BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সুশান্তের মৃত্যু মেনে নিতে পারেনি, প্রিয় অভিনেতার মতোই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী অনুরাগী

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 16, 2020 10:12 pm|    Updated: June 16, 2020 10:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিন দুই আগে সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার খবর যখন প্রকাশ পেল, স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল, গোটা দেশ। বলিউডের এই প্রণোচ্ছ্বল অভিনেতার মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না কেউ। শোকাহত তাঁর ফ্যানেরাও। যেন একটু বেশিই। কারণ এই সবে তো কেরিয়ার শুরু হয়েছিল সুশান্তের। এর মধ্যেই তিনি চলে গেলেন! অভিনেতার এই মৃত্যু সহ্য করতে না পেরে গলায় দড়ি দিয়ে তাঁরই মতো আত্মহত্যা করলেন এক অনুরাগী।

উত্তরপ্রদেশের বরেলিতে থাকত সুশান্তের ওই অনুরাগী। পড়ত দশম শ্রেণিতে। সুশান্তের ডাই-হার্ট ফ্যান ছিল সে। সুশান্তের মৃত্যুতে অত্যন্ত ধাক্কা খেয়েছিল। এতটাই, যে নিজেকে আর বাঁচিয়ে রাখতে চায়নি ক্লাস টেনের ওই পড়ুয়া। তবে আত্মহত্যা করার আগে সে একটি সুইসাইড নোট লেখে। সেটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। সুইসাইড নোটে সে লিখেছে, “যদি ও এমন কাজ করতে পারে, তবে আমি কেন পারব না?”

[ আরও পড়ুন: ‘মনের অর্ধেকটা তোমার সঙ্গেই চলে গিয়েছে, বাকিটায় তুমি আছ’, সুশান্তকে খোলা চিঠি কৃতির

১৪ জুন, রবিবার দুপুরে বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো নেমে এসেছিল দুঃসংবাদটা। বান্দ্রার ফ্ল্যাটে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন বলিউডের তরুণ, জনপ্রিয়, প্রতিভাশালী অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। কারণ নিয়ে একাধিক ধোঁয়াশা তৈরি হয়। তা নিয়ে চর্চা হয়েছে বিস্তর, তা চলবেও। মানসিকভাবে অবসাদই তাঁকে আত্মহত্যার পথে ঠেলে দিয়েছে, এই অনুমান জোরদার হলেও, তা এখনও প্রমাণসাপেক্ষ। তবে সুশান্তের এই মৃত্যু তাঁর আত্মীয়-পরিজনদের কতটা মানসিক বিপর্যয়ের মধ্যে ঠেলে দিয়েছে, তার প্রমাণই বোধহয় মিলল সোমবার সন্ধেবেলা। মুম্বইতে অভিনেতার শেষকৃত্যে যখন শামিল পরিবার, সেসময়ই বিহারের পূর্ণিয়ায় নিজের বাড়িতে ধীরে ধীরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন সুশান্তের বউদি সুধা দেবী।

সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। উঠছে একাধিক অভিযোগ। অনেকেই বলছেন পেশাগত বিদ্বেষের দেরেই আত্মহত্যা করেন সুশান্ত। কঙ্গনা রানাউত একটি ভিডি পোস্ট করে সরাসরি দুষেছেন বলিউডের স্বজনপোষণ নীতিকে। তাঁর কথায়, সুশান্তকে একটা ভয় গ্রাস করেছিল যে তাঁকে ইন্ডাস্ট্রিতে কেন কেউ আপন করে নিচ্ছে না! সুশান্ত যেন আর্তনাদ করে বলতে চাইছিল যে, “আমার তো কোনও গডফাদার নেই! আমাকে বের করে দেওয়া হবে ইন্ডাস্ট্রি থেকে সিনেমা হিট না হলে। প্লিজ আমার সিনেমা আপনারা দেখুন…।” সুশান্ত ওঁর কাজ অনুসারে কোনওদিন যথাযথ স্বীকৃতি পাননি বলেও দাবি করেন কঙ্গনা রানাউত (Kangna Ranaut)।

[ আরও পড়ুন: করোনা আবহে মুক্তি পেল ‘ইয়ে’, পরীক্ষমূলক ছবিতে সসম্মানে উত্তীর্ণ পরিচালক দেবেশ চট্টোপাধ্যায় ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement