২৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাঙালি বরাবরই গোয়েন্দাভক্ত। শৈশবে পাঠ্যবইয়ের ভিতর লুকিয়ে গোয়েন্দাদের মতো গোয়েন্দা গপ্পো লেহ্যন করার মধ্যে যে আস্বাদ পাওয়া যেত, সেই স্মৃতি বাঙালির অন্দরে সবসময়েই উজ্জ্বল। ফেলুদা, ব্যোমকেশ, শবর, সোনাদা এযাবৎকাল অনেক ‘গোয়েন-দা’রাই বইয়ের পাতা থেকে বেরিয়ে এসে বড়পর্দায় থাবা বসিয়েছেন। কিন্তু যে জন্য এত কথা বলা, তার মূল কারণ, আরেক বাঙালি পরিচালক এবার ব্যোমকেশের প্রেমে পড়েছেন। আর ব্যোমকেশপ্রীতি থেকেই এবার সেলুলয়েডে তিনিও অবতীর্ণ হতে চলেছেন নতুন সত্যান্বেষী-রুপে। মোদ্দা কথা,  আবির চট্টোপাধ্যায় এবং যীশু সেনগুপ্তর পর এবার পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কেও দেখা যাবে সত্যান্বেষীর ভূমিকায়। এর আগে অবশ্য  বড়পর্দায় সুজয় ঘোষকেও দেখা গিয়েছে ব্যোমকেশ বেশে। ওয়েব সিরিজে অণিবার্ণ ভট্টাচার্য এবং ধারাবাহিকে ব্যোমকেশের ভূমিকায় দেখা গিয়েছে গৌরব চট্টোপাধ্যায়কেও। অতএব দর্শকরা বড়পর্দায় পেতে চলেছেন এক নতুন ব্যোমকেশকে। 

[আরও পড়ুন : এখানকার অভিনেত্রীরা আপনাকে হিংসে করেন? কী জবাব জয়া আহসানের? ]

শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যোমকেশ-এর স্বত্ত্ব অনেকের কাছেই রয়েছে। আর তা নিয়েই পরিচালক প্রযোজকরা একের পর এক নিজেদের মতো করে সেলুলয়েডে কাটাছেঁড়া করে চলেছেন ব্যোমকেশের গোয়েন্দা গপ্পোকে। মোটামুটি সবকটাই বাণিজ্যিকভাবে সফল। তবে, সত্যান্বেষী-রুপে পরমের আবির্ভাবে ভুলেও ভাববেন যে যীশু সেনগুপ্ত এবং আবিরের দেখা মিলবে না। সুতরাং, তাঁদের পর বড়পর্দায় আবির্ভাব ঘটতে চলেছে নয়া ব্যোমকেশের। শোনা গিয়েছে, শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘মগ্ন মৈনাক’-এ মজেছেন পরিচালক পরমব্রত। আর এই কাহিনির ভিত্তিতেই তৈরি হতে চলেছে তাঁর পরবর্তী ছবি। অভিনয় করার পাশাপাশি এই ছবি পরিচালনার ইচ্ছেও রয়েছে তাঁর। কিন্তু, বেশ কয়েকটা ছবির কাজে পরম আপাতত বেজায় ব্যস্ত। অগত্যা, পরিচালনার জন্য তাঁকে দ্বিতীয় প্ল্যানও তৈরি রাখতে হয়েছে। কোনও কারণে, পরিচালকের আসনে পরম বসতে না পারলে এই ছবি পরিচালনা করবেন সায়ন্তন ঘোষাল। তবে অন্যান্য পরিচালকদের মতো তিনিও বড়পর্দায় ব্যোমকেশ সিরিজ আনবেন কি না, তা এখনও জানা যায়নি।  

[আরও পড়ুন : রহস্যে ভরপুর প্রফেসর সুবর্ণ সেনের নতুন জার্নি, সোনাদা আসছেন গরমের ছুটিতে ]

অন্যদিকে, অরিন্দম শীল তাঁর পরবর্তী ব্যোমকেশ কবে পরিচালনা করবেন, সেই নিয়ে ধন্দে রয়েছেন। তবে, অরিন্দমের ‘ব্যোমকেশ’-এর হেরফের হয়নি। রয়েছেন আবির-ই। আপাতত চিত্রনাট্য লেখার কাজ চলছে। তবে, কোন গল্প সেটা ফাঁস করেননি পরিচালক। ওদিকে প্রযোজক কৌস্তভ রায় অঞ্জন দত্তর বদলে ইন্দ্রনীল ঘোষকে দায়িত্ব দিয়েছেন পরবর্তী ‘ব্যোমকেশ’ করার। যেখানে সত্যান্বেষী-রুপে দেখা যাবে যীশু সেনগুপ্তকে। অসমাপ্ত কাহিনি ‘বিশুপাল বধ’ নিয়ে ছবি করছেন তাঁরা। তা সেলুলয়েডে এই তিন ‘ব্যোমকেশ’-এর সহাবস্থান কতটা শান্তিপূর্ণ হবে, তা বলবে সময়ই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং