BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

পুলওয়ামায় ফের গুলির লড়াই, এনকাউন্টারে খতম তিন জইশ জঙ্গি

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 3, 2020 11:59 am|    Updated: June 3, 2020 12:03 pm

An Images

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: করোনা আতঙ্কেও কাশ্মীরে অব্যাহত সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই। প্রতিটি দেশের বিশেষজ্ঞরা যেখানে করোনা নিয়ে নাজেহাল সেখানে ভারতে অনুপ্রবেশ জারি রেখেছ জঙ্গি সংগঠনগুলি। মারণ ভাইরাসের আতঙ্ককে অগ্রাহ্য করে নাশকতার ছক কষতেই ব্যস্ত তারা। বুধবার সকালেই কাশ্মীরের পুলওয়ামায়  ফের শুরু হয় সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াই। নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় ৩ জইশ-ই-মহম্মদ (Jaish-e-Mohammed)জঙ্গির।

পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পায় যে, পুলওয়ামা (Pulwama) এলাকায় গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে সন্ত্রাসবাদীরা। এরপরই জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ, সেনাবাহিনীর ৫৫ নম্বর ব্যাটেলিয়ান ও সিআরপিএফের ১৮৩ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের যৌথ বাহিনী মঙ্গলবার রাত থেকেই তল্লাশি অভিযান শুরু করে এলাকায়। প্রথমে তাঁরা পুরো এলাকা ঘিরে ফেলেন। এরপরই বুধবার সকালে নিরাপত্তা রক্ষীদের লক্ষ্য করে জঙ্গিরা (Terror) গুলি চালাতে শুরু করলে চুপ থাকেনি নিরাপত্তা বাহিনীও। তাঁরাও পালটা গুলি চালায়। শুরু হয় তীব্র গুলি বিনিময়। বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারায় ৩ জইশ জঙ্গি। তবে নিরাপত্তারক্ষীদের তরফে ১ জন সেনা আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। এই নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় পুলওয়ামায় ৫ জন জইশ জঙ্গিকে এনকাউন্টারে মারা হয়েছে বলে জানান পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল দিলবাগ সিং।

[আরও পড়ুন:গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত কলকাতা পুলিশের ৩৮ জন, উদ্বিগ্ন লালবাজার]

জঙ্গিদের দেহ উদ্ধার করেছেন নিরাপত্তারক্ষীরাই। তারা জইশ-ই-মহম্ম সংগঠনের জঙ্গি বলে চিহ্নিত করা গেলেও তাদের নাম এখনও জানা যায়নি। জঙ্গিদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণে অস্ত্র ও গোলা-বারুদ উদ্ধার হয়েছে বলে জানিয়েছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ। বড় নাশকতার ছক কষেই তারা এসেছিল বলে অনুমান পুলিশের। এখনও ওই এলাকায় কোনও জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে কিনা তার জন্য তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন:ভারত-চিন টানাপোড়েনের মধ্যেই মোদিকে ফোন ট্রাম্পের, কথা আমেরিকার ‘দাঙ্গা’ নিয়েও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement