২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘ডাবিং করা সিরিয়াল দেখালে কোথায় যাবেন বাংলার শিল্পীরা?’, অশনি সংকেত টলিউডের অন্দরে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 15, 2020 1:58 pm|    Updated: May 15, 2020 9:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১২মে একদিকে যখন রাজ্য সরকারের তরফে পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ শুরু করার ছাড়পত্র মিলেছে, ঠিক সেই দিনই শোনা গেল এক দুঃসংবাদ! জনপ্রিয় এক বাংলা চ্যানেলের চারটি ধারাবাহিক বন্ধ হতে চলেছে। ওই ধারাবাহিকগুলির প্রযোজনা সংস্থাকে মৌখিকভাবে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে চ্যানেলের কর্তৃপক্ষের তরফে যে এই অর্থকষ্ট নিয়ে সিরিয়ালগুলি আর টানা সম্ভব নয়! তার পরিবর্তে চ্যানেলকে আর্থিকভাবে বাঁচাতে হিন্দি ধারাবাহিকগুলি বাংলায় ডাবিং করে দেখানো হবে। যদিও এখনও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই ঘোষণা করা হয়নি। তবে সেই খবর বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়তেও সময় নেয়নি। তারপর থেকেই সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া। বাংলা টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা চ্যানেল কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। যার দৌলতে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন ট্রেন্ডিং ##saynotodubbedserial ।

প্রতিবাদী সুর শোনা গেল বিজেপি দলের সদস্য তথা টেলি অভিনেত্রী রূপা ভট্টাচার্যের কণ্ঠেও। ধারাবাহিক বন্ধ হলে যে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবেন জুনিয়র টেকনিশিয়ানরা, তা বলাই বাহুল্য। এমনিতেই লকডাউনের জেরে দৈনন্দিন পারিশ্রমিকের ভিত্তিতে যারা কাজ করেন, তারা ভীষণরকম সংকটের মধ্যে পড়েছেন। দুশ্চিন্তায় রয়েছেন অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও। সিরিয়ালের শুট বন্ধ থাকায় রোজগারহীন হয়ে পড়েছেন তাঁরা। যাঁদের কাছে টেলিপর্দাটাই একমাত্র ভরসা, তাঁরা চরম আশঙ্কার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। কারণ, আজ একটা চ্যানেল এই সিদ্ধান্ত নিলে অচিরেই অন্যান্য চ্যানেলগুলিও একই পন্থা অবলম্বন করতে পারে! এভাবে চলতে থাকলে প্রায় সব চ্যানেলের পক্ষ থেকেই ধারাবাহিকের বাজেট কমে যাবে। কাটছাঁট হবে কর্মীসংখ্যাও। স্বাভাবিকবশতই টান পড়বে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকেও। লকডাউনের মেয়াদ যত বাড়ছে, ততই জোরালো হচ্ছে আশঙ্কা।

[আরও পড়ুন: ভারত-বাংলাদেশের ৩ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিক আটকে, সিঙ্গাপুর সরকারের বিশেষ উদ্যোগে শামিল ঋতুপর্ণা]

উপরন্তু হিন্দি সিরিয়াল বাংলায় ডাবিং করে রেভিনিউ উপার্জনের পথে হাঁটছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। কোথায় যাবেন বাংলার শিল্পীরা? কলা-কুশলীরা? কী খাবেন ওই চারটি ধারাবাহিকের সঙ্গে জড়িত শিল্পী, কলাকুশলী এবং তাদের পরিবারেরা? উঠছে প্রশ্ন। করোনা পরবর্তী সময়ে বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির উপরে যে অচিরেই বড়সড় একটা অর্থনৈতিক ধ্বস নামতে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য! যার প্রভাব পড়বে অভিনেতা-অভিনেত্রী সকলের জীবনযাপনেই।

[আরও পড়ুন: স্বাস্থ্যকর্মীদের পিপিই কিট, ভেন্টিলেটর দিতে শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশনের নয়া উদ্যোগ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement