৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শুক্রবার ২২ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিডাল ডেস্ক: লিভারের ৭৫ শতাংশই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। বিগত ২০ বছর ধরে লিভারের মাত্র ২৫ শতাংশের উপর ভরসা করেই বেঁচে রয়েছেন তিনি। নিজের স্বাস্থ্য প্রসঙ্গে সম্প্রতি এমন চাঞ্চল্যকর তথ্যই প্রকাশ্যে এনেছেন অমিতাভ বচ্চন। এমনকী, দীর্ঘ ৮ বছর ধরে তিনি টিউবারকিউলোসিসে (যক্ষারোগ) আক্রান্ত বলেও জানান বলিউডের শাহেনশা।

[আরও পড়ুন: সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, স্বস্তিতে বাংলা সিনেমহল]

সম্প্রতি এক স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক প্রচারের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বলিউডের বর্ষীয়ান এই অভিনেতা। সেখানে খ্যাতনামা চিকিৎসক হর্ষবর্ধনের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। সেই অনুষ্ঠানেই নিজের স্বাস্থ্য সম্পর্কে মুখ খোলেন অমিতাভ। বিগ বি’র কথায়, “আমার লিভারের ৭৫ শতাংশ প্রায় নষ্ট হয়ে গিয়েছে। আমি এখন ২৫ শতাংশের উপর বেঁচে রয়েছি।” অমিতাভ আরও জানান, ২০০৮ সালে যক্ষারোগের চিকিৎসা হয়েছিল তাঁর। কিন্তু অমিতাভ জানতেনই না যে তার আরও ৮ বছর আগে থেকে সেই রোগ বাসা বেঁধেছিল তাঁর শরীরে। তাই কোনও শারীরিক সমস্যায় ভুগতে থাকলে সেটাকে যেন একেবারেই অবহেলা না করেন কোনও মানুষ, এদিন সেই পরামর্শই দেন অমিতাভ।

Amitabh Bachchan

ওই অনুষ্ঠানেই অমিতাভ জানিয়েছেন, এই ৭৬ বছরে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় পড়ে একাধিকবার ভুগতে হয়েছে তাঁকে। অনেকটা সময়। হেপাটাইটিস-বি এবং যক্ষার মতো কঠিন রোগেও আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। এখন অবশ্য সেসব অতীত। পুরোপুরি সেরে গিয়ে অনেকটাই ভাল আছেন তিনি। আর তাই শরীরচর্চা এবং খাওয়া-দাওয়ার উপর সকলকেই বিশেষ নজর দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি ওই অনুষ্ঠানে। তিনি আরও বলেন, “যক্ষা এখন সেরে যায়। তবে অনেক ক্ষেত্রে ধরা পড়ার আগেই তা অনেকটা ক্ষতি করে ফেলে। তাই অবহেলা না করে অতি সত্ত্বর চিকিৎসা করানো উচিত। নতুবা ভবিষ্যতে বড় রকমের রোগ দেখা দিতে পারে। এপ্রসঙ্গে নিজের কথাও উল্লেখ করে তিনি বলেন, “২০০০ সালে যখন কঠিন শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলাম, তখন জানতামই না যে শরীরে যক্ষার জীবাণু রয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ওয়েব সিরিজে কলকাতার ‘কুইন অফ ক্যাবারে’ মিস শেফালি, পরিচালনায় কঙ্কনা]

উল্লেখ্য, অমিতাভ বচ্চন দীর্ঘ দিন ধরেই বিভিন্ন স্বাস্থ্যমূলক সচেতনতার সরকারি প্রচারের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। পোলিও, যক্ষা, হেপাটাইটিস এবং ডায়াবেটিস সংক্রান্ত সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপনের মুখ তিনি। এসব রোগ রোখার আন্দোলনের সঙ্গেও বহুদিন ধরে যুক্ত তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং