১৯ চৈত্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

নগ্নতা পেরিয়ে আত্মার সন্ধান, ‘ন্যুড’ ট্রেলারে সংগ্রামের নিশান

Published by: Sangbad Pratidin |    Posted: March 27, 2018 6:41 pm|    Updated: July 20, 2019 1:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিরাবরণ মাত্রই নগ্নতা। নগ্নতা মাত্রই অশ্লীল। এহেন সরল সমীকরণের পাথর সমাজের বুকে দীর্ঘদিন জাঁকিয়ে বসে আছে। বলে সুস্থতার শ্বাসরোধ। সৌন্দর্য পর্দানশীন। এ দ্বন্দ্ব আজকের নয়। নগ্নতা ও অশালীনতার মধ্যবর্তী ধূসর জমিতে বহু সৃষ্টিরই জলাঞ্জলি হয়। কিন্তু এই নন্দনচিন্তার বাইরে নগ্নতাকে জীবিকা অর্জনের পটভূমিতে এনে ফেলে চমকে দিয়েছিলেন পরিচালক রবি যাদভ। তাঁর ‘ন্যুড’ ছবির ট্রেলারে দেখা গেল নগ্নতা এখানে সংগ্রামেরই নিশান হয়েই ধরা দিয়েছে।

এ ছবি নিয়ে বিতর্ক বিস্তর হয়েছে। শুধু নামের কারণেই ছবিটি গোয়া চলচ্চিত্র উৎসব থেকে বাদ পড়েছিল। নীতিপুলিশির সেই নমুনায় বিরক্ত হয়েছিলেন সিনেপ্রেমীরা। এরপর কাহিনি চুরির অভিযোগও উঠেছিল পরিচালকের বিরুদ্ধে। সে সব আপাতত অতীত। প্রতিকূলতা পেরিয়ে অবশেষে মুক্তি পেয়েছে ছবির ট্রেলার। আর ফ্রেমে ফ্রেমে বহু ব্যঞ্জনার পরতে মূর্ত হয়েছে নগ্নতার নানা ভাষ্য।

[  এ কী চেহারা! ‘হাড় জিরজিরে’ করিনাকে দেখে আঁতকে উঠলেন নেটিজেনরা ]

আপাতভাবে এ কাহিনি যমুনার। স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে তাঁর সংসার। এরপর স্বামীর প্রতারণা। সন্তান নিয়ে যমুনার মহারাষ্ট্রে চলে আসা। এক আত্মীয়ার বাড়িতে আশ্রয়। সেই আত্মীয়া আর্ট কলেজে ন্যুড মডেল হিসেবে কাজ করেন। একদিন তা আবিষ্কার করে চমকে ওঠেন যমুনা। কিন্তু ঘটনার ফেরে একদিন তিনি নিজেও সে কাজ করতে যান। কাহিনি সংক্ষেপে এরকমই। কিন্তু এই আখ্যান পেরিয়ে নগ্নতাকে আশ্রয় করেও একাধিক প্রসঙ্গ ছুঁয়ে যান পরিচালক। একদিকে নগ্ন মডেল হিসেবে যাঁরা কাজ করেন, তাঁদের বঞ্চিত জীবন এ ছবির উপপাদ্য। যাঁদের শরীরকে ভিত্তি করেই শিল্পীর কল্পনা রং-তুলির আশ্রয় খুঁজে পায়, তাঁদের জীবনটা কিন্তু কল্পনার কুসুমাস্তীর্ণ নয়। তাঁদের কাছে নগ্নতার নন্দনতত্ত্বের থেকেও বড় উপার্জন। অর্থাৎ জীবন সংগ্রামের সঙ্গে সরাসরি সংযোগ হচ্ছে নগ্নতার। এখান থেকেই অন্য মাত্রা পায় ছবিটি। ট্রেলারে তার পুরোদস্তুর ইঙ্গিতই দিয়ে রেখেছেন পরিচালক।

 মূর্তি ভাঙার রাজনীতিকে পিছনে ফেলে এবার পর্দায় ‘ভারত কেশরী’ শ্যামাপ্রসাদ ]

আর নগ্নতাই বা কোনটা? পরিচালক নাসিরুদ্দিন শাহের মুখে শুরুতেই একটি সংলাপ রেখেছেন। কাপড় শরীরকে ঢাকে, আত্মাকে নয়। প্রকৃত শিল্পী শরীর অতিক্রম করে সেই আত্মাকেই খোঁজেন। এখন কোনও নারী যদি, আত্মায় অপমানিত হন, তাও কি নগ্নতারই নামান্তর নয়? যখন তাঁর স্বামী তাঁকে প্রতারিত করেন, যন্ত্রণায় যখন সাধের মঙ্গলসূত্র ছিন্ন করতে হয়, সেও তো একরকম নগ্ন হয়ে পড়াই। বরং যে নগ্নতা তাঁকে লড়াইয়ের জমি দেয়, ক্ষমতা দেয়, ছেলের পড়াশোনার পাথেয় হয়ে ওঠে, তার থেকে বড় আব্রু আর কী হতে পারে! ফ্রেমে ফ্রেমে এই ভাবনাগুলি বুনে রেখেছেন পরিচালক। ইতিমধ্যে বিদেশে এ ছবি সমাদৃত হয়েছে। ছবির মুক্তি ২৭ এপ্রিল।

Advertisement

Advertisement

Advertisement