BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বলিউডে কতটা স্বজনপোষণ চলে? যাচাই করতে ‘নেপোমিটার’ আনলেন সুশান্তের জামাইবাবু

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 2, 2020 3:54 pm|    Updated: July 2, 2020 4:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বজনপোষণের ভিত্তিতে কাজ পাওয়ার ঘটনা বলিউডে নতুন নয়, তবে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে ‘নেপোটিজম’ বিষয়টি যেন আরও জোরালো হয়ে উঠেছে। বলিউডের বহুল চর্চিত সেই নেপোটিজমের অনুপাত মাপতেই এবার সুশান্তের জামাইবাবু বিশাল কীর্তি এক অভিনব পন্থা অবলম্বন করেছেন। লঞ্চ করতে চলেছেন ‘নেপোমিটার’। সদ্য টুইটারে সেকথা জানিয়েছেন বিশাল। কী এই নেপোমিটার? যেনে নেওয়া যাক। 

প্রসঙ্গত, সুশান্তকে কোণঠাসা করার অভিযোগ উঠেছে বলিউডের খ্যাতনামা পাঁচ প্রযোজনা সংস্থার বিরুদ্ধে। মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ (Anil Deshmukh) অবশ্য আগেই আশ্বাস দিয়েছিলেন যে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে যথাযথ তদন্ত হবে। প্রয়োজনে অভিযোগের ভিত্তিতে খতিয়ে দেখা হবে যে, পেশাগত বিদ্বেষই অভিনেতাকে এমন চরম সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে কিনা! কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপমও (Sanjay Nirupam) অভিযোগ করেছেন যে, “স্বজনপোষণের জন্যই গত ছয় মাসে ৭টি ভাল সিনেমা সুশান্তের হাতছাড়া হয়েছে। ভবিষ্যতে যেন আর কাউকে ইন্ডাস্ট্রির এই জঘন্য রাজনীতির শিকার না হতে হয়, সেদিকে নজর দিতে হবে!” সেই স্বজনপোষণের মাপকাঠি এবার ধরা পড়বে নেপোমিটারে।

sushant

সুশান্তের জামাইবাবু বিশাল কীর্তির ভাই ময়ূরেশ কৃষ্ণা প্রয়াত অভিনেতার স্মৃতিতে এটি তৈরি করেছেন এই ওয়েব সাইট। কী এই নেপোমিটার? সেই সম্পর্কে জানিয়ে বিশাল কীর্তি লিখেছেন, ‘”স্বজনপোষণ এবং স্বতন্ত্রতার ভিত্তিতে বলিউডের কোনও সিনেমাকে বিচার করা হবে এই নেপোমিটারের মাধ্যমে। কোনও সিনেমা কিংবা তার টিম কতটা স্বজনপোষণমুক্ত, তার ভিত্তিতেই রেটিং দেওয়া হবে। যদি নেপোমিটারের (Nepometer) রেটিং বেশি থাকে, তাহলে সময় এসেছে বলিউডে দীর্ঘকাল ধরে চলতে থাকা নেপোটিজমের বিরুদ্ধে সরব হওয়ার।” এমনকী, দর্শকরাও চাইলে এই নেপোমিটারে রেটিং দিতে পারবেন।

[আরও পড়ুন: সুশান্তের মৃত্যুতে মামলা দায়ের! মুম্বই পুলিশের নজরে এবার পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালি]

একটা মৃত্যু যে বলিউডকে এভাবে নাড়িয়ে দেবে, তা বোধহয় কেউ স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেননি। সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) মৃত্যুর পর থেকেই ইন্ডাস্ট্রিতে বেশ কয়েকটি বিতর্কের জন্ম হয়েছে। নেপোটিজম থেকে শুরু করে প্রতিপত্তিশালীদের হুমকি দেওয়া, এমন অনেক বিষয়ই উঠে আসছে। নেপোটিজম নিয়ে অভিযোগের তীর মূলত করণ জোহর, সলমন খান, একতা কাপুরের দিকে। শুরুটা অবশ্য বছর খানেক আগে কঙ্গনা রানাউত নিজেই করে দিয়েছিলেন, করণকে নেপোটিজম-এর ‘ঝাণ্ডাধারী’ বলে। তবে মাঝে সেই বিষয়টি থিতিয়ে গেলেও সুশান্তের আত্মহত্যার পর স্টার-কিডরা একপ্রকার নেটিজেনদের রোষানলেই পড়েছেন। বিশেষ করে, আলিয়া ভাট, বরুণ ধাওয়ান, সোনম কাপুর, সোনাক্ষী সিনহার মতো তারকার, যাঁরা আদ্যোপান্ত ফিল্মি পরিবার থেকেই উঠে এসেছে ইন্ডাস্ট্রিতে।

alia karan sushant

ইন্ডাস্ট্রিতে বহিরাগতদের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে গিয়ে যে বেশ বেগ পেতে হয় তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন হয় না! কঙ্গনা রানাউত বারবার সেকথা বলে এসেছেন। উপরন্তু দিন কয়েক আগে যাঁরা বলিউডে সাধারণত ‘মৌনী সাধু’র ভূমিকাতেই থাকেন, কোনও রকম বিতর্কে জড়ানো পছন্দ করেন না, সেই মনোজ বাজপেয়ী এবং সুস্মিতা সেনও একবাক্যে স্বীকার করে নিয়েছেন যে- “বলিউডে নেপোটিজম নতুন নয়!”

[আরও পড়ুন: ভারতকে নিয়ে কদর্য মন্তব্য! বাংলাদেশি নেটিজেনদের মোক্ষম জবাব দিলেন জয়া আহসান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement