BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়াবেন না, আরজি জাভেদ আখতারের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 29, 2018 7:47 pm|    Updated: March 29, 2018 7:47 pm

 Dont try to inject communal bias in film industry: Javed Akhtar

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়াবেন না। এই জায়গা ধর্ম নিরপেক্ষতার মঞ্চ। এক টুইটবার্তায় এভাবেই ধর্মান্ধদের হুঁশিয়ারি দিলেন বলিউডের বর্ষীয়ান লেখক জাভেদ আখতার।

মহাভারতকে সেলুলয়েডে আনার পরিকল্পনা চলছে বলিউডে। যেখানে কৃষ্ণের চরিত্রে দেখা যাবে বি-টাউনের পারফেকশনিস্ট আমির খানকে। এই বিষয়টিকেই কেন্দ্র করে উঠেছে প্রশ্ন। এদেশে বসবাসকারী ফরাসী সাংবাদিক ফ্রাসোঁয়া গ্যোতিয়ের প্রশ্ন তুলেছেন। আমির খান কি কৃষ্ণ চরিত্রে অভিনয় করতে পারবেন ? মূলত বলিউডের ‘গজনী’-র ধর্মীয় পরিচয়কে মাথায় রেখেই এহেন প্রশ্ন করেছেন ফরাসী সাংবাদিক। তাতেই ক্ষিপ্ত হয়েছেন ৭৩ বছরের গীতিকার।

[উজবেকিস্তানে ‘হইচই’ বাঁধাতে তৈরি দেব-মিমি]

ওই সাংবাদিকের নাম না করেই জাভেদ আখতার বলেন, ৫৩ বছর ধরে তিনি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে রয়েছেন। অন্তত সিনেমা মাধ্যমে কখনও বিদ্বেষের বাষ্প জমেনি। সেই পরম্পরা অক্ষুণ্ণ রাখতে মানুষের কাছে অনুরোধও রেখেছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘১৯৬৫ সালে এই ইন্ডাস্ট্রিতে আমি আসি। তখন আমার মাসিক বেতন ছিল ৫০ টাকা। এই ৫৩ বছরে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বাইরে আমার দ্বিতীয় কোনও অভিজ্ঞতা নেই। এতগুলো বছরে এখানে কোনও সাম্প্রদায়িক বিভেদের ছবি আমার চোখে পড়েনি। এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি ধর্ম নিরপেক্ষতার মঞ্চ। ধর্মান্ধরা, এই আবহাওয়া দূষিত করার চেষ্টা করবে না।’

এক টুইটে গ্যোতিয়ের প্রশ্নটি তোলেন, মহাভারতের মতো পবিত্র হিন্দু মহাকাব্যে আমির খানের মতো একজন মুসলিম কেন অভিনয় করছেন ?  মহম্মদের জীবনী নিয়ে ছবি তৈরি হলে মুসলিমরা কি কোনও হিন্দুকে সেই চরিত্রে অভিনয় করতে দেবে ? এই প্রশ্নরে উত্তরেই টুইটটি করেন জাভেদ আখতার। তবে তার আগেই ওই সাংবাদিককে একহাত নেন। বলেন, পিআর মেশিনের মতো আচরণ করবেন না। ভারতীয় সিনেমার ইতিহাস সম্পর্কে কিছুই জানেন না এই সাংবাদিক।

এই সম্পর্কে জাভেদ আখতার আগেই লিখেছেন, ‘১৯৬৫ সালে তৈরি হওয়া সুপারহিট ছবি হল মহাভারত। কেউ কি গ্যোতিয়েরকে কিছু শেখাবে ?  সেই সময় ছবির প্রযোজক ছিলেন গফ্ফারবাই নাদিয়াদওয়ালা। এটা ভারতবর্ষ, যে জন্য আমরা গর্বিত। কেউ কি এ বিষয়ের ব্যাখ্যা দেবেন ওই মূর্খকে?’

উল্লেখ্য, ধর্মীয় অসহিষ্ণুতায় আক্রান্ত গোটা দেশ। যার আঁচ থেকে বাদ যায় না বলিউডও। বিভিন্ন সময় অভিনেতারা অসহিষ্ণুতার শিকার হন। কখনও বা অসহিষ্ণুতা নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে সমালোচনার মুখেও পড়েন। তবে আরব সাগরের নীল জল অতিক্রম করে সেই অসহিষ্ণুতার ছায়া পড়তে পারেনি বি-টাউনে। বিদেশি সাংবাদিকের প্রশ্নে তাই কঠোর হাতে লাগাম ধরেছেন জাভেদ আখতার। ভাল করে বুঝিয়ে দিয়েছেন বলিউডের ধর্মনিরপেক্ষ অবস্থানকে।

[ভুয়ো আধার চক্রে ফাঁসলেন উর্বশী, কী বিপর্যয়ে পড়লেন নায়িকা?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে