২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ, রাতেই দেশ থেকে বের করে দেওয়া হল পাক দূতাবাসের ২ কর্মীকে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 2, 2020 11:07 am|    Updated: June 2, 2020 11:07 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আবিদ হুসেন ও তাহির খান। গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ধরা পড়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ভারত থেকে বের করে দেওয়া হল পাকিস্তানের এই দুই কূটনীতিককে। সোমবার রাতেই আটারি-ওয়াঘা সীমান্ত (Attari-Wagah border) দিয়ে ভারত ছাড়ল পাক দূতাবাসের এই দুই ‘গুণধর’ কর্মী। বিমান পরিষেবা বন্ধ থাকায় সড়কপথেই দেশে ফিরতে হয়েছে তাদের।

ভিসা আধিকারিক হিসেবে ভারতে এসে গোপনে গুপ্তচরবৃত্তি চালাচ্ছিল এই আবিদ হুসেন ও তাহির খান। পাকিস্তান দূতাবাসের (High Commission of Pakistan) ওই দুই আধিকারিক নামেই ভিসা দেওয়ার কাজে যুক্ত ছিল। আসলে এর আড়ালে তারা আইএসআইয়ের হয়ে কাজ করত। সোমবার তাদের সমস্ত জারিজুরি ফাঁস হয়ে যায়। দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল সেলের আধিকারিকরা পাক দূতাবাসের এই দুই কর্মীকে আটক করে। ভারত বিরোধী ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগে জাভেদ হুসেন নামের আরও এক পাকিস্তানি নাগরিককে আটক করা হয়। এ খবর পাওয়ামাত্রই নিজেদের ‘গুপ্তচর’দের বাঁচাতে মরিয়া হয়ে ওঠে পাকিস্তান। পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনের কর্মীদের তলব করে এই দুই ‘চরের’ মুক্তির দাবি জানায় তাঁরা। পরে কূটনৈতিক বাধ্যবাধকতার জন্য পাক দূতাবাসের দুই কর্মীকে ছেড়ে দেয় নয়াদিল্লি। তবে, ছেড়ে দিলেও ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরিদের মাদক খাইয়ে নাশকতায় ব্যবহারের ছক, বুদগামে ধৃত ৬ জইশ জঙ্গি]

বিদেশমন্ত্রক এক বিবৃতি দিয়ে জানায়, কূটনৈতিক মিশনের সদস্য হিসেবে নিযুক্ত থাকা সত্বেও নিজেদের দায়িত্বের সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মকাণ্ডে লিপ্ত ছিলেন এই দুই আধিকারিক। তাই সরকারের তরফে তাদের অনাস্থাভাজন দূত (persona non grata) ঘোষণা করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ভারতের জাতীয় নিরাপত্তার পরিপন্থী ষড়যন্ত্রের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে পাকিস্তান দূতাবাসের দায়িত্বে থাকা আধিকারিককের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। বিদেশমন্ত্রকের এই নির্দেশ মেনে রাতেই ভারত ছাড়ে আবিদ হুসেন ও তাহির খান।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement