১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অক্ষয় কুমার অভিনীত ছবি ‘কেশরি’ মুক্তি পাচ্ছে আগামিকাল। সারাগারি যুদ্ধের কাহিনির উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে ছবিটি। ছবির মুখ্য অভিনেতা অক্ষয় কুমার বলেছেন, এই যুদ্ধের কাহিনি সিলেবাসের অন্তর্ভূক্ত করা উচিত।

অক্ষয় কুমার জানিয়েছেন, ছবি করতে গিয়ে এর ইতিহাস তাঁকে উদ্বুদ্ধ করেছে। কিন্তু তিনি একথা শুনে অবাক হয়েছেন যে সারাগারি যুদ্ধের কাহিনি কোথাও পড়ানো হয় না। তিনি এও বলেছেন, ব্রিটেনে সারাগারি ডে পালন করা হয়। সেখানে অনেক আনন্দ-উৎসবও হয়। কিন্তু ভারতে সেসব কিছুই হয় না। এমনকী তিনি নিজেও ছবি করার আগে এই সাহসিকতার কাহিনি জানতেন না। গুগলে যদি পাঁচটি সেরা যুদ্ধ টাইপ করা হয়, তবে এটি আসে তিন নম্বরে। অথচ এর কথা কেউ জানে না। সারাগারি যুদ্ধের কথা বোর্ডের সিলেবাসে অন্তর্ভূক্ত হওয়া দরকার।

মুখ ফিরিয়েছে বলিউড, চৌকিদারের কাজ করছেন দাপুটে অভিনেতা ]

অভিনেতা আরও জানিয়েছেন, ‘৩০০’ নামে যে ইংরেজি ছবিটি হয়েছিল সেখানে মাত্র ৩০০ জন যোদ্ধা ১০ হাজার পারস্য সৈন্যর বিরুদ্ধে লড়াই করেছিল। তিনি কিছুদিন আগেই জানতে পেরেছেন এটি একটি কাল্পনিক গল্প। দর্শক ছবিটি সাদরে গ্রহণ করেছে। অথচ আমাদের দেশে মাত্র ২১ জন শিখ যোদ্ধা ওই একই সৈন্য সংখ্যার বিরুদ্ধে লড়েছিল। এটি বাস্তব। “আমি যখন এসব গল্প শুনি, গর্ব হয়।” বলেছেন অভিনেতা।

এই যুদ্ধের কাহিনি ১৮৯৭ সালের। ১০ হাজার আফগান সেনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন তৎকালীন ব্রিটিশ আর্মির ৩৬তম রেজিমেন্টের (বর্তমান ভারতীয় সেনার চতুর্থ ব্যাটালিয়ন) ২১ জন শিখ জওয়ান। হার নিশ্চিত জেনেও প্রাণ থাকতে যুদ্ধক্ষেত্র ছেড়ে পালিয়ে যাননি তাঁরা। বরং কড়া টক্কর দিয়েছিলেন হাজার হাজার আফগান সৈন্যদের। ইতিহাসের এই বীরত্বের গাথাই ‘ব্যাটল অফ সারাগারি’ নামেই পরিচিত। পর্দায় এই গল্পই তুলে ধরছেন অক্ষয়। ছবিটি পরিচালনা করেছেন অনুরাগ সিং। প্রযোজনা করেছে করণ জোহরের ধর্মা প্রোডাকশনস, ইশা আম্বানি ও টুইঙ্কল খান্না। ২১ মার্চ, দোলের দিন মুক্তি পাবে ছবিটি। ছবিতে অক্ষয় কুমারের উলটোদিকে অভিনয় করেছেন পরিণীতি চোপড়া।

শরীরের ঊর্ধ্বাংশ সম্পূর্ণ অনাবৃত, ইনস্টাগ্রামে অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট মন্দনার ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং