BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা রোগীদের চিকিৎসার্থে প্লাজমা দিলেন টম হ্যাংকস, পোস্ট করলেন ছবি

Published by: Bishakha Pal |    Posted: May 1, 2020 11:42 am|    Updated: May 1, 2020 11:42 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগে করোনা গবেষণার জন্য প্লাজমা দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন অভিনেতা টম হ্যাংকস। এবার তিনি ও তাঁর স্ত্রী রিটা সত্যিই প্লাজমা দিলেন করোনার রোগীদের জন্য। সম্প্রতি হলিউড অভিনেতা একটি প্লাজমা ব্যাগের ছবি পোস্ট করে সেকথা জানিয়েছেন। তাঁর প্লাজমা লক অ্যাঞ্জলসের হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় কাজে লাগবে বলে খবর।

কিছুদিন আগে টম হ্যাংকস জানিয়েছিলেন, করোনা যুদ্ধে শামিল হতে চান তাঁরা। করোনা রোগীদের চিকিৎসার স্বার্থে নিজেদের প্লাজমা দিতে চান বলে জানিয়েছিলেন সস্ত্রীক টম হ্যাংকস। বলেছিলেন, তাঁদের প্লাজমা COVID-19 নিয়ে গবেষণার কাজে লাগে, তবে তাঁরা বাধিত হবেন। “অনেক প্রশ্ন ঘরে বেড়াচ্ছে। এখন কী হবে? কী করা উচিত? সম্প্রতি জানতে পেরেছি আমি আর রিটা করোনার অ্যান্টিবডি আমাদের শরীরে নিয়েই ঘুরে বেড়াচ্ছি। আমাদের কেউ জিজ্ঞাসা করেনি। তবু আমরা বলছি, আমাদের রক্ত কি চাও? আমরা কি প্লাজমা দিতে পারি?” বলেন অভিনেতা। এমনকী তাঁর প্লাজমা থেকে যদি করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হয় তবে তার নাম রাখতে চান তিনি ‘হ্যাংক-সিন’।

[ আরও পড়ুন: ‘দিওয়ানা’র শুটিং সেটে বলেছিলেন তোমার প্রচুর এনার্জি’, ঋষি কাপুরের প্রয়াণে স্মৃতিমেদুর শাহরুখ ]

এবার তিনি সত্যিই প্লাজমা দিলেন। গবেষণার কাজে তাঁর প্লাজমা লাগবে কিনা তা এখনও জানা যায়নি। তবে টম হ্যাংকসের প্লাজমা করোনা রোগীদের চিকিৎসার স্বার্থে কাজে লাগবে বলে খবর। এক ব্যাগ প্লাজমার ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘গত সপ্তাহের এক ব্যাগ প্লাজমা। পেপারওয়ার্কসের পর এটা ঠিক দুপুরে ঘুমনোর মতোই সহজ।’

টম হ্যাংকস হলেন প্রথম হলিউড সেলিব্রিটি যাঁর শরীরে প্রথম করোনা ভাইরাসের সন্ধান মেলে। এরপর তাঁর স্ত্রী রিটার শরীরেও প্রাণঘাতী এই ভাইরাস পাওয়া যায়। ওয়ার্নার ব্রাদারস প্রযোজিত গায়ক এলভিস প্রেসলির উপর একটি ছবির কাজের জন্য অস্ট্রেলিয়ার গোল্ড কোস্টে গিয়েছিলেন সস্ত্রীক টম হ্যাংকস। সেখানে চলছিল ছবির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ। সেখানেই হ্যাংকস এবং রিটা অসুস্থ হয়ে পড়েন। জ্বরের পাশাপাশি সারা শরীরে ব্যথাও ছিল। এই পরিস্থিতিতে নিজেরা সতর্ক হয়েই COVID-19 পরীক্ষা করান। ১১ মার্চ করোনা পরীক্ষার পর থেকে অস্ট্রেলিয়াতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন তাঁরা। পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর অভিনেতা নিজেই সার্জিক্যাল মাস্ক, গ্লাভসের ছবিসমেত টুইট করেন। তাঁদের দু’জনকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভরতি করা হয়। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ারই এক প্রান্তিক অঞ্চলের বাড়িতে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন তাঁরা। সম্প্রতি সুস্থ হয়ে তাঁরা দেশে ফেরেন। তারপর প্লাজমা থেরাপির সাফল্যের কথা সামনে আসার পরই নিজেদের প্লাজমা দান করার জন্য উৎসাহ প্রকাশ করেন টম হ্যাংকস ও রিটা উইলসন।

[ আরও পড়ুন: ‘আমি হারাইনি, সবদিক থেকে ওকে পেয়েছি’, ইরফানের মৃত্যুতে আবেগঘন পোস্ট স্ত্রী সুতপার ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement