BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

CAA বিরোধী আন্দোলনে রবিবারও উত্তপ্ত মেঘালয়, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 1, 2020 1:08 pm|    Updated: March 1, 2020 2:05 pm

3 Killed, 16 hurt in Meghalaya violence over CAA, ILP

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মেঘালয়ে অশান্তি অব্যাহত। খাসি ছাত্র সংগঠন ও অ-জনজাতি সম্প্রদায়ের সংঘর্ষে মৃত বেড়ে তিন। জখমের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬। গত ৪৮ ঘণ্টার অশান্তিতে উত্তর-পূর্বে এই রাজ্যে ভিন রাজ্য থেকে কাজ করতে আসা শ্রমিকরা বারবার আক্রান্ত হচ্ছেন বলে খবর। প্রসঙ্গত, শুক্রবার থেকে মেঘালয়ে খাসি ছাত্র সংগঠন ও অ-জনজাতি সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে।

[আরও পড়ুন :  হিন্দু সেনার হুমকির পরই সতর্ক দিল্লি পুলিশ, শাহিনবাগে ফের ১৪৪ ধারা জারি]

রবিবার রাত পৌনে তিনটে নাগাদ এক শ্রমিকের উপর চড়াও হয় দুষ্কৃতীরা। নাম উপহাস উদ্দিন (৩৭), অসমের বাসিন্দা। শনিবার লিউদহ বাজারে এক ভিন রাজ্যের যুবকের উপর হামলা চালায় উন্মত্ত জনতা। সেখানে তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয় বলে খবর। পুলিশ সূত্রে খবর, রাজধানী শহর শিলঙে ছোরার আঘাতে সাতজন জখম হয়েছেন। হামলাকারীদের এখনও চিহ্নিত করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে শোহরা বাজার এলাকায় এক ভিন্নরাজ্যের শ্রমিকের উপর চড়াও হয় উন্মত্ত জনতা। গুরুতর জখম অবস্থায় শিলঙ সিভিল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি।

[আরও পড়ুন : করোনার প্রথম বলি ভারতে? কেরলে মৃত্যু চিকিৎসাধীন যুবকের]

শুক্রবার থেকেই খাসি পাহাড়ের কোলের এই রাজ্যে অশান্তি ছড়াতে শুরু করে। জানা গিয়েছে, শুক্রবার দুপুরে CAA এবং ইনার লাইন পারমিট নিয়ে খাসি ছাত্র সংগঠন (KSU)-এর বৈঠক ছিল। এই বৈঠকের পরই উত্তেজনা ছড়ায়। রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় খাসি ছাত্র সংগঠন এবং অ-জনজাতি সম্প্রদায়ের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। বেশকিছু সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর, গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। একটি খড়ের গাদাও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় বলে খবর। ওইদিনই সংঘর্ষের জেরে শিলঙে একজন প্রাণ হারান। তিনি KSU-এর সদস্য বলে খবর। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে কয়েকজন পুলিশকর্মী গুরুতর জখম হয়েছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে