১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সোনু সুদের নাম করে প্রতারণার ফাঁদ! পরিযায়ী শ্রমিকদের সতর্ক করলেন অভিনেতা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 5, 2020 9:45 pm|    Updated: June 5, 2020 9:45 pm

Sonu Sood warns migrant workers from beware of fake people

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোনু সুদের নাম করে দেদার প্রতারণা চলছে পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে। এই ধরণের অভিযোগ তুলে সতর্ক করলেন খোদ অভিনেতা। লকডাউনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাচ্ছেন সোনু। ভিন রাজ্য থেকে পেটের দায়ে কাজ করতে আসা কাউকে যেন আর কষ্ট করে হেঁটে বাড়ি ফিরতে না হয়, সেই জন্যে এতটি টোল ফ্রি নম্বরও চালু করেছেন অভিনেতা। আর তাঁর নাম করেই কিছু অসৎ লোক বর্তমানে পরিযায়ীদের দুর্দশাকে সুযোগ হিসেবে কাজে লাগিয়ে ব্যবসা ফেঁদে বসেছে।

তিনি এখন ‘সুপারস্টার’। পরিযায়ীদের এমন দুর্দিনে সবাই যখন ঠান্ডাঘরে বসে আহা-উহু করছেন, বলিউডের এই অভিনেতা কিন্তু অসহায় মানুষগুলিকে অনবরত সাহায্য করে চলেছেন। কোনওরকম বিরতি ছাড়াই। দেশের এমন সোনার টুকরো ছেলেকে তাই ‘ভারত রত্ন’ দেওয়ার দাবিও উঠেছে ইতিমধ্যে। প্রচারের আলো এখন স্বাভাবিকবশতই তাঁর দিকে। অতঃপর তাঁর নাম করে মুনাফা লোটা এখন খুবই সহজ। সেই সুযোগকেই কাজে লাগিয়েছে একদল লোক। সোনু সুদের নাম করে পরিযায়ী শ্রমিকদের থেকে টাকা নিচ্ছে তাঁদের বাড়ি ফেরানোর জন্য। আর সেই খবর অভিনেতার কানে পৌঁছতেই তড়িঘড়ি মুখ খুললেন সোনু।

ফেসবুকে একটি পোস্ট করে সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছেন সোনু সুদ (Sonu Sood)। তিনি লিখেছেন, “আমি পরিযায়ী শ্রমিকদের বিনামূল্যেই সেবা করছি। এই পরিষেবার জন্য কোনও রকম টাকা লাগছে না। কেউ যদি আমার নাম করে আপনাদের কাছ থেকে টাকা চায়, তাহলে সরাসরি তাদের না করে দিন। তৎক্ষণাৎ আমাকে জানান কিংবা প্রয়োজনে স্থানীয় কোনও থানায় রিপোর্ট করুন।”

[আরও পড়ুন: ‘পাতাল লোক’ ইস্যু এবার কলকাতা হাই কোর্টে, মামলা দায়ের হিন্দুত্ববাদী নেতার]

বিনোদন ও ক্রীড়াজগতের ব্যক্তিত্বরা তো বটেই, এমনকী রাজনৈতিক কর্তাব্যক্তিরাও রং-দল নির্বিশেষে সোনু সুদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। দিন কয়েক আগেই মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল অভিনেতাকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন রাজভবনে। আশ্বাস দিয়েছিলেন পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য তিনি যা করছেন, তাঁর পাশে থাকবে সরকার।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ আছড়ে পড়ার আগেও মুম্বইয়ের উপকূলবর্তী অঞ্চলের প্রায় ২৮ হাজার মানুষকে স্থানীয় স্কুল-কলেজের পাঠিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন সোনু সুদ এবং তাঁর টিম। এমনকী, এই মানুষগুলোর জন্য নিজের সাধ্যমতো খাবারের ব্যবস্থাও করেছিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘হাতির খুনিদের শাস্তি দিলেই হবে না, জনসচেতনতা বাড়ান’, কেরলের মুখ্যমন্ত্রীকে খোলা চিঠি মিমির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে