BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনের মধ্যেও যৌন লালসার শিকার দৃষ্টিহীন প্রৌঢ়া, দায়ের অভিযোগ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 18, 2020 9:33 am|    Updated: April 18, 2020 9:39 am

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে লকডাউন। গৃহবন্দি মানুষ। কিন্তু তার মধ্যেও যৌন লালসার শিকার হলেন দৃষ্টিহীন এক প্রৌঢ়া। ঘটনায় ইতিমধ্যেই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

শুক্রবার মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে মধ্যপ্রদেশের ভোপালের শাহপুরা এলাকায়। লকডাউনের জেরে রাজস্থানে আটকে বছর তিপান্নর প্রৌঢ়ার স্বামী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। ফলত, ভোপালের বাড়িতে একাই দিন কাটাতে হচ্ছে তাঁকে। আর তাঁর এই একলা থাকার সুযোগ নিয়েই ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। পেশায় ব্যাংককর্মী ওই প্রৌঢ়ার অভিযোগ, শুক্রবার নিজের বাড়িতেই ঘুমোচ্ছিলেন তিনি। তখনই অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি ঢুকে পড়ে তাঁর ঘরের ভিতর। তারপরই ধর্ষণের শিকার হন তিনি। সমস্ত ঘটনা পুলিশকে জানান ওই মহিলা। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অভিযোগকারিনীকে মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: ভারতীয় নৌসেনায় করোনার থাবা, মুম্বইয়ে আক্রান্ত ২১ নাবিক]

শাহপুরা থানার এএসপি সঞ্জয় সাহু জানাচ্ছেন, ক্রাইম সিন ঘুরে দেখা হয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি। তাছাড়া প্রৌঢ়া দৃষ্টিহীন হওয়ায় অভিযুক্তের মুখের বিবরণও দিতে পারেননি। তবে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, সিঁড়ি দিয়ে দোতলায় পৌঁছায় অভিযুক্ত। তারপর প্রৌঢ়ার ঘরের খোলা জানলা দিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে। গোটা ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ও ৩৭৭ নম্বর ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

লকডাউনের মধ্যেও এমন ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শাহপুরা এলাকায়। এমন পরিস্থিতি স্বামী ও পরিবারের থেকে দূরে থাকায় অসহায় হয়ে পড়েছেন নির্যাতিতা।

[আরও পড়ুন: নিজামুদ্দিন ফেরত রোহিঙ্গারা কোথায়? রাজ্যগুলিকে নজরদারির নির্দেশ দিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement