২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভোটের কাজে ব্যস্ত প্রযোজক দেব, পিছোল অনিকেতের ছবির কাজ

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 10, 2019 6:22 pm|    Updated: April 10, 2019 9:11 pm

Hobu Chandra Raja Gobu Chandra Montri shoot postponed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা ভোটের জন্য পিছিয়ে গেল অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’-র শুটিং। দেবের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থার ব্যানারে তৈরি হচ্ছে এই ছবি। আপাতত টলিপাড়ার অন্দরে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে এই ছবির নাম। কারণটা, কবীর সুমনের ফেসবুক পোস্ট। অনিকেত চট্টোপাধ্যায় এবং প্রযোজক দেবের প্রতি একরাশ মান-অভিমান এবং ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি তাঁর সেই পোস্টে। পরিচালক অনিকেতও বিশেষ বিতর্কে না গিয়ে, এক খোলা চিঠি লিখেছেন নিজের ফেসবুক ওয়ালে। সবমিলিয়ে বর্তমানে ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী‘ মোটমাট চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে সিনেপ্রেমীদের মধ্যে। গত মাসেই মুক্তি পেয়েছে ছবির ফার্স্টলুক। শুটিংও খানিক শুরু হয়ে গিয়েছিল। তবে, পরিচালক আপাতত রাশ টেনেছেন ছবির শুটিংয়ে। কারণ? শোনা গিয়েছে, লোকসভা ভোটের কারণেই নাকি পিছল ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’-র শুটিং।

[আরও পড়ুন:  টাটকা হল ‘বাইশে শ্রাবণ’ ছবির স্মৃতি, সৃজিতকে ক্লিনচিট দিলেন প্রতীম]

এই প্রসঙ্গে জানতে পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তিনি জানান, লোকসভা ভোটের সময় যানবাহন চলাচলটা কমই হয়। তাই আউটডোরে শুটিংয়ের কাজে গাড়ি পেতেও সমস্যা হতে পারে। আর ভোটের মাঝখানে শুট করা, এদিক-ওদিক যাওয়াও ঝক্কির ব্যাপার। তাই পরবর্তী শুটিংয়ের ডেট মে মাসের পরই ঠিক করা হবে। প্রথম ধাপের শুটিং আপাতত শেষ।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, বাকি আর ১৩ দিনের কাজ। এই ছবির প্রযোজক দেব। লোকসভা ভোটে ঘাটাল কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে লড়ছেন তিনি। তা ভোটের প্রাক্কালে প্রচারের কাজে এবং আরও ভিন্ন কাজে তিনি যে ব্যস্ত থাকবেন, সেটা বলাই বাহুল্য। এই ছবিতে অভিনয় না করলেও, প্রযোজক হিসেবে ফ্লোরে থাকাটাও জরুরি দেবের। কিন্তু, ভোটের কাজে ব্যস্ত থাকায় তিনি নাকি সেই সময়টা দিতে পারছেন না শুটিংয়ে। অগত্যা, পিছতে হয়েছে ছবির কাজ, এমনটাই শোনা গিয়েছে ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবরে। পরিচালক জানান, ভোটের সময়ে কেউই ঠিক শুট করতে চান না। এসময় কড়া নিরাপত্তা থাকে চারিদিকে। আর এ অবস্থায় কোথাও স্বস্তি করে শুটিং করাও একপ্রকার দায়। তাই ছবির বাকি কাজটা লোকসভা ভোটের ফলের পরই হবে।

ছবির প্রথম ধাপের বেশিরভাগ শুটিং-ই হয়েছে কলকাতায়। তবে, চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে শিডিউলে জঙ্গল এবং সমুদ্র সৈকতও রাখা হয়েছে। এই অংশের শুটিং হবে পশ্চিমবঙ্গের কোনও সমুদ্রোপকূলবর্তী অঞ্চলে এবং ঝাড়খণ্ডের জঙ্গলে। দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদারের কাহিনি অবলম্বনে লেখা হয়েছে ‘হবুচন্দ্র রাজা গবুচন্দ্র মন্ত্রী’-র চিত্রনাট্য। প্রসঙ্গত, ছবিতে প্রথমটায় দেব-রুক্মিনীর অভিনয় করার কথা ছিল। কিন্তু, পরে ছবির কাস্টিং পরিবর্তন করা হয়। এখন ছবিতে অভিনয়ে রয়েছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়, খরাজ মুখোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন:  রাজধানীতে বাইকে চড়ে ঘুরছেন বিক্রান্ত-দীপিকা, ভাইরাল ভিডিও]

কবীর সুমন রেকর্ডিংয়ের সময়ে বাচ্চাদের জন্য যথাযথ আয়োজন না করার কথাও উল্লেখ করেছিলেন। কবীর সুমনের এই অভিযোগ প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, “আমার মনে হয় না ওনার প্রতিটা কথার প্রত্যুত্তর করা দরকার। ওনার মনে হয়েছে, টাকাটা চুকানো হোক, সেটা আমরা চুকিয়ে দিয়েছি। ছবির জন্য যে গানগুলো দরকার ছিল, আমরা সবই পেয়ে গিয়েছি ওনার কাছ থেকে। একটু সময় যাক, হয়তো ব্যাপারটা ঠিক হয়ে যাবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে