BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দ্বিতীয় দফায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য NCB অফিসে রিয়া, মাদক যোগ সন্দেহে গ্রেপ্তার আরও ১

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 7, 2020 11:56 am|    Updated: September 7, 2020 2:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবারের ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের পর সোমবার ফের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর অফিসে হাজির হয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। এদিকে সুশান্ত (Sushant Singh Rajput) মামলায় মাদক যোগ সন্দেহে এদিন আরও একজনকে গ্রেপ্তার করেছেন NCB আধিকারিকরা। ধৃতের নাম অনুজ কেসওয়ানি।

 

সুশান্ত মামলায় রবিবার সকালেই রিয়ার বাড়িতে যান NCB-র আধিকারিকরা। তখনই রিয়াকে সমন দেওয়া হয়। সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ মিডিয়ার ভিড় ঠেলে রিয়াকে ভিতরে নিয়ে যায় মুম্বই পুলিশ। ভিড়ের কথা মাথায় রেখেই সোমবার সকালে হুডেড জ্যাকেট পরে NCB-র দপ্তরে পৌঁছান রিয়া। সূত্রের খবর, আজও ভাই সৌভিক চক্রবর্তী (Showik Chakraborty), সুশান্তের হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা (Samuel Miranda) এবং পরিচারক দীপেশ সাওয়ান্তের (Dipesh Sawant) মুখোমুখি বসিয়ে রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

[আরও পড়ুন: অর্জুন কাপুরের পরই করোনায় আক্রান্ত মালাইকা অরোরা! নেটদুনিয়ায় ট্রোলড সেলেব জুটি]

সূত্র মারফত এও জানা গিয়েছে, রবিবারই রিয়া মাদক আনানোর কথা স্বীকার করে নিয়েছিলেন। তবে কার জন্য এই মাদক তিনি আনাতেন, তা জানাননি রিয়া। সেই কথা আজ জানতে চাইতে পারেন NCB-র আধিকারিকরা। মার্চ মাসে রিয়া ও সৌভিকের হোয়াটসঅ্যাপ (Whatsapp) চ্যাটের সূত্র ধরেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সুশান্তের পরিচারক দীপেশ সাওয়ান্ত নাকি জেরার মুখে জানিয়েছেন, চাকরিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই সুশান্তকে নিয়মিত গাঁজা খেতে দেখেছিলেন তিনি। শোনা এও গিয়েছে, বান্দ্রার মাদক ব্যবসায়ী জায়েদ ভিলাত্রার সঙ্গে যে সৌভিক ও স্যামুয়েলের যোগাযোগ রয়েছে, তা নাকি জানতেন রিয়া। সেকথা তিনি স্বীকারও করেছেন।

[আরও পড়ুন: ড্রাগ দিতে চেয়েছিলেন কঙ্গনা! অভিনেত্রীর প্রাক্তন প্রেমিকের পুরনো সাক্ষাৎকার ঘিরে চাঞ্চল্য]

সৌভিক, স্যামুয়েল, জায়েদ ছাড়াও মাদক চক্রের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয়েছে করণ অরোরা, আব্বাস লাখানি, আবদুল বসিত ও কেইজান ইব্রাহিমকে। সোমবার অনুজ কেসওয়ানি নামে আরও একজনকে গ্রেপ্তার করে NCB। কেইজান ইব্রাহিমকে জেরা করেই অনুজের সন্ধান পেয়েছেন আধিকারিকরা। এবার রিয়া চক্রবর্তীর গ্রেপ্তারির পালা? এই প্রশ্নই এখন উঠছে বিভিন্ন মহলে।    

এছাড়াও সুশান্তের মরদেহের ভিসেরা পরীক্ষা করছে AIIMS-এর ফরেনসিক বোর্ড। সুশান্তের শরীরে বিষাক্ত কিছু আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে। ১০ দিনের মধ্যে সেই রিপোর্ট দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা: সুধীর গুপ্ত। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement