BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

উত্তরপ্রদেশে এবার ভুয়ো ‘লাভ জেহাদ’! মুসলিম যুবকদের ফাঁসাতে মিথ্যা মামলা তরুণীর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 3, 2021 1:29 pm|    Updated: January 3, 2021 2:07 pm

22-year-old UP woman ‘incorrectly frames’ 3 Muslim men under anti-conversion law | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যোগীরাজ্যে (Uttar Pradesh) এবার ভুয়ো ‘লাভ জেহাদ’ (Love jihad)। তিন মুসলিম যুবককে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানোর চেষ্টা করে বিপাকে ২২ বছরের তরুণী। প্রথমে পুলিশ অভিযুক্ত যুবকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে তাঁদের আটক করেছিল। কিন্তু ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ছেড়ে দেওয়া হয় তাঁদের। উলটে এবার নতুন করে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে অভিযোগকারিণীর বিরুদ্ধেই।

ঠিক কী হয়েছিল? গত ১ ডিসেম্বর বরেলিতে ওই তিন যুবক তাঁর পিছু নেন ও তাঁকে যৌন হেনস্থা করেন বলে অভিযোগ জানিয়েছিলেন তরুণী। পাশাপাশি, যুবকদের মধ্যে একজন বন্দুক দেখিয়ে তাঁকে জোর করে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করেন বলেও অভিযোগ করেন তিন‌ি। প্রসঙ্গত, তিন যুবক পরস্পরের আত্মীয়। বিয়ের পরে তরুণীর বাড়ির লোককে নিয়মিত হুমকি দেওয়া হচ্ছিল বলেও অভিযোগ করা হয়। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ ‘লাভ জেহাদে’র মামলা গ্রহণ করলেও তদন্তে নামার পরে জানা যায়, ওই তিন যুবক ওইদিন বরেলিতে ছিলেনই না! অবশেষে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮২ ধারা অনুযায়ী অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তরুণীর বিরুদ্ধে।

[আরও পড়ুন: ‘ভ্যাকসিনের সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই’, অখিলেশকে বিঁধে টিকার পক্ষেই সওয়াল ওমরের]

কিন্তু কেন ওই যুবকদের ফাঁসানোর চেষ্টা করেছিলেন তরুণী? তদন্তে নেমে পুলিশ তাও জানতে পেরেছে। আসলে ওই তিন যুবকের মধ্যে একজনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তরুণীর। প্রায় বছরখানেকের প্রেমের পরে তাঁরা পালিয়ে গিয়ে বিয়েও করেন গত বছরের সেপ্টেম্বরে। তরুণীর কাকার অভিযোগের ভিত্তিতে ন’দিনের মধ্যেই তাঁকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তরুণীর বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয় একই সম্প্রদায়ের এক যুবকের সঙ্গে।

এরপরই পুরনো প্রেমিককে ফাঁসাতে এই মিথ্যে অভিযোগ তরুণীর। দেড় মাস আগে রাজ্যে চালু হওয়া নয়া আইনের ভিত্তিতে গ্রেপ্তারও করা হয় তিন যুবককে। পরে মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন দেখে ভুল ভাঙতেই তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয় শনিবার।

[আরও পড়ুন: দেশে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগ করা যাবে কোভ্যাক্সিন, ছাড়পত্র বিশেষজ্ঞ কমিটির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে