আমায় এর মধ্যে জড়াবেন না। সুশান্ত আত্মঘাতী না খুন- এই মামলা এখন অত্যন্ত নোংরা পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। একটা দেশের ভাবমূর্তি তৈরি হয় সেই দেশের মূল বিষয়গুলি দিয়ে। এখন দেশের কী পরিচয় হচ্ছে দেখুন। আমি নিজেকে নিয়েই ভাল আছি। তাই এই পোস্ট শেয়ার করে অযথা গুজব ছড়াবেন না।”

[আরও পড়ুন: তারকাদের গাড়ি ধাওয়া করলেই কড়া পদক্ষেপ, সংবাদমাধ্যমকে হুঁশিয়ারি মুম্বই পুলিশের]

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Sonu Nigam (@sonunigamofficial) on

এদিকে, মাদক যোগে নাম জড়ানোর পর থেকেই শিরোনামে রকুলপ্রীত। কিন্তু তাঁকে নিয়ে সংসাবদমাধ্যম যে সমস্ত খবর করে চলেছে, তা একেবারেই পছন্দ হচ্ছে না অভিনেত্রীর। আর এই কারণেই দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি।। মামলা অন্তর্বর্তী সময়ে তাঁর নামে যাতে কোনও খবর না দেখানো হয়, সেই আরজিই জানিয়েছেন।

মাদক যোগে শনিবারই গ্রেপ্তার করা হয়েছে করণ জোহরের প্রোডাকশন হাউস ধর্মা প্রোডাকশনের প্রাক্তন কর্মী ক্ষীতিশ রবিপ্রসাদকে। তাঁকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত NCB রিমান্ডে রাখা হয়েছে। যদিও এখনও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে চলেছেন ক্ষীতিশ। তবে শোনা যাচ্ছে, তাঁর বাড়ি থেকে স্বল্প পরিমাণ মাদক উদ্ধার করেছেন NCB আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন: সুশান্ত মৃত্যুতে মাদক যোগের রহস্য আরও জটিল, এবার NCB’র নিশানায় হৃতিক-শাহিদ!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement