১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পর থেকেই কাশ্মীরে অশান্তি পাকানোর মরিয়া চেষ্টা করছে পাকিস্তান। ভারত সীমান্তে একনাগাড়ে সেনা মোতায়েন করার পাশাপাশি ক্রমাগত জঙ্গিদের ভূস্বর্গে অনুপ্রবেশ করানোর চেষ্টা করছে। কয়েকদিন আগেই পুঞ্চ সেক্টরে ৬ জন জঙ্গির অনুপ্রবেশ রুখেছেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। আর এবার সোপিয়ান সীমান্ত দিয়ে চার লস্কর জঙ্গি অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করছে বলে খবর দিলেন গোয়েন্দারা।

[আরও পড়ুন: লুঙ্গি পরে ট্রাক চালালেই ২ হাজার টাকা জরিমানা, নয়া ফরমান যোগী সরকারের]

তাঁদের থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানের মদতপুষ্ট লস্কর-ই-তইবা জঙ্গি সংগঠনের চার জঙ্গি সোপিয়ান সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে। কাশ্মীরের সাম্বা জেলার বারি ব্রামানা ক্যাম্প এবং জম্মু এলাকার সাঞ্জুওয়ান ও কালুচক সেনা ক্যাম্পে হামলা চালানোর ছক রয়েছে তাদের।

গত সপ্তাহে গুলমার্গ থেকে ধরা পড়ে পাকিস্তান থেকে অনুপ্রবেশ করা দুই জঙ্গি। তাদের জেরা করে জানা যায়, এদেশে ঢোকার জন্য নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে অপেক্ষায় করছে কমপক্ষে ৫০ জন জঙ্গি। আর এই কাজে তাদের
সবরকম সাহায্য করছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। বর্তমানে ওই জঙ্গিরা কাচারবান লঞ্চিং প্যাডে রয়েছে। পাকিস্তানের সেনা তাদের জোহলি, বারগি ও নিউ বাঠলা পোস্ট ব্যবহার করে ভারতে ঢোকানোর চেষ্টা করছে।

[আরও পড়ুন:হিমাচলপ্রদেশে জোড়া ভূমিকম্প, কেঁপে উঠল কাশ্মীর থেকে ইসলামাবাদ]

আসলে এই পুরো বিষয়টির পিছনে রয়েছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। গোয়েন্দারা জানাচ্ছেন, কট্টর জঙ্গিদের ভারতে ঢুকিয়ে বিভিন্ন ধর্মীয় স্থানে হামলার নির্দেশ দিয়েছে আইএসআই। জঙ্গি ও তাদের মদতদাতা পাকিস্তানি এজেন্টদের মধ্যে চালাচালি হওয়া মেসেজ গোয়েন্দাদের হাতে আসার পরে এই তথ্য জানা গিয়েছে।

সম্প্রতি এই বিষয়ে সতর্ক করেছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালও। তিনি জানিয়েছিলেন, মোবাইল টাওয়ার ব্যবহার করে ভারতে থাকা জঙ্গিদের সাঙ্কেতিক মেসেজ পাঠাচ্ছে পাকিস্তান। কাশ্মীরে অশান্তি পাকানোর লক্ষ্যেই এই কাজ করছে তারা। তবে যা কিছুই হোক না কেন কাশ্মীর বা কাশ্মীরিদের কোনও ক্ষতি হতে দেবে না ভারত।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং