BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘একসঙ্গে এত কিছু দেখতে হবে কখনও ভাবিনি!’, ভাইজাগ গ্যাস দুর্ঘটনা নিয়ে উদ্বিগ্ন টলিউড  

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 8, 2020 10:09 am|    Updated: May 8, 2020 10:09 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের মাঝেই আবার নতুন বিপত্তি। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্থা এলজি পলিমার প্রাইভেট লিমিটেডের বিশাখাপত্তনামের কারখানা থেকে বিষাক্ত স্টায়ারিন গ্যাস লিক করে ভয়ংকর দুর্ঘটনা ঘটে। বহু প্রাণহাণির পাশাপাশি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন প্রায় হাজারেরও বেশি মানুষ। এদিন বেলা বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে মৃত্যুমিছিল। অন্যদিকে, হাসপাতালেও কাতারে কাতারে অসুস্থ মানুষের ভিড় বেড়েছে। ঠিক যেন আটের দশকের ভোপাল গ্যাস দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি। পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এমতাবস্থায় ভাইজাগের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন, শোকাহত প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, দেব, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়-সহ টলিউড তারকাদের অনেকেই।

২০২০ যেন সত্যিই এক দুঃসময়ে বয়ে নিয়ে এসেছে। প্রত্যেক সপ্তাহেই কোনও না কোনও দুঃসংবাদে ঘুম ভাঙছে দেশবাসীর। একেই মারণ ভাইরাসের প্রকোপ, তার উপর একের পর এক দুর্ঘটনায় উদ্বিগ্ন টলিউড তারকারা। “আবারও দিনের শুরুতেই দুঃসংবাদ। ভাইজাগ গ্যাস লিকের ছবিগুলো দেখে আমি শোকাহত এবং মর্মাহত। যাঁরা হাসপাতালে ভরতি ভরতি রয়েছেন, অতি শীঘ্রই তাঁদের আরোগ্য কামনা করি। আর যাঁরা প্রিয়জনকে হারিয়েছেন, এই পরিস্থিতি সামলে উঠতে ঈশ্বর তাঁদের শক্তি প্রদান করুন”, বললেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

বিশাখাপত্তনামের কারখানা থেকে বিষাক্ত গ্যাসের ছোবলে মৃতদের উদ্দেশে শোকর্বাতা জ্ঞাপন করলেন দেব। শোকপ্রকাশ করে তৃণমূল সাংসদ তথা টলিউড অভিনেতা বললেন, “জানি না, চারদিকে কী হচ্ছে! আর কত কিছু দেখতে হবে। কখনও কল্পনাও করিনি এই জীবনে একসঙ্গে এত কিছু দেখতে হবে। ঈশ্বর ওঁদের সহায় হোন।” উদ্বেগ প্রকাশ করলেন দেবের বান্ধবী রুক্মিণী মৈত্রও। তাঁর কথায়, “ভাইজাগ গ্যাস লিক আরেকটা দুর্ঘটনা। এগুলোই যেন আমাদের জীবনের সঙ্গী হয়ে উঠেছে। একনাগাড়ে শুধু প্রার্থনাই করে চলেছি। ভীষণই দুঃখজনক ঘটনা।”

[আরও পড়ুন: স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার্থে দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে ১ হাজার পিপিই কিট দিচ্ছেন ফারহান]

বৃহস্পতিবার রাত তখন আড়াইটে। গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন বিশাখাপত্তনমের আরআরভিপুরম গ্রামের বাসিন্দারা। আচমকাই ঘুমের মধ্যেই চোখ জ্বালা, শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন তাঁরা। কিছু বোঝে ওঠার আগেই অবশ্য জ্ঞান হারান অনেকেই। ফলে পুলিশ বা বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা ডাকাডাকি করেও সাড়া পাননি। দরজা ভেঙেই ঘরে ঢুকে তাদের উদ্ধার করা হয় এলাকার অচেতন মানুষদের। এই সংবাদে মর্মাহত অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ও। “ভীষণই ভয়ংকর একটা ঘটনা”, মন্তব্য স্বস্তিকার।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে বাড়তে থাকা গার্হস্থ্য হিংসার বিরুদ্ধে সচেতনতা প্রচারে নামলেন রিচা চাড্ডা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement