৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছিল। ২০০১৮ সালে ঘটা সেই ঘটনার বিচার মিলল প্রায় ২ বছর পর। দুই দোষী সাব্যস্তকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে ত্রিপুরায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৮ সালের ৫ ডিসেম্বর ঘটনাটি ঘটেছিল ত্রিপুরার গোমতী জেলার নতুন বাজার থানার অন্তর্গত কৃষ্ণকান্ত পাড়ায়। ১৫ বছরের ওই কিশোরী স্কুলে যাচ্ছিল। সেইসময় তাকে জোর করে জঙ্গলে টেনে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ (Rape) করে দুই যুবক। তারপর প্রমাণ চাপা দিতে নির্যাতিতার মাথায় গাছের ডাল দিয়ে বেধড়ক মারধর করে পুকুরে চুবিয়ে রাখে। এর জেরে দমবন্ধ হয়ে মারা যায় মেয়েটি। পরে তার দেহ মাটিতে পুঁতে রেখে পালিয়ে যায় দুই ধর্ষক

[আরও পড়ুন: পুলওয়ামার শহিদদের স্মৃতিচারণায় প্রতিশোধের হুমকি সিআরপিএফের, টুইটে শ্রদ্ধার্ঘ্য মোদি-মমতার ]

 

এদিকে বিকেল হয়ে যাওয়ার পরে স্কুল থেকে বাড়ি না ফেরায় চিন্তায় পরে যায় কিশোরটির পরিবার। পরে বোনের কোনও খবর না পেয়ে স্থানীয় দুই যুবকের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মেয়েটির দাদা। এরপরই Pocso-সহ ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় দুই অভিযুক্তকেও। এরপর ৩২ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়। তার ভিত্তিতে সম্প্রতি দোষী সাব্যস্ত করা হয় দুই যুবককে। আর আজ তাদের ফাঁসির সাজা ঘোষণা করা হল।

[আরও পড়ুন: পুলওয়ামা কাণ্ডের বর্ষপূর্তি: কোথা থেকে এসেছিল বিস্ফোরক, এখনও অন্ধকারে NIA ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং