BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আপনি হিপোক্রিট’! রিয়ার সমর্থনে মুখ খুলে নেটজনতার রোষানলে বিদ্যা বালান

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 2, 2020 2:57 pm|    Updated: September 2, 2020 2:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগেই ‘শকুন্তলা দেবী’র চরিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হয়েছিলেন। এবার সুশান্ত ইস্যুতে রিয়া চক্রবর্তীর (Rhea Chakraborty) পাশে দাঁড়িয়ে নেটদুনিয়ার একাংশের রোষানলে পড়লেন বিদ্যা বালান (Vidya Balan)। একের পর এক ট্রোলের শিকার বলিউড অভিনেত্রী।

সোমবার তেলুগু অভিনেত্রী লক্ষ্মী মানচু টুইটে লিখেছিলেন, “রিয়া এবং সুশান্ত (Sushant Singh Rajput) দুজনের জন্যই সুবিচার চাওয়া উচিত। রিয়ার এই পরিস্থিতিতে ইন্ডাস্ট্রির অন্যান্য সহকর্মীদের তাঁর পাশে দাঁড়ানো উচিত। যেভাবে রিয়ার জীবন কঠিন হয়ে উঠছে তাতে তাঁর পাশে থাকাটা আমাদের কর্তব্য বলে মনে করি।” মিডিয়া ট্রায়ালের নাম করে রিয়াকে নিগ্রহ করার অভিযোগও তোলেন লক্ষ্মী। তাঁর এই টুইটকে সমর্থন করে মিডিয়াকে ‘সার্কাস’ বলে কটাক্ষ করেন তাপসী পান্নু। টুইট শেয়ার করে রিয়ার পাশে দাঁড়ান বিদ্যাও। বলেন, ‘যতক্ষণ না কারও দোষ প্রমাণিত হচ্ছে। ততক্ষণ কাউকে দোষী সাব্যস্ত করা যায় না।’

[আরও পড়ুন: সুশান্ত মামলায় গ্রেপ্তারির পালা শুরু, রিয়ার ভাইকে মাদক সরবরাহের অভিযোগে ধৃত ২]

বিদ্যার এই টুইটের পরই তাঁর বিরুদ্ধে একপ্রকার শাসিয়ে ওঠেন নেটজনতার একাংশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন অনেকে। কেউ তাঁর এই পদক্ষেপকে ‘লজ্জাজনক’ আখ্যা দিয়েছেন, কেউ বা আবার বিদ্যাকে ‘হিপোক্রিট’ বলেও কটাক্ষ করে প্রশ্ন তুলেছেন যে, “যখন সুশান্তের জন্য তাঁর পরিবার কাঁদছিল, তখন আপনার আপনি কোথায় ছিলেন?”

আর পরোক্ষভাবেই নেটজনতার একাংশের ট্রোলের জবাব দিয়েছেন বিদ্যা। শেয়ার করেছেন ‘অমর প্রেম’ সিনেমা ‘কুছ তো লোগ কহেঙ্গে গানটি।’

[আরও পড়ুন: ৮ ঘণ্টা ম্যারাথন জেরার পরও সন্তুষ্ট নয় CBI, ফের তলব রিয়ার মা-বাবা ও সিদ্ধার্থ পিঠানিকে]

এরই মধ্যে কঙ্গনা রানাউতকে টুইটারে একহাত নিলেন রবিনা ট্যান্ডন। আইনজীবী মহেশ জেঠমালানির টুইট শেয়ার করে রবিনা লেখেন, ”গোটা বিশ্বে শতকরা ৯৯ শতাংশ বিচারক, আইনজীবী, রাজনীতিবিদ, সরকারি আধিকারিক, পুলিশ দুর্নীতিগ্রস্ত। এমন বক্তব্য সকলের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। সাধারণ মানুষ যথেষ্ট বোধবুদ্ধি সম্পন্ন। তাঁরা ভাল আর মন্দের তফাৎ জানেন। কয়েকটা পচে যাওয়া আপেলের জন্যে বাক্সের সমস্ত আপেলকে খারাপ বলা যায় না। তেমনই আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতেও ভাল এবং খারাপ দু’রকমই মানুষ আছেন।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement