৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছর দুয়েক আগেই একশো পার করেছে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘শ্রীকান্ত’ উপন্যাসের প্রথম পর্ব। সালটা ১৯১৭। সেই সময়ের প্রেক্ষাপটেই রাজলক্ষ্মী এবং শ্রীকান্তের সম্পর্কের রসায়ন শব্দ সমাহারে বুনেছিলেন ঔপন্যাসিক। তাঁদের মান-অভিমান, বোঝাপড়া, সম্পর্কের তরঙ্গ আজকের প্রেক্ষাপটে অর্থাৎ ২০১৯ সালে দাঁড়িয়ে কেমন হত? যদি এই সময়ে রাজলক্ষ্মী এবং শ্রীকান্ত থাকত, তাহলে কেমন হত? ঠিক এই ভাবনা থেকেই একটি ছবি তৈরি করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য। তাঁর আগামী ছবি ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’।

[আরও পড়ুন: ‘লিভারের ২৫ শতাংশের ভরসায় বেঁচে রয়েছি’, অনুরাগীদের দুঃসংবাদ দিলেন অমিতাভ]

‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’, এই ছবি যে উপন্যাসভিত্তিক, তার ইঙ্গিত কিন্তু নামের মধ্যেই রয়েছে। সাহিত্যের সঙ্গে বোধহয় বাঙালিদের রসায়নটা ঠিক আঁতুরঘরেই তৈরি হয়ে যায়। তাই ছবির নামেই যে নস্ট্যালজিয়ার ছোঁয়া পাবেন বইপোকারা, তা বলাই বাহুল্য। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘শ্রীকান্ত’ উপন্যাসের প্রথম পর্ব অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এল তার ট্রেলার। ছবিতে শ্রীকান্তের ভূমিকায় ঋত্বিক চক্রবর্তী এবং রাজলক্ষ্মীর ভূমিকায় রয়েছে ওপার বাংলার খ্যাতনামা অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি। রয়েছেন অন্নদাদিদি। যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঋত্বিকের স্ত্রী অপরাজিতা ঘোষ দাস। তবে পরিচালক প্রদীপ্তর কেরামতিতে এই কাহিনিতে সংযোজন হয়েছে আরেক নয়া চরিত্রের- হুকুমচাঁদ। যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়।

খাস গ্রাম বাংলার মাঠ-ঘাট প্রান্তর, খড়কুটো, নদীর মতো আপন বেগে বয়ে চলা সম্পর্কের কাহিনি, সিনেমার সব উপকরণই বিদ্যমান প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ ছবিতে। ছোট কামরার শহুরে ফ্ল্যাটে প্রদীপ্তর রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্তর সংসার পাতার ঝলকও মিলল ট্রেলারে। মাটির গান, সুরেলা কণ্ঠের সঙ্গে গ্রামবাংলার চালচিত্র এবং রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্তর সম্পর্ক মিলেমিশে একাকার হয়ে গিয়েছে। এ এক অন্যরকম সম্পর্কের গল্প। এর আগে পরিচালক হরিদাস ভট্টাচার্য পরিচালিত ‘রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্ত’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন খোদ উত্তমকুমার এবং সুচিত্রা সেন। এবার সেই চরিত্র চিত্রায়ণে ঋত্বিক-জ্যোতিকা। একেবারে আনকোরা জুটি।

রাজলক্ষ্মীর মতো ধ্রুপদী চরিত্রে কেন জ্যোতিকাকেই বাছলেন পরিচালক? আমার ছবিতে রাজলক্ষ্মী বাংলাদেশ থেকে ছোটবেলাতেই এদেশে চলে আসে। তাই অথেন্টিসিটি বজায় রাখতেই জ্যোতিকা জ্যোতিকে বেছে নেওয়া। মোট ৭টি গান রয়েছে। সেমি ক্লাসিক্যাল, লোকগীতি, বিজেন্দ্রগীতি থেকে আধুনিক, সবরকম গানেরই স্বাদ পাবেন ছবিতে।

[আরও পড়ুন: ওয়েব সিরিজে কলকাতার ‘কুইন অফ ক্যাবারে’ মিস শেফালি, পরিচালনায় কঙ্কনা]

শরৎচন্দ্র মানেই সে সময়ের সামাজিক পরিস্থিতির আস্ত দলিল। তার লেখনীর মধ্য দিয়েই একাধিকবার নানাভাবে উঠে এসেছে উদ্বাস্তু, নারীপাচার, জাতপাত সংক্রান্ত সমস্যা, তৎকালীন অর্থনৈতিক পরিকাঠামোর কথা। পরিচালক প্রদীপ্তর ফ্রেমেও কি এই বিষয়গুলো রাজলক্ষ্মী ও শ্রীকান্তর হাত ধরেই উঠে আসবে? ঋত্বিক-জ্যোতিকাই বা কতটা আশাপূরণ করবে বাংলা সাহিত্যমনস্কা সিনেপ্রেমীদের, তা না হয়, আগামী ২০ সেপ্টেম্বরই দেখে নিন প্রেক্ষাগৃহে।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং