১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বড়পর্দার পর এবার ওয়েব সিরিজে নানাবতী মামলা

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 19, 2018 8:34 pm|    Updated: September 19, 2018 8:34 pm

Ekta Kapoor's next web-series State V/s Nanavati

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার নতুন ওয়েব সিরিজ আনতে চলেছেন একতা কাপূর৷ নতুন ওয়েব সিরিজ ‘স্টেট ভার্সেস নানাবতী’৷ এলি আব্রামকে দেখা যাবে নানাবতীর স্ত্রীর চরিত্রে৷ এলির বিপরীতে দেখা যাবে মানব কউলকে৷ ভিরাফই হলেন নানাবতীর স্ত্রী-র প্রেমিক৷ আইনজীবীর ভূমিকায় দেখা যাবে রাম জেঠমালানিকে৷ তবে কবে থেকে এবং কোথায়ই বা এই ওয়েব সিরিজ দেখা যাবে, তা এখনও জানা যায়নি৷

[অনুপ জালোটার সঙ্গে মেয়ের সম্পর্কের কথা জেনে কী প্রতিক্রিয়া বাবার?]

এর আগে নানাবতীর জীবনের ট্র্যাজেডি নিয়ে তৈরি হয়েছিল ‘রুস্তম’৷ ভারতীয় নৌবাহিনীর কমান্ডার কাওয়াশ মানেকশ নানাবতীর জীবনের ট্র্যাজেডিকে অবলম্বন করে তৈরি হয়েছিল ছবিটি। নানাবতীর স্ত্রী সিলভিয়ার জন্ম হয়েছিল ইংল্যান্ডে। দুই ছেলে, এক মেয়েকে নিয়ে তাঁদের সুখের সংসারই ছিল। নানাবতীকে পেশার তাগিদে বহু অ্যাসাইনমেন্টে বিদেশে যেতে হত। ফলে স্ত্রী, সন্তানদের সঙ্গে থাকার সুযোগ কমই পেতেন তিনি। সিলভিয়ার জীবনে একাকীত্ব তৈরি হয়। তাঁর সঙ্গে ক্রমশ ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয় নানাবতীর বন্ধু প্রেম আহুজার। তাঁরা প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। নানাবতীকে ছেড়ে প্রেমকে বিয়ে করার বাসনা ছিল সিলভিয়ার। কিন্তু প্রেম কোনওদিনই সিলভিয়া ও তাঁর সন্তানদের স্বীকৃতি দিয়ে সংসার করতে চাননি। নানাবতী বাড়ি ফেরেন। সিলভিয়াকে কেমন যেন অন্যরকম মনে হয় তাঁর। সেই আগের উচ্ছ্বাস নেই। কেমন যেন ছাড়া-ছাড়া। দূরে দূরে রয়েছেন। তিনি সিলভিয়াকে সোজাসুজি কারণ জিজ্ঞাসা করেন। সিলভিয়া সব খুলে বলেন। প্রেমের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন। নানাবতী সোজা চলে যান প্রেমের কাছে। তাঁকে বলেন, সিলভিয়াকে গ্রহণ করতে। কিন্তু প্রেম নারাজ। তাঁকে গুলি করে হত্যা করেন নানাবতী। নানাবতীর স্ত্রীর বিবাহ-বহির্ভূত প্রেম মর্মান্তিক পরিণতি ডেকে এনেছিল। খুন হয়েছিলেন নানাবতীর স্ত্রীর প্রেমিক। অভিযুক্ত হন নানাবতীই।

[হাঁটুর বয়সী বান্ধবীর সঙ্গে ‘বিগ বস’-এর ঘরে, হাসির খোরাক অনুপ]

নানাবতীর পক্ষ নিয়ে জোর সওয়াল করে লেখালেখি হয় তৎকালীন ব্লিৎজ পত্রিকায়। সেই ট্যাবলয়েডের মালিক ছিলেন আরকে করঞ্জিয়া। তিনি ছিলেন প্রভাবশালী পার্সি। তাঁর কাগজে নানাবতীকে সংসার, পেশার প্রতি একজন দায়বদ্ধ স্বামীকে হিসাবে তুলে ধরা হয়। শেষ পর্যন্ত নানাবতী নির্দোষ প্রমাণিত হন। মামলা থেকে রেহাই পেয়ে পরিবারকে নিয়ে তিনি চলে যান কানাডায়। এই সত্য ঘটনা অবলম্বনে তৈরি হয় ‘রুস্তম’৷ ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন টিনু সুরেশ দেশাই। সেটি ছিল তাঁর প্রথম পরিচালিত সিনেমা। অক্ষয় অভিনীত বেবি-র পরিচালক নীরজ পান্ডে ছিলেন ‘রুস্তম’ ছবির প্রযোজক৷ এই সিনেমার জন্য জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন অক্ষয় কুমার৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে