০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এক ছাতার তলায় ২২টি কৃষক সংগঠন, পাঞ্জাবে আত্মপ্রকাশ নয়া রাজনৈতিক দল ‘সংযুক্ত সমাজ মোর্চা’র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 25, 2021 7:27 pm|    Updated: December 25, 2021 7:27 pm

22 Farmer unions float political party named 'Samyukta Samaj Morcha' in Punjab | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এতদিনের আন্দোলন ছিল অরাজনৈতিক। স্রেফ অধিকার রক্ষার লড়াই। যে লড়াইয়ে কোনও রাজনৈতিক দলকেই শরিক হতে দেননি কৃষকরা। সেই লড়াইয়ে সাফল্য এসেছে। কেন্দ্র তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন (Farm Laws) প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়েছে। এবার আন্দোলনকারী কৃষকরা নামছেন সক্রিয় রাজনীতিতে। তাঁদের মনে হচ্ছে, সিস্টেমের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিততে হলে ভোটে জেতা দরকার। শনিবারের বারবেলায় পাঞ্জাবের ২২টি কৃষক সংগঠন এক ছাতার তলায় এসে তৈরি করে ফেলল নতুন রাজনৈতিক দল। সংযুক্ত সমাজ মোর্চা (Samyukta Samaj Morcha)। কৃষক আন্দোলনের সঙ্গে পুরোপুরি জুড়ে গেল রাজনীতি। 

কৃষক সংগঠনের নেতাদের দাবি, সংযুক্ত কিষান মোর্চা (Samyukta Kishan Morcha) যেমন অনেকগুলি আলাদা আলাদা মতাদর্শের সংগঠনের ঐক্যমঞ্চ ছিল, তেমন এটাও একটা ঐক্যমঞ্চ। এটা কোনও রাজনৈতিক দল নয়, বরং এটা একটা মোর্চা, একটা আন্দোলনের নাম। যেখানে বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষ একত্রিত হবে। কৃষক নেতা হরমীত সিং কাদিয়ান বলছিলেন, “আমরা সংযুক্ত কিষান মোর্চার (SKM) ব্যানারে আন্দোলন করে জয়ী হলাম। কিন্তু তারপর ঘরে ফিরে দেখলাম আমাদের চাপ দেওয়া হচ্ছে। এই যুদ্ধে জিততে হলে, আমাদের নির্বাচনেও জিততে হবে।”

[আরও পড়ুন: ‘ভাগ্যিস সান্টা স্লেজগাড়ি চালাচ্ছে, পেট্রল ভরতে হয় না’, বড়দিনেও কেন্দ্রকে খোঁচা কংগ্রেসের]

এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে এই সংযুক্ত সমাজ মোর্চার নেতৃত্বে থাকবেন ভারতীয় কিষান ইউনিয়নের (BKU) নেতা বলবীর সিং রাজেওয়াল। তাঁর বক্তব্য, জনগণের দাবি মেনেই এই রাজনৈতিক দল তৈরি করা। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষ এই দলে যোগ দিয়েছেন। আপাতত তাঁর লক্ষ্য, দলের সংগঠন মজবুত করা এবং সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছানো। নবগঠিত সংযুক্ত সমাজ মোর্চা (SSM) পাঞ্জাবের সব আসনেই লড়বে বলে দাবি করেছেন তিনি। রাজনৈতিক মহলে জল্পনা, অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির (Aam Admi Party) সঙ্গে জোট করে লড়তে পারে এসএসএম (SSM)। যদিও কৃষক নেতারা সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে জানিয়েছেন, তাঁরা পাঞ্চাবের ১১৭টি আসনেই লড়বেন।

[আরও পড়ুন: ‘এখন পিছিয়েছি, পরে এগোব’, বিতর্কিত কৃষি আইন ফের আনার ইঙ্গিত কৃষিমন্ত্রীর]

কৃষকদের এই পদক্ষেপ সেরাজ্যে কংগ্রেসের জন্য বড়সড় ধাক্কা। কারণ, এই কৃষক আন্দোলনের ফসল তুলেই পাঞ্জাবে ক্ষমতায় ফেরার স্বপ্ন দেখছে কংগ্রেস। অথচ, কৃষকদের এই নতুন দল এবার লড়বে পাঞ্জাবের কংগ্রেস (Congress) সরকারের বিরুদ্ধেই। যদিও কৃষকদের এই নতুন দলের সঙ্গে ইতিমধ্যেই দূরত্ব তৈরি করে নিয়েছে কৃষকদের বৃহত্তম সংগঠন সংযুক্ত কিষান মোর্চা। তারা এই নির্বাচনে লড়ছে না বলেই সাফ জানিয়েছেন কিষান মোর্চার নেতারা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে