BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ছ’বছর বয়সে বাবার হাত ধরে এসেছিল আদি বাড়ি, সেই রিয়ার গ্রেপ্তারিতে নস্ট্যালজিক বাঘমুন্ডি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 8, 2020 8:08 pm|    Updated: September 8, 2020 8:54 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: বাইশ বছর আগের কথা। তখন রিয়া ছ’বছরের শিশু। বাবার হাত ধরে পারিবারিক দুর্গাপুজোয় আদি বাড়ি পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডির তুনতুড়িতে পা রাখেন। সেই ফুটফুটে মেয়ে আজ যেভাবে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলায় জড়িয়ে পড়েছেন, তা যেন বিশ্বাসই করতে পারছে না তাঁর অজ পাড়া গাঁ তুনতুড়ি। কথা হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তীর (Rhea Chakraborty)। মঙ্গলবার বিকেলে সুশান্ত মামলায় ড্রাগ যোগে রিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার পরই নস্ট্যালজিক হয়ে পড়েছে তুনতুড়ি। ভেসে আসছে নানান কথা।

তাঁর পরিবারের আত্মীয়-স্বজনরাই রিয়াদের সেই বাড়ি দেখিয়ে দিচ্ছেন। দেখিয়ে দিচ্ছেন তাঁর বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তীর অর্থ সাহায্যে তৈরি পারিবারিক দুর্গাপুজোয় নানা জিনিসপত্র রাখার জন্য স্টোর রুম। বলছেন পরিবারের নানান কথা। কিন্তু সবটাই নিজেদের আড়াল করে। ক্যামেরার সামনে আসতে চাইছেন না প্রায় কেউ। বলতে চাইছেন না নাম। আসলে অভিনেতা সুশান্তের মৃত্যু মামলায় এই বনেদি পরিবারকে নিয়ে দেশজুড়ে যেভাবে শোরগোল পড়ে গিয়েছে, তাতে আর নতুন করে বিতর্ক বাড়াতে চাইছেন না ধৃত অভিনেত্রীর আত্মীয়–স্বজনরা।

Rhea Home
বাগমুন্ডিতে রিয়ার আদি বাড়ি। ছবি: অমিত সিং দেও

আজও তুনতুড়িতে ঠায় দাঁড়িয়ে হালকা হলদে রঙের রিয়াদের সেই দোতালা বাড়ি। বছর বাইশ আগে পুজোর সময় এই বাড়িতেই উঠেছিলেন অভিনেত্রী। এখন সেই বাড়িজুড়ে জঙ্গল। দরজায় বাসা বেঁধেছে উইপোকা। মরচে ধরেছে দরজার তালায়। রিয়াদের বাড়ি ঘেঁষে থাকা তুলসি তলাতেও ঝোঁপঝাড়। তবে আজও পুজো হয়ে আসছে। চক্রবর্তী পরিবারের এই দুর্গাপুজো এবার ৩২৩ বছরে পা দেবে। রয়েছে নাটমন্দিরও। এই বাড়িতে রিয়ার বাবা ইন্দ্রজিৎ চক্রবর্তী শেষ কবে এসেছিলেন, তা সঠিকভাবে মনে করতে পারছেন না তাঁদের আত্মীয় স্বজনরা। তবে কেউ কেউ বলছেন বছর পনেরো হতে পারে।

purulia
রিয়ার আদি বাড়ির মন্দিরের দালান। ছবি: অমিত সিং দেও

অভিনেত্রীর ঠাকুরদা সিরিষ চক্রবর্তীর ছেলেবেলা কাটে এই বাড়িতেই। তিনি ধানবাদের বিসিসিএলের কোলিয়ারির ম্যানেজার ছিলেন। তাঁর বাবা রামময় চক্রবর্তী ছিলেন আইনজীবী। তাঁর সময়েই এই পরিবার এলাকার হাই স্কুল ও প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জন্য প্রায় সাতাশ বিঘা জমি দান করে। তাই এই এলাকার বাসিন্দা তথা প্রাক্তন সাংসদ বীর সিং মাহাতো বলছেন, “এলাকার বারোটি মৌজার দেওয়ান ছিল এই চক্রবর্তীরা। বনেদি পরিবার। নানান সমাজ সেবায় যুক্ত। এই পরিবারের সকলে সারা ভারতবর্ষ জুড়েই ছড়িয়ে–ছিটিয়ে রয়েছেন। প্রায় সকলেই পারিবারিক দুর্গাপুজোয় এই গ্রামে আসেন। শুনছি রিয়াও একবার এসেছিলেন। এই পরিবারের মেয়ে অভিনেতা সুশান্ত মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত। মনকে বিশ্বাসই করাতে পারছি না।” তাই বিকাল থেকেই টিভিতে চোখ ছিল রিয়ার গ্রামের। বাইশ বছর আগের শিশুটি আর আজ ওই মামলায় মাদক যোগে ধৃত অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। মেলাতে পারছে না তুনতুড়ি!

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement