BREAKING NEWS

১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ 

Advertisement

মন ভাল করা ছবি, সংলাপেই বাজিমাত ‘গুড নিউজ’-এর

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 27, 2019 4:35 pm|    Updated: December 27, 2019 9:46 pm

An Images

বিশাখা পাল: নিজের মধ্যে যখন ক্রমশ বিকশিত হয় একটা ছোট্ট হৃদয়, একটা ছোট্ট মানুষ, তখন কেমন লাগে? সেই অনুভূতির কথা শুধু একজন মা-ই জানেন। সেখানে স্পার্ম কার, সেটা নিতান্ত গৌণ বিষয়। ক্ষুদ্র সেই প্রাণকে প্রত্যক্ষ করার আগে মনের মধ্যে যে দোলাচাল থাকে, তাও কেটে যায়। কিন্তু সেই বীর্য যদি এমন কারও হয় যাকে হবু মা দু’চক্ষে দেখতে পারেন না, তাহলে? ‘গুড নিউজ’ এমনই এক সমস্যা নিয়ে তৈরি।

যৌনতা, নিষেক (fertilization), গর্ভধারণ আর ঘৃণাকে সুন্দরভাবে সাজিয়েছেন পরিচালক রাজ মেহেতা। গল্পের চারটি চরিত্র নিজেদের মতো করে পরিপূর্ণ। তবে করিনা কাপুরকে অতিরিক্ত কৃতিত্ব দিতেই হয়। তেমনই কৃতিত্বের দাবিদার দলজিৎ দোসাঞ্জ। ছবিতে করিনা আর অক্ষয় শিক্ষিত, আধুনিক এক দম্পতির চরিত্রে অভিনয় করেছেন। নাম দীপ্তি ও বরুণ বাত্রা। বহুবছর ধরে চেষ্টা করেও সন্তানসুখ তাদের ভাগ্যে জোটেনি। দীপ্তি অনবরত চেষ্টা করে গেলেও বরুণের সন্তান নিয়ে তেমন চাহিদা নেই। দীপ্তির পাল্লায় পড়ে তাকেও চেষ্টা করতে হয়, এই পর্যন্ত। শেষে ইন-ভিট্রো ফার্টিলাইজেশনের সাহায্য নেয় তারা। এদিকে আরও এক বাত্রা দম্পতিরও (হানি ও মণিকা) একই গল্প। তারাও সন্তানের জন্য ইন-ভিট্রো ফার্টিলাইজেশনের দ্বারস্থ হয়। আর এই ‘বাত্রা’ পদবী হওয়ার জন্যই অদলবদল হয়ে যায় বরুণ ও হানির স্পার্ম।

good-newws-final

[ আরও পড়ুন: অভিনয়ের আলোতেই ‘সাঁঝবাতি’ জ্বালালেন দেব-সৌমিত্র ]

বরুণ নিজের সন্তান মণিকার গর্ভে মেনে নিতে পারে না। কিন্তু হানি বা মণিকার তাতে কোনও আপত্তি নেই। এদিকে দীপ্তি এক কথায় ‘কনফিউজ’। হানির সন্তানের জন্ম দিতে তার দ্বিধা রয়েছে। কিন্তু হাজারও হলেও তার গর্ভেই যে বাড়ছে একটা ছোট্ট প্রাণ। আর এখানেই ‘গুড নিউজ’ এক গূঢ় বার্তা দেয় দর্শকদের। একটি দৃশ্যে দেখা যায় টিসকা চোপড়া করিনাকে বলছেন, ‘এই যে ধূসর ডট দেখছো, এটা তোমার সন্তানের হৃদয়। কাঁপছে।…. এক মুহূর্তের জন্য সব কিছু ভুলে যাও। শুধু এর কথা ভাবো।’ ব্যাস। এই একটা কথাতেই করিনা অ্যাবোশনের ভাবনা একেবারে দূরে সরিয়ে দেন। গল্প এখান থেকেই নতুন মোড় নেয়।

good-news

মন ছুঁয়ে যাওয়া অনেক সংলাপে ভরতি ‘গুড নিউজ’। পরিচালক রাজ মেহেতা তাঁর সহ-চিত্রনাট্যকার জ্যোতি কাপুর ও ঋষভ শর্মার সঙ্গে মিলে শুধু বিনোদনের বেড়াজালে আটকে রাখেননি ছবিটিকে। তবে এদিকেও খেয়াল রেখেছেন যাতে ছবিটি খুব গুরুগম্ভীর না হয়ে যায়। ছবিতে বার্তা যেমন আছে, তেমনই ছবিটি হাস্যরসে ভরপুর। বিশেষ করে অক্ষয় কুমার ও দলজিৎ দোসাঞ্জ এই কাজটা দায়িত্ব নিয়ে করে গিয়েছেন। করিনা নিজের কাজটি মন দিয়ে করেছেন। এক কথায় তিনি অনবদ্য। বাস্তব জীবনে মা বলেই বোধহয় তাঁকে এমন একটি চরিত্র সঁপেছেন পরিচালক। ‘মাতারানির মিরাক্যাল’ নিয়ে চণ্ডীগড়ের বধূর ভূমিকায় কিয়ারা আডবানীও বেশ ভাল। আলাদা করে নজর কেড়েছেন টিসকা চোপড়া। আদিল হুসেনের উপস্থিতি খুব কম সময়ের জন্য আছে ছবিতে। আর সেটুকুতেই তিনি প্রমাণ করেছেন, কমেডিটাও তাঁকে দিয়ে হয়। এক কথায় মন ভাল করে দেওয়া ছবি ‘গুড নিউজ’। এক মুহূর্তের জন্যও বোর লাগবে না।

[ আরও পড়ুন: দাগ কাটল না গল্প, অতিরিক্ত মশলাতেই স্বাদ নষ্ট সলমনের ‘দাবাং থ্রি’র ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement