BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের অস্ত্রোপচারের জন্য তৈরি চিকিৎসকরা, শীঘ্রই হবে প্লাজমাফেরেসিসও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 10, 2020 8:34 pm|    Updated: November 10, 2020 8:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগের মতোই আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee)। তাঁকে সুস্থ করতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন বেলভিউ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। বুধবার অর্থাৎ আগামিকালই তাঁর ট্র্যাকিওস্টমি করা হবে। তাঁর জন্য সবরকম অগ্রিম সতর্কতা ও প্রস্তুতি নিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তাঁদের আশা, এই অস্ত্রোপচারের পরই সুস্থ হয়ে ওঠার দিকে পা বাড়াবেন বর্ষীয়াণ অভিনেতা।

সোমবার প্রবীণ অভিনেতাকে বেলভিউ হাসপাতালে দেখতে আসেন রাজ্য সরকারের তরফে চিকিৎসকদের একটি দল। রাজ্য সরকারের পরামর্শে তৈরি সেই টিম দেখে যাওয়ার পরই সিদ্ধান্ত হয় বুধবার ট্র্যাকিওস্টমি করা হবে প্রবীণ অভিনেতার। আর এদিন বেলভিউ হাসপাতালের পক্ষ থেকে ডা. অরিন্দম কর মেডিক্যাল বুলেটিনে জানালেন, ফুসফুস স্বাভাবিকভাবে কাজ না করায় নিয়মিত ডায়ালিসিস করতে হচ্ছে সৌমিত্র বাবুর। প্লাজমাফেরেসিস করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্লেটলেট কাউন্ট নিয়ে একটা সমস্যা হয়েছিল। সেই বিষয়টা খানিকটা স্বাভাবিক হলেই প্লাজমাফেরেসিস করা হবে।

[আরও পড়ুন: ‘যে সিনেমা হলে ‘RRR’ দেখানো হলে তা পুড়িয়ে দেওয়া হবে’, হুমকি বিজেপি সাংসদের]

তাঁর কথায়, “আশা করছি, শীঘ্রই প্লাজমাফেরেসিসের জন্য প্রস্তুত হওয়া সম্ভব হবে। আর বুধবার সকাল কিংবা দুপুরের মধ্যেই ট্র্যাকিওস্টমি হবে। এই অস্ত্রোপচারের জন্য যা যা অগ্রিম সতর্কতা প্রয়োজন, সবই আমাদের তরফে নেওয়া হয়েছে। প্রতিটা সিদ্ধান্তই পরিবারের সঙ্গে আলোচনার পর নেওয়া হয়েছে। তাঁদের প্রতি মুহূর্তে সৌমিত্রবাবু শারীরিক পরিস্থিতির আপডেট দেওয়া হচ্ছে। তাঁরাও আমাদের উপর অগাধ ভরসা রেখেছেন। যে কোনও প্রয়োজনে পাশে থেকেছেন। তাই মন থেকে তাঁদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।”

গত ৬ অক্টোবর শহরের বেলভিউ হাসপাতালে ভরতি হন। তারপর ১৪ অক্টোবর অভিনেতার কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। কিন্তু কোভিড এনসেফেলোপ্যাথির কারণে তাঁর স্নায়ু পদ্ধতিতে প্রভাব পড়েছে। অচৈতন্য অবস্থায় রয়েছেন তিনি। গত ১৪ দিন ধরে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্বাস্থ্যের অবস্থা ক্রমশই অবনতির দিকে। অভিনেতার চেতনা এখনও নিস্তেজ। শেষ কয়েকদিন তিনি কিছু সময়ের জন্য নিজের চোখ খোলার চেষ্টা করেছিলেন। টানা ৩৬ দিন ধরে বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ‘ফেলুদা’। তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে অনুরাগীদের উদ্বেগ বেড়েই চলেছে। তবে প্রার্থনা একটাই। সমস্ত প্রতিকূলতা কাটিয়ে যেন চ্যাম্পিয়নের মতোই ঘুরে দাঁড়ান তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘অর্ণব জামিন না পাওয়ায় যারা উল্লসিত তারাও ফ্যাসিস্ট’, বিস্ফোরক টুইট সোনা মহাপাত্রর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement