BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনাকে হারিয়ে শুটিংয়ে ফিরলেন ‘কৃষ্ণকলি’র নিখিল, খুশির হাওয়া শ্যামার পরিবারে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 20, 2020 5:39 pm|    Updated: August 20, 2020 5:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাকে জয় করেই শুটিং ফ্লোরে ফিরলেন ‘কৃষ্ণকলি’র নিখিল ওরফে নীল ভট্টাচার্য। নায়কের কামব্যাকে মুখে হাসি ফুটেছে শ্যামার পরিবারেও। আগস্টের প্রথম সপ্তাহে শোনা গিয়েছিল যে সহকর্মী ভিভান ঘোষের পর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন নীল ভট্টাচার্য। ধারাবাহিকের প্রিয় অভিনেতার করোনা হয়েছে শুনে বেশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিলেন অনুরাগীরা। তবে হোম আইসোলেশনে থেকেই ফেসবুক লাইভে এসে তাঁদের আশ্বস্ত করেছিলেন নিখিল যে, তিনি খুব শিগগিরিই সুস্থ হয়ে সেটে ফিরবেন। করলেনও তাই। করোনাকে হারিয়ে গুনে গুনে একেবারে ১৪ দিনের মাথায় ধরা দিলেন শুটিং সেটে।

দিন দুয়েক আগে মঙ্গলবারই ‘কৃষ্ণকলি’ ধারাবাহিক পা রাখল ৭০০ পর্বে। সেই সঙ্গে ছিল ধারাবাহিকের জন্মদিনও। অতঃপর ডবল সেলিব্রেশন। কিন্তু নায়কই যে ছিলেন না সেদিন সেটে! তবে পরের দিনই একেবারে স্বমহিমায় ফ্লোরে পা রাখলেন নিখিল। আর অমনি সেটে যেন এক হুল্লোড়, আনন্দের আমেজ। নীলের ফেরার খবরে খুশি ধারাবাহিক টিমের সকলেই। বুধবার থেকেই পুরোদমে সিরিয়ালের কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি। তবে হোম আইসোলেশেনও কিন্তু ছুটি ছিল না নিখিলের। রীতিমতো ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ করেছেন!

[আরও পড়ুন: সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে আদিত্য ঠাকরেকে ‘টার্গেট’ করছে বিরোধীরা! অভিযোগ শিব সেনার]

কীভাবে? বলা যাক তাহলে। নিখিলের ঘরেই তৈরি হয়েছিল সেট। পর্যাপ্ত আলো আর মেক-আপের ব্যবস্থা করে নিয়েছিলেন নিজেই। পরিচালকের নির্দেশ শুনে শুনে ঘরেই শট দিয়েছেন। উপায় নেই, কারণ ‘কৃষ্ণকলি’ সিরিয়ালের ব্যাটন যে তাঁর হাতেই। যতটা পেরেছেন সাহায্য করেছেন। তার কারণ একটাই, যাতে ‘কৃষ্ণকলি’ মূল গল্প থেকে না সরে যায়। নীল শুটিং না করলে হয়তো দিন কয়েকের জন্য চিত্রনাট্যে বদল আনতে হত। দেখাতে হত তাঁকে অপহরণ করা হয়েছে বা খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না! তাই সেসব যাতে না হয় করোনা নিয়ে বাড়ি বসেই শুটিং করেছেন তিনি। তবে ২ সপ্তাহের মধ্যেই করোনাকে হারিয়ে এখন তিনি মোটামুটি সুস্থ। বুধবার কাজেও ফিরেছেন।

[আরও পড়ুন: যুবপ্রজন্মের নাড়ি বুঝতে আপনি ব্যর্থ! দেশে বেকারত্ব নিয়ে মোদিকে খোঁচা নুসরতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement