BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জমায়েত নিয়ে তৃণমূলকে তোপ, বিজেপির আইটি সেলের প্রধানকে পালটা কটাক্ষ নুসরতের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: May 4, 2020 12:29 pm|    Updated: May 4, 2020 12:29 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির মুখপাত্র ও আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহানের বাকযুদ্ধ থামার নাম নিই। কিছুদিন আগে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ সংক্রান্ত ইস্যু নিয়ে দু’জনের মধ্যে তর্কাতর্কি তুঙ্গে উঠেছিল। এবার ‘শান্তি মিছিল’ নিয়ে নেটদুনিয়ায় আক্রমণ ও পালটা আক্রমণ শুরু হল।

রবিবার বিজেপির মুখপাত্র ও আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যে টুইটারে তৃণমূলের শান্তি মিছিলের একটি ছবি পোস্ট করেন। সেই সঙ্গে তিনি লেখেন, শতাধিক মানুষকে নিয়ে ‘শান্তি’ মিছিল করছেন তৃণমূলের স্থানীয় নেতারা। এরপর টিকিয়াপাড়ার ঘটনার জের টেনে তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার যে ‘শান্তি’র জন্য ব্যাকুল, তা আরও একবার প্রমাণ হয়ে গেল। এরপরই তিনি লিখেছেন ‘করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ না হয় থেমে থাকবে!’ বলাই বাহুল্য নিজের এই বক্তব্যের মাধ্যমে তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে বড়সড় আক্রমণ হেনেছেন অমিত মালব্য।

[ আরও পড়ুন: নেটফ্লিক্সে নয়া রেকর্ড গড়ল ‘এক্সট্রাকশন’, দর্শকদের ধন্যবাদ জানালেন ক্রিস হেমসওয়ার্থ ]

আর ঠিক তার পরই বসিরহাটের সাংসদ নুসরত জাহান পালটা দেন অমিতকে। তিনিও একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে গুজরাট ও হরিয়ানার দু’টি জায়গার ভিডিও পোস্ট করেন। দুই জায়গাতেই বহু লোকের জমায়েত দেখা গিয়েছে ভিডিওয়। এই দুই রাজ্যই বিজেপি শাসিত। সরাসরি অমিত মালব্যের বিরুদ্ধে তোপ না দাগলেও নুসরত ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিয়েছেন, এই দুই রাজ্যেও নিয়ম না মেনে জমায়েত করা হয়েছে। তাহলে পশ্চিমবঙ্গকে নিশানা করা তাঁর সাজে না। যদিও এর পরিপ্রেক্ষিতে এখনও কিচু বলেননি অমিত মালব্য।

প্রসঙ্গত, রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় হাওড়ার টিকিয়াপাড়ার এমনই কিছু ছবি এবং ভিডিও ভাইরাল হয়। যা নিয়ে বিভিন্ন মহলে চলছে জোর আলোচনা। রবিবার দুপুরে এলাকা পরিদর্শনে টিকিয়াপাড়ায় গিয়েছিলেন পুলিশকর্মীরা। ডিসি হেড কোয়ার্টার প্রিয়ব্রত রায়ের দাবি, সেই সময়ে বেশ কয়েকজন তাঁদের দেখে এগিয়ে আসেন। ভিড় জমান তাঁদের ঘিরে। পরে যদিও পুলিশ তাঁদের বাড়িতে ঢুকতে বললে, তাঁরা চলে যান। এই ঘটনার বেশ কয়েকটি ছবি এবং ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় (ওই ছবি এবং ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল)। ভাইরাল সেই ছবি এবং ভিডিও নিয়ে বিভিন্ন মহলে শুরু হয় জোর আলোচনা। সামাজিক দূরত্ব কেন বজায় রাখা হচ্ছে না, তা নিয়ে আলোচনায় সরব নেটিজেনরা। যদিও পুলিশের দাবি, নেটিজেনদের দাবি ভিত্তিহীন।

[ আরও পড়ুন: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সাক্ষী থেকেছি, কিন্তু গোটা বিশ্বকে এভাবে স্তব্ধ হতে দেখিনি: আশা ভোঁসলে ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement