১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বিয়ের কার্ডে লেখা ‘নো গিফট প্লিজ’। অথচ খালি হাতে যেতে আপনার মন মানছে না। কী করবেন? ফ্লোরিস্ট সুরজিৎ নন্দী পরামর্শ দিলেন শ্যামশ্রী সাহাকে।

  • বিয়ে বা রিসেপশনে গিফট হিসাবে যদি ফুল দিতে হয়, তাহলে সতেজ ফুলই দেওয়া উচিত। আমাদের দেশের ওয়েদারে ফ্রেশ ফ্লাওয়ার তো সবসময়ই পাওয়া যায়।
  • যেখানে বিয়েতে বা রিসেপশনে অন্য কোনও গিফট না, শুধু ফুলই দিতে হবে সেখানে একটু ভাবনা-চিন্তা করা দরকার।
  • উপহার হিসাবে সতেজ ফুলের মধ্যে গোলাপ এখনও সবার আগে। বিয়ে মানেই লাল গোলাপ। তবে এর সঙ্গে গোলাপি ও হলুদ গোলাপের বোকেও দেওয়া যায়। আবার দু’টো শেডের গোলাপি গোলাপ দিয়েও একটা বোকে বানানো যেতে পারে।
  • গোলাপের সঙ্গে অন্যরকম ফুল না মেশানোই ভাল। অনেকরকম ফুলের বোকের চল একদম নেই। যাঁরা ডিজাইনার, তাঁরা একটা বোকেতে এক রংয়ের গোলাপ পছন্দ করবেন।
  • যদি কেউ দামি বোকে গিফট করতে চান, তাহলেও গোলাপ নিতে পারেন। এক্সপোর্ট কোয়ালিটির কিছু গোলাপ আছে যেগুলো ব্যাঙ্গালোর থেকে আসে সেই ধরনের গোলাপ বোকেতে অ্যাড করে নিতে পারেন।
  • আরও দামি বোকে চাইলে অর্কিড দিতে পারেন।

অদম্য সাংবাদিকের গল্প ফুটে উঠল ‘আ প্রাইভেট ওয়ার’-এর পর্দায়  ]

  • এছাড়া লিলি, জারবেরা, এলিকেশন, ডেভি বিয়েতে বা রিসেপশনে গিফট হিসাবে দেওয়া যায়।
  • কারনেশনও দিতে পারেন, তবে কারনেশন সব সিজনে পাওয়া যায় না।
  • অর্কিড একটু এক্সপেনসিভ কিন্তু এখন অনেকেই অর্কিড দিচ্ছেন, কেননা অর্কিড মানেই বেশ অন্যরকম।
  • এখনও মধ্যবিত্ত বা উচ্চবিত্ত সবাই বিয়ের আসরে বা রিসেপশনে গোলাপ ফুলই বেছে নেন। জারবেরা একটু দামি। তাই সবাই নিতে পারেন না। তাই অনেক সময় প্লাস্টিকের জারবেরা দিয়ে বিয়ে বা রিসেপশনে গেট সাজানো হয়।
  • তবে বাজেট যদি কম হয় গাঁদা বা রজনীগন্ধা ব্যবহার করা যেতে পারে।
  • চায়না বা ইন্দোনেশিয়া থেকে কিছু ড্রাই ফ্লাওয়ার আসে, সেগুলো বিয়েতে লাগে না। হোম ডেকোরেশনে লাগে।
  • সাধারণত ৫০০ টাকা থেকে বোকের দাম শুরু। তবে ১০০০০ টাকারও বোকে আছে।
  • অর্কিডের বোকের দাম একটু বেশি, ১০০০ টাকা থেকে শুরু।

অনেকেই চান তাঁর গিফট করা বোকে যেন বেশ কয়েকদিন রেখে দেওয়া যায়। সেক্ষেত্রে ড্রাই ফ্লাওয়ারের বোকে বেস্ট অপশন। ইউরোপ-ইউএসের ওয়েদারে ফ্রেশ ফ্লাওয়ার সবসময় পাওয়া যায় না। তাই যে কোনও অকেশনে ড্রাই ফ্লাওয়ার বোকেই গিফট হিসাবে দেওয়া হয়। কিন্তু এদেশে ড্রাই ফ্লাওয়ারের বোকে অতটাও পপুলার নয়। তবে আর কিছুদিনের মধ্যেই বিয়ের গিফটে জায়গা করে নেবে। কারণ এটি ইকো-ফ্রেন্ডলি। কোনও প্লাস্টিক ব্যবহার করা হয় না। এবং অর্গানিক। ড্রাই ফ্লাওয়ার বোকে দেখতেও খুব সুন্দর আর অনেকদিন বাড়িতে সাজিয়ে রাখা যায়।

‘মানুষটার রুচির সঙ্গে কথাগুলো মেলাতে পারছি না’, অরিন্দম প্রসঙ্গে বিস্ফোরক জয়া  ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং