৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের জেরে বাড়ি ভেঙে মৃত্যু হল অন্তত ১২ জনের। জখম হয়েছেন আরও ১৫ জন। এখনও ভেঙে পড়া দোতলা বাড়িটির নিচে অনেক মানুষ চাপা পড়ে রয়েছে বলে খবর। সোমবার ভোরে মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মৌ জেলার মহম্মদাবাদের ওয়ালিদপুরে। জখম মানুষদের হাসপাতালে ভরতি করার পাশাপাশি ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে বাকিদের বাইরে আনার চেষ্টা চলছে। দুর্ঘটনার খবর পেয়েই সবরকম সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

[আরও পড়ুন: আজ থেকে সুপ্রিম কোর্টে শুরু অযোধ্যা মামলার চূড়ান্ত শুনানি]

উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব(স্বরাষ্ট্র) অবনীশ অবস্তি জানান, মৌ-এর জেলাশাসক এই দুর্ঘটনা এখনও পর্যন্ত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন। এদিকে এই খবর পাওয়ার পরে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জেলা প্রশাসনকে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া নির্দেশ দিয়েছেন। এরপরই জেলাশাসক, পুলিশ সুপার ও অন্যান্য প্রশাসনিক আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজে নজরদারি চালাচ্ছেন। মৃতদের পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। জখমদের সরকারি খরচে চিকিৎসা করানোর প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন:দাউদ অনুগামীর সঙ্গে ‘সন্ত্রাসে মদত’, ইডি-র রাডারে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার ভোরে ওয়ালিদপুর এলাকার মানুষ আচমকা বিকট শব্দ শুনতে পান, চোখে পড়ে লেলিহান আগুনের শিখাও। এর কিছুক্ষণের মধ্যে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে বাড়িটি। মুহূর্তের মধ্যে মানুষের আর্ত চিৎকারে ভরে যায় চারিদিক। সঙ্গে সঙ্গে ছুটে এসে ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়া মানুষদের উদ্ধারের কাজে হাত লাগান স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে এসে তাতে যোগ দেন পুলিশ ও উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা। আসে দমকলও। এরপর ক্রেন দিয়ে ভাঙা অংশ তাড়াতাড়ি সরিয়ে ওই বাড়িটির নিচে আটকে  থাকা মানুষদের উদ্ধারের কাজ শুরু হয়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং