BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবির পরিচালকের অফিসে হামলা! ম্যানেজারকে আক্রমণ দুষ্কৃতীর

Published by: Akash Misra |    Posted: March 25, 2022 1:17 pm|    Updated: March 25, 2022 3:55 pm

Vivek Agnihotri reveals two men entered his office and pushed his manager | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাণনাশের হুমকি ফোন আগেই পেয়েছেন ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ (The Kashmir Files) ছবির পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী। সেই কারণেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে ‘ওয়াই’ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে তাঁকে। কিন্তু তার আগেই বিবেকের অফিসে হামলা চালিয়ে ছিল অজ্ঞাত পরিচয় দুই ব্যক্তি। এতদিন এই নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু না বললেও, সম্প্রতি এক সংবাদ মাধ্যমে এই হামলা নিয়ে মুখ খুললেন বিবেক। স্পষ্টই জানালেন, ”দ্য কাশ্মীর ফাইলস ছবির মুক্তির পর বার বার নানা অপ্রীতিকর ঘটনার মুখে পড়েছি।”

বিবেক অগ্নিহোত্রীর কথায়, ”কয়েকদিন আগে হঠাৎ করে দুটো লোক আমার অফিসের ভিতর ঢুকে আসে, যখন আমি আর আমার বউ অফিসে ছিলাম না। তখন শুধু ম্যানেজার ছিলেন, একজন মধ্যবয়সী মহিলা। তাঁদের ঠেলে অফিসের ভিতর ঢুকে আসে দুষ্কৃতীরা। মাটিতে পড়েও যান তিনি। আমার ব্যাপারে প্রশ্ন করে ওরা অফিস থেকে বেরিয়ে যায়। আমি কখনও এই ব্যাপারটা নিয়ে কথা বলিনি কারণ আমি চাইনি এটা খবরে আসুক। আমি তো নিরাপত্তারক্ষীও নিতে চাইনি। কিন্তু একজন পরিচালকের সঙ্গে এরকমটা হওয়া উচিত নয়।”

[আরও পড়ুন: ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ দেখতে গেলে লাগবে না ভাড়া! অটো চালকের কীর্তি ভাইরাল]

ইতিমধ্যে বক্স অফিসে ২০০ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলেছে এই ছবি। ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবির প্রশংসায় পঞ্চমুখ গোটা বলিউড। নামজাদা তারকারা এই ছবির ভূয়শী প্রশংসা করেছেন। সম্প্রতি এই দেশের প্রত্যেকটি মানুষকে এই ছবি দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন আমির খান। আমির জানান, ”কাশ্মীরি পণ্ডিতদের সঙ্গে যা হয়েছে তা সত্যিই খুব দুঃখের। এই ঘটনা ভারতীয় ইতিহাসের হৃদয়বিদারক একটা অংশ। যা গভীর ক্ষতের জন্ম দিয়েছে। আমার মনে হয়, এমন একটি বিষয় নিয়ে ছবি হওয়া উচিত ছিল। এই ছবির গোটা টিমকে শুভেচ্ছা।”

অন্যদিকে, ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ নিয়ে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বলিউড অভিনেতা নানা পাটেকর। ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমা প্রসঙ্গে তাঁর মতামত জানতে চান সাংবাদিকরা। উত্তর দিতে গিয়ে অভিনেতা জানান, হিন্দু ও মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ এই ভারতেরই বাসিন্দা। দুই সম্প্রদায়েরই শান্তিতে থাকা উচিত। একে অন্যকে প্রয়োজন। পরস্পরকে ছাড়া থাকতে পারবেনও না। কোনও একটি ছবির জন্য বিভাজনের পরিস্থিতি তৈরি হওয়া ঠিক নয়। সকলেই যেন শান্তিতে থাকেন। এমন ছবির মাধ্যমে যাঁরা সেই চেষ্টা করছেন, তাঁদের কাছে জবাব চাওয়া উচিত। জানানো উচিত, এমনটা করলে সমাজ টুকরো টুকরো হয়ে যাবে।

[আরও পড়ুন: ২০০ কোটির ক্লাবে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’, জানেন কত পারিশ্রমিক নিয়েছেন অনুপম খের ও মিঠুন? ]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে