BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দুর্দান্ত ফিগার ধরে রাখবেন কী করে? যোগা দিবসের আগে টিপস শিল্পার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 20, 2019 8:45 pm|    Updated: June 20, 2019 8:45 pm

An Images

জিলিপি-পরোটা চুটিয়ে খান। তবু দুর্দান্ত ফিগার ধরে রেখেছেন। স্রেফ যোগা করে। আন্তর্জাতিক যোগা দিবসের আগে শিল্পা শেট্টি কুন্দ্রা-র ফিটনেস মন্ত্র শুনলেন অহনা ভট্টাচার্য।

আপনি এখন দেশের যোগা আইকন। আপনাকে দেখে কত মানুষ উদ্বুদ্ধ হন। কেমন লাগে?
শিল্পা: আমার শুধু মনে হয়, আমাদের দেশের মানুষের যোগা সম্বন্ধে অনেক কিছু জানা বাকি আছে। আমাদের দেশে যোগার কদর বড্ড কম। অথচ বিদেশে দেখুন, ওরা ফিট থাকার জন্যে কীভাবে যোগাকে কাজে লাগাচ্ছে। ভাববেন না যে আন্তর্জাতিক যোগা দিবস উপলক্ষে আমি এসব কথা বলছি। প্রত্যেকদিনই আমি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যোগা নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা করি।

আপনাকে দেখে সত্যি মনে হয় বয়স একটা সংখ্যামাত্র। ৪৪-এও মনে হয় আপনার বয়স ২৫। রহস্যটা কী?
শিল্পা: (হাসি) রহস্য একটাই, যোগা। নিয়মিত যোগা করলে শরীরে বয়সের ছাপ পড়বে না, উলটে আপনাকে আরও তরুণ দেখাবে। তবে শরীর ভাল রাখাটা যোগার মাত্র একটা দিক। এটা মানসিক স্বাস্থ্যেরও যেভাবে উন্নতি করে, দেখার মতো। কিন্তু শর্ত একটাই, আপনাকে নিয়মিত যোগা চালিয়ে যেতে হবে। মাঝপথে ছেড়ে দিলে চলবে না।

যোগা করার ফলে আপনার মধ্যে কী কী পরিবর্তন এসেছে?
শিল্পা: নিয়মিত যোগা করার ফলে এখন আমার এনার্জি অনেক বেশি। আমার চিন্তাভাবনা অনেক ইতিবাচক। যোগা আমার মন পরিষ্কার রাখে। এখন আমার মাথা আগের চেয়ে অনেক বেশি ঠান্ডা। আমি যে পেশায় আছি, এতদিনে তো আমার ফুরিয়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু যোগা আমাকে ফিট থাকতে সাহায্য করে। গত এগারো বছর আমি কোনও ছবি করিনি। কিন্তু আমি মনে করি আমি এখনও ফুরিয়ে যাইনি, থ্যাঙ্কস টু যোগা!

কাজে ফেরার কথা ভাবছেন?
শিল্পা: আমার টেবিলে এই মুহূর্তে পাঁচটা স্ক্রিপ্ট পড়ে আছে। যেটা ভাল লাগবে, করব।

এত এক্সারসাইজের মধ্যে যোগা কেন বেছে নিলেন?
শিল্পা: প্রথমে শুরু করেছিলাম ঘাড়ের ব্যথা সারাতে। তারপর দেখলাম দেশে বিদেশে ট্র‌্যাভেল করতে হলে রেগুলার জিম করার চেয়ে যোগা করা বেশি সুবিধে। যেখানেই যান না কেন, সঙ্গে শুধু যোগা ম্যাটটা নিয়ে গেলেই হল। তারপর এটাতেই অভ্যস্ত হয়ে যাই। ম্যাট না নিয়ে গেলেও চলে। বেশির ভাগ আসন তো ঘরের মেঝেয় বসেই করা যায়। বা খোলা আকাশের নীচে ঘাসের ওপর, যেমন পার্কে বা বাগানে। সেটাই আমি বেশি পছন্দ করি। এখন অ্যাডভান্সড যোগা শিখছি। সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন ৪৫ মিনিট করে প্র‌্যাকটিস করি।

[ আরও পড়ুন: ‘কৃষ্ণকলি’ শেষ হয়ে যাক ভাবতেই চাই না: তিয়াশা ]

যোগা ছাড়া ফিটনেসের জন্য আর কী কী করেন?
শিল্পা: ফাংশনাল, ওয়েট ট্রেনিং, এগুলো করি। রাতে শুতে যাওয়ার আগে ধ্যান করি।

আপনার ছেলে যোগা করে?
শিল্পা: ভিয়ানের যোগা ট্রেনিং চালু করে দিয়েছি।

সদ্য আপনি নিজের অ্যাপ চালু করেছেন। হঠাৎ এই ভাবনা মাথায় এল কেন?
শিল্পা: আমাদের দেশের মানুষ স্বাস্থ্য ও ফিটনেস নিয়ে মোটেই সচেতন নয়। সচেতনতা বাড়াতেই আমার এই উদ্যোগ।

আর পাঁচটা ফিটনেস অ্যাপের চেয়ে আপনারটা আলাদা কীসে?
শিল্পা: এটাই আমাদের দেশে প্রথম কোনও সেলিব্রিটির চালু করা ফিটনেস অ্যাপ। ইতিমধ্যেই ১১৬টা দেশে আমার অ্যাপ চালু করা হয়েছে। আমার বেশিরভাগ গ্রাহক আমেরিকা, কানাডা এবং ইউকে থেকে।

(কথা বলতে বলতে চা আর পরোটা এল। শিল্পা প্লেটটা নিজের সামনে টেবিলে রেখে বললেন, জানেন তো যোগা ছাড়াও আরেকটা জিনিস আমাকে চালায়, তা হল চা।)

আপনি সারা দিনে কী কী খান?
শিল্পা: (চায়ের কাপে পরোটা ডুবিয়ে এক কামড় দিয়ে) আমি রোজ বিকেলে চায়ের সঙ্গে একটা করে ঘিয়ে ভাজা পরোটা খাই। আসলে আমি খুব মধ্যবিত্ত ঘরের মেয়ে, চা-পরোটা ছাড়া বাঁচতে পারব না। শুধু একটাই তফাত, এই পরোটাটা খাপলি আটার তৈরি, যে আটায় ভুসি থাকে। বাকিটা জানতে হলে আমার বই পড়ুন, ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান ডায়েট’।

রাতের খাবার কখন খান?
শিল্পা: সন্ধে সাড়ে সাতটায়। তারপর আর কিছু খাই না। তবে রবিবারটা বাদ দিয়ে। ওইদিন আমি কোনও নিয়ম বা ডায়েট মানি না। পেট ভরে মিষ্টি খাই। ওটা আমার ‘চিট ডে’।

কোন মিষ্টি আপনার সবচেয়ে প্রিয়?
শিল্পা: আমি গরম জিলিপি খেতে খুব ভালবাসি। একদম মুচমুচে, সবে ভাজা জিলিপি। এ ছাড়া মালাই কুলফির মধ্যে গরম গুলাবজামুন দিয়ে খেতে ভালবাসি।

[ আরও পড়ুন: টাইট জিনস নয়, মেকআপ হোক ন্যাচরাল- গরমে সাজগোজের টিপস দিলেন বিশেষজ্ঞরা ]

এখন তো মুম্বইয়ে রোজ বৃষ্টি হচ্ছে। এরকম দিনে কী খেতে সবচেয়ে ইচ্ছে করে?
শিল্পা: পেঁয়াজি! আমাদের বাড়িতে আসলে সব জিনিসের পকোড়া বানানো হয়। যেমন জোয়ানের পাতার পকোড়া। খেয়েছেন কখনও? অপূর্ব স্বাদ! এ ছাড়াও ভিন্ডির পকোড়া, ফুলকপির পকোড়া আর পালংশাকের পকোড়া আমার বড্ড প্রিয়! লোকে ভাবে আমি বোধহয় শুধুই ডায়েট করি, ভাজাভুজি খাই না। একদম ভুল ভাবে। 

এমন কোনও খাবার যেটা এড়িয়ে চলেন?
শিল্পা: চিনি। তার বদলে আমি কোকোনাট সুগার খাই, যেটা চিনির মতোই খেতে কিন্তু স্বাস্থ্যের পক্ষে হানিকারক নয়।

আন্তর্জাতিক যোগা দিবসে আপনার ভক্তদের কী বার্তা দিতে চান?
শিল্পা: যত তাড়াতাড়ি সম্ভব যোগা করতে শুরু করুন। ভাবনাচিন্তা করে সময় নষ্ট না করে জাস্ট শুরু করে দিন। মনে রাখবেন, আপনার শরীর-স্বাস্থ্য ভাল রাখাটা আপনারই হাতে। আর অতি অবশ্যই আমার অ্যাপটা ডাউনলোড করুন।

শিল্পার ফিটনেস চার্ট

  • সপ্তাহে তিন-চার দিন ৪৫ মিনিট যোগা
  • ফাংশনাল আর ওয়েট ট্রেনিং
  • রাতে শুতে যাওয়ার আগে মেডিটেশন
  • সাধারণ আটার বদলে ভুসি-সমৃদ্ধ খাপলি আটার পরোটা
  • চিনি নয়, কোকোনাট সুগার
  • ডিনার সন্ধে সাড়ে সাতটায়। তারপর আর খাওয়া নয়
  • রবিবার ‘চিট ডে’-তে যা খুশি খাওয়া

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement